মহামতি অ্যালফ্রেড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মহামতি অ্যালফ্রেড
Alfred the Great silver coin.jpg
অ্যালফ্রেডের রৌপ্যমুদ্রা
অ্যাংলো-স্যাক্সন রাজা
রাজত্বআনুমানিক ৮৮৬ – ২৬ অক্টোবর, ৮৯৯
উত্তরসূরিএডওয়ার্ড দি এল্ডার
পশ্চিম স্যাক্সন রাজা
রাজত্বএপ্রিল ৮৭১ – আনুমানিক ৮৮৬
পূর্বসূরিপ্রথম এথেলরেড
জন্ম৮৪৮–৪৯
ওয়ান্টাজ, বার্কশায়ার[ক]
মৃত্যু২৬ অক্টোবর, ৮৯৯ (বয়স ৫০ বা ৫১)
সমাধিআনুমানিক ১১০০
দাম্পত্য সঙ্গীএয়ালহ্সউইথ
বংশধর
রাজবংশওয়েসেক্স
পিতাএথেলউলফ, ওয়েসেক্সের রাজা[২]
মাতাঅসবার[২]

মহামতি অ্যালফ্রেড (ইংরেজি: Alfred the Great; ৮৪৮/৪৯ – ২৬ অক্টোবর ৮৯৯) ছিলেন ওয়েস্ট স্যাক্সন রাজা (৮৭১ – আনুমানিক ৮৮৬) এবং তারপরে অ্যাংলো-স্যাক্সন রাজা (আনুমানিক ৮৮৬ – ৮৯৯)। তিনি ছিলেন রাজা এথেলউলফের কনিষ্ঠ পুত্র। এথেলউলফের মৃত্যুর সময় অ্যালফ্রেড ছিলেন নাবালক। অ্যালফ্রেডের তিন অগ্রজ এথেলবাল্ড, এথেলবার্টএথেলরেড অ্যালফ্রেডের পূর্বে পর্যায়ক্রমে রাজত্ব করেছিলেন।[৩]

সিংহাসনে আরোহণের পর অ্যালফ্রেডকে বেশ কয়েক বছর অতিবাহিত করতে হয় ভাইকিং আক্রমণ প্রতিরোধ করতে। ৮৭৮ সালে তিনি এডিংটনের যুদ্ধে এক চূড়ান্ত বিজয় লাভ করেন এবং ভাইকিংদের সঙ্গে একটি চুক্তি করেন।[৪] এই চুক্তির ফলেও ইংল্যান্ডের উত্তরে ডেন্ল সৃষ্টি হল।[৫] ভাইকিং নেতা গাথরামের খ্রিস্টধর্মে ধর্মান্তরণেরও তত্ত্বাবধান করেন অ্যালফ্রেড। ভাইকিংদের আক্রমণের প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে তিনি নিজের রাজ্যকে রক্ষা করে ইংল্যান্ডের একজন প্রভাবশালী শাসক হয়ে ওঠেন।[৬] নবম শতাব্দীর ওয়েলশ পণ্ডিত ও বিশপ অ্যাসেরের রচনায় অ্যালফ্রেডের জীবনকথা বিস্তারিতভাবে বর্ণিত হয়েছে।

বিদ্বান ও দয়ালু ব্যক্তি হিসেবে অ্যালফ্রেডের খ্যাতি ছিল। তিনি শিক্ষাদানে উৎসাহ দিতেন। অ্যালফ্রেড লাতিনের পরিবর্তে প্রাচীন ইংরেজি ভাষায় প্রাথমিক শিক্ষাদানের পক্ষপাতী ছিলেন।[৭] এছাড়া তিনি আইন ব্যবস্থা, সামরিক পরিকাঠামো ও তাঁর প্রজাদের জীবনযাত্রার মানের উন্নতিসাধন করেছিলেন। ষোড়শ শতাব্দীতে তাঁকে "মহামতি" আখ্যা দেওয়া হয়।

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Since 1974 Wantage has been in Oxfordshire.[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Wantage"। British Museum। ২৬ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০২০ 
  2. Abels 1998, পৃ. 26।
  3. Crofton 2006, পৃ. 8।
  4. Plummer 1911, পৃ. 582–584।
  5. Blackburn 1998, পৃ. 105–24।
  6. Yorke 2001, পৃ. 27–28।
  7. Keynes ও Lapidge 1983, পৃ. 125–26।

উল্লেখপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • Abels, Richard P. (১৯৮৮)। Lordship and Military Obligation in Anglo-Saxon England। British Museum Press। পৃষ্ঠা 58–78। আইএসবিএন 978-0-7141-0552-9 
  • Abels, Richard (১৯৯৮)। Alfred the Great: War, Kingship and Culture in Anglo-Saxon England। Longman। আইএসবিএন 978-0-582-04047-2 
  • Abels, Richard (২০০২)। "Royal Succession and the Growth of Political Stability in Ninth-Century Wessex"। The Haskins Society Journal: Studies in Medieval History12: 83–97। আইএসবিএন 978-1-84383-008-5 
  • Attenborough, F.L., সম্পাদক (১৯২২)। The laws of the earliest English kings। Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 52–53, 62–93, 98–101। ১০ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Bately, Janet (১৯৭০)। "King Alfred and the Old English Translation of Orosius"। Anglia88: 433–60। 
  • Bately, Janet (১৯৯০)। "'Those books that are most necessary for all men to know': The Classics and late ninth-century England: a reappraisal"। Bernardo, Aldo S.; Levin, Saul। The Classics in the Middle Ages। Binghamtion, New York। পৃষ্ঠা 45–78। 
  • Bately, Janet M. (২০১৪)। "Alfred as Author and Translator"। Nicole Guenther Discenza; Paul E. Szarmach। A Companion to Alfred the Great। Leiden: Brill। পৃষ্ঠা 113–42। আইএসবিএন 9789004283763ডিওআই:10.1163/9789004283763_006 
  • BBC staff (১৭ জানুয়ারি ২০১৪)। "Bone fragment 'could be King Alfred or son Edward'"BBC News 
  • Blackburn, M.A.S. (১৯৯৮)। "The London mint in the reign of Alfred"। Blackburn, M.A.S.; Dumville, D.N.। Kings, Currency and Alliances: History and Coinage of Southern England in the 9th Century। পৃষ্ঠা 105–24। 
  • "Bones confirmed as those of Saxon Princess Eadgyth"University of Bristol। ১৭ জুন ২০১০। ২৪ আগস্ট ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Bradshaw, Anthony (১৯৯৯)। The Burghal Hidage: Alfred's Towns। ১৬ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Brooks, Nicholas (১৯৮৪)। The Early History of the Church of Canterbury: Christ Church from 597 to 1066। পৃষ্ঠা 172–73। 
  • Brooks, N.P.; Graham-Campbell, J.A. (১৯৮৬)। "Reflections on the Viking-age silver hoard from Croydon, Surrey"। Anglo-Saxon Monetary History: Essays in Memory of Michael Dolley। পৃষ্ঠা 91–110। 
  • Cannon, John (১৯৯৭)। The Oxford Companion to British History। Oxford: Oxford University Press। আইএসবিএন 0-19-866176-2 
  • Charles-Edwards, T. M. (২০১৩)। Wales and the Britons 350–1064। Oxford, UK: Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-821731-2 
  • The Church Monuments Society (২৯ জানুয়ারি ২০১৪)। "The Post-Mortem Adventures of Alfred The Great"The Church Monuments Society। সংগ্রহের তারিখ ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  • Cohen, Tamara (২৭ মার্চ ২০১৩)। "Could these be the bones of Alfred the Great?"। IOL Scitech। সংগ্রহের তারিখ ৩ অক্টোবর ২০১৭ 
  • Costambeys, Marios (২০০৪)। "Ealhswith (d. 902)"Oxford Dictionary of National Biography। Oxford University Press। ডিওআই:10.1093/ref:odnb/39226। ২৬ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  (সাবস্ক্রিপশন বা যুক্তরাজ্যের গণগ্রন্থাগারের সদস্যপদ প্রয়োজন)
  • "HomeHistory of the Monarchy: English Monarchs (400 AD – 1603): The Anglo-Saxon kings:Alfred 'The Great' (r. 871–899)"The official website of the British Monarchy। ২০১১। ১ অক্টোবর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Craig, G (মে ১৯৯১)। "Alfred the Great: a diagnosis"Journal of the Royal Society of Medicine84 (5): 303–05। ডিওআই:10.1177/014107689108400518পিএমআইডি 1819247পিএমসি 1293232অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  • Crofton, Ian (২০০৬)। The Kings & Queens of England। Quercus Publishing। পৃষ্ঠা 8আইএসবিএন 978-1-84724-628-8 
  • "Great Britons 11–100"। BBC। ২১ আগস্ট ২০০২। ৪ ডিসেম্বর ২০০২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Dumville, David (১৯৯২)। Wessex and England from Alfred to Edgar : six essays on political, cultural, and ecclesiastical revival। Woodbridge, Suffolk: Boydell Press। আইএসবিএন 978-0-85115-308-7 
  • Dumville, David (১৯৭৯)। "The ætheling: a study in Anglo-Saxon constitutional history"। Anglo-Saxon England8: 1–33। ডিওআই:10.1017/s026367510000301x 
  • Dumville, David (১৯৮৬)। "The West Saxon Genealogical List: Manuscripts and Texts"। Anglia104: 1–32। আইএসএসএন 0340-5222এসটুসিআইডি 162322618ডিওআই:10.1515/angl.1986.1986.104.1 
  • Dodson, Aidan (২০০৪)। The Royal Tombs of Great Britain। London: Duckworth। 
  • Dumville, David (১৯৯৬)। Fryde, E. B.; Greenway, D. E.; Porter, S.; Roy, I, সম্পাদকগণ। Handbook of British Chronology (3rd with corrections সংস্করণ)। Cambridge: Cambridge University Press। আইএসবিএন 0-521-56350-X 
  • Dunstan, St (১৯৯২)। Ramsey, Nigel; Sparks, Margaret; Tatton-Brown, Tim, সম্পাদকগণ। St Dunstan:His Life, Times, and Cult। Woodbridge, Suffolk, UK: Boydell Press। আইএসবিএন 0-8511-5301-1 
  • Edwards, Heather (২০০৪)। "Ecgberht [Egbert] (d. 839)"Oxford Dictionary of National Biography। Oxford University Press। ডিওআই:10.1093/ref:odnb/8581। ২১ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  (সাবস্ক্রিপশন বা যুক্তরাজ্যের গণগ্রন্থাগারের সদস্যপদ প্রয়োজন)
  • Fleming, Robin (১৯৮৫)। "Monastic lands and England's defence in the Viking Age"। English Historical Review100 (395): 247–65। ডিওআই:10.1093/ehr/C.CCCXCV.247 
  • Foot, Sarah (২০১১)। Æthelstan: The First King of England। New Haven and London: Yale University Press। আইএসবিএন 978-0-300-12535-1 
  • Gifford, Edwin; Gifford, Joyce (২০০৩)। "Alfred's new longships"। Reuter, Timothy। Alfred the Great (Studies in early medieval Britain)। পৃষ্ঠা 281–89। আইএসবিএন 978-0-7546-0957-5 
  • Giles, J. A.; Ingram, J., সম্পাদকগণ (১৯৯৬)। The Anglo-Saxon Chronicle। Project Gutenberg। ২৯ জুন ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  — "Note: This electronic edition [of the Anglo-Saxon Chronicle] is a collation of material from nine diverse extant versions of the Chronicle. It contains primarily the translation of Rev. James Ingram, as published in the [1847] Everyman edition". It was "Originally compiled on the orders of King Alfred the Great, approximately A.D. 890, and subsequently maintained and added to by generations of anonymous scribes until the middle of the 12th Century".
  • Godden, M. R. (২০০৭)। "Did King Alfred Write Anything?"। Medium Ævum76 (1): 1–23। আইএসএসএন 0025-8385জেস্টোর 43632294ডিওআই:10.2307/43632294 
  • Gransden, Antonia (১৯৯৬)। Historical Writing in England: c. 500 to c. 1307। London: Routledge। আইএসবিএন 0-415-15124-4 
  • Gregory I, Pope; Alfred, King of England (১৮৭১)। Sweet, Henry, সম্পাদক। King Alfred's West-Saxon version of Gregory's Pastoral care। London: N. Trübner & Company for the Early English text society। ২২ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Hill, Paul (২০০৯)। The Viking Wars of Alfred the Great। Westholme। আইএসবিএন 978-1-59416-087-5 
  • Hill, David; Rumble, Alexander R., সম্পাদকগণ (১৯৯৬)। The Defence of Wessex: The Burghal Hidage and Anglo-Saxon Fortifications। Manchester: Manchester University Press। আইএসবিএন 0-719-03218-0 
  • Hollister, C. Warren (১৯৬২)। Anglo-Saxon Military Institutions on the Eve of the Norman Conquest। Oxford: Clarendon Press। 
  • Horspool, David (২০০৬)। Why Alfred Burned the Cakes। London: Profile Books। আইএসবিএন 1-8619-7786-7 
  • Hull, Lise E. (২০০৬)। Britain's Medieval Castles। Westport, CT: Praeger। আইএসবিএন 978-0-275-98414-4 
  •  Hunt, William (১৮৮৯)। "Ethelbald (d.860)"। Leslie StephenDictionary of National Biography18। London: Smith, Elder & Co। পৃষ্ঠা 16। 
  • Huntingdon, Henry (১৯৬৯)। "Histories"। Giles, J.A.। Memorials of King Alfred: being essays on the history and antiquities of England during the ninth century, the age of King Alfred, by various authors। Burt Franklin research & source works series (287)। New York: Burt Franklin। 
  • Huscroft, Richard (২০১৯)। Making England 796-1042। Abingdon, UK: Routledge। আইএসবিএন 978-1-138-18246-2 
  • Jackson, F I (জানুয়ারি ১৯৯২)। "Letter to the editor: Alfred the Great: a diagnosis"Journal of the Royal Society of Medicine85 (1): 58। পিএমআইডি 1610468পিএমসি 1293470অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  • Kalmar, Tomas (২০১৬a)। "Born in the Margin: The Chronological Scaffolding of Asser's Vita Ælfredi"। Peritia17: 79–98। আইএসএসএন 0332-1592ডিওআই:10.1484/J.PERIT.5.112197 
  • Kalmar, Tomas (২০১৬b)। "Then Alfred took the Throne and then what? Parker's Error and Plummer's Blind Spot"। Volodarskaya, Emma; Roberts, Jane। Language, Culture and Society in Russian/English Studies: the Proceedings of the Sixth Conference 27–28 July 2015। London, Senate House: University of London। পৃষ্ঠা 37–83। আইএসবিএন 978-5-88966-097-2। ২৮ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Kennedy, Maev (২৭ মার্চ ২০১৩)। "'Alfred the Great' bones exhumed from unmarked grave"The Guardian 
  • Keynes, Simon; Lapidge, Michael (১৯৮৩)। Alfred the Great, Asser's Life of King Alfred and other contemporary sources। Harmondsworth, England: Penguin। আইএসবিএন 0-14-044409-2 
  • Keynes, Simon (১৯৯৩)। "The Control of Kent in the Ninth Century"। Early Medieval Europe2 (2): 111–31। আইএসএসএন 1468-0254ডিওআই:10.1111/j.1468-0254.1993.tb00013.x 
  • Keynes, Simon (১৯৯৫)। "England, 700–900"। McKitterick, Rosamond। The New Cambridge Medieval HistoryII। Cambridge, UK: Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 18–42। আইএসবিএন 978-0-521-36292-4 
  • Keynes, Simon (১৯৯৮)। "Alfred and the Mercians"। Blackburn, Mark A.S.; Dumville, David N.। Kings, currency, and alliances: history and coinage of southern England in the ninth century। Woodbridge: Boydell & Brewer। পৃষ্ঠা 1–46। আইএসবিএন 978-0-85115-598-2 
  • Keynes, Simon (১৯৯৯)। "King Alfred the Great and Shaftesbury Abbey"। Studies in the Early History of Shaftesbury Abbey। Dorset County Council। আইএসবিএন 9780852168875ওসিএলসি 41466697 
  • Keynes, Simon (২০১৪)। "Asser"। Lapidge, Michael; Blair, John; Keynes, Simon; Scragg, Donald। The Wiley Blackwell Encyclopedia of Anglo-Saxon England (Second সংস্করণ)। Chichester, UK: Blackwell Publishing। পৃষ্ঠা 51–52। আইএসবিএন 978-0-470-65632-7 
  • Keys, David (১৭ জানুয়ারি ২০১৪)। "Bones of King Alfred the Great believed to have been found in a box at Winchester City Museum"The Independent। ১২ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০২১ 
  • Kirby, D. H. (২০০০)। The Earliest English Kings (Revised সংস্করণ)। London: Routledge। আইএসবিএন 978-0-415-24211-0 
  • Kiernan, Kevin S. (১৯৯৮)। "Alfred the Great's Burnt Boethius"। Bornstein, George; Tinkle, Theresa। The Iconic Page in Manuscript, Print, and Digital Culture। Ann Arbor: University of Michigan Press। 
  • Lapidge, Michael (২০০১)। Blair, John; Keynes, Simon; Scragg, Donald, সম্পাদকগণ। The Blackwell Encyclopaedia of Anglo-Saxon England। London, UK: Blackwell। আইএসবিএন 0-631-22492-0 }}
  • Lavelle, Ryan (২০১০)। Alfred's Wars: Sources and Interpretations of Anglo-Saxon Warfare in the Viking Age। Woodbridge, Suffolk: Boydel Press। আইএসবিএন 978-1-84383-569-1 
  • Loyn, H.R (১৯৯১)। Anglo-Saxon England and the Norman Conquest। Harlow, Essex: Longman Group। আইএসবিএন 0-582-07297-2 
  • Lavelle, Ryan (২০০৩)। Fortifications in Wessex c. 800-1066। Oxford: Osprey। আইএসবিএন 978-1-84176-639-3 
  • Malmesbury, William (১৯০৪)। Giles, J.A., সম্পাদক। Chronicle of the Kings of England। London: George Bell and Sons। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Miller, Sean (২০০৪)। "Æthelred [Ethelred] I (d. 871)"Oxford Dictionary of National Biography। Oxford University Press। ডিওআই:10.1093/ref:odnb/8913। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  (সাবস্ক্রিপশন বা যুক্তরাজ্যের গণগ্রন্থাগারের সদস্যপদ প্রয়োজন)
  • Merkle, Benjamin (২০০৯)। The White Horse King: The Life of Alfred the Great। New York: Thomas Nelson। পৃষ্ঠা 220আইএসবিএন 978-1-59555-252-5 
  • Morgan, Kenneth O.; Corbishley, Mike; Gillingham, John; Kelly, Rosemary; Dawson, Ian; Mason, James (১৯৯৬)। "The kingdoms in Britain & Ireland"The Young Oxford History of Britain & Irelandবিনামূল্যে নিবন্ধন প্রয়োজন। Walton St., Oxford: Oxford University Pressআইএসবিএন 019-910035-7 
  • Nares, Robert (১৮৫৯)। A Glossary; or Collection of Words, Phrases, Names and Allusions to Customs, Proverbs, etc., Which Have Been Thought to Require Illustration in the Works of English Authors, Particularly Shakespeare and His Contemporaries। London: John Russel Smith। 
  • Nelson, Janet (১৯৯৯)। Rulers and Ruling Families in Early Medieval Europe। Aldershot: Ashgate। আইএসবিএন 0-86078-802-4 
  • Nelson, Janet (২০০৩)। "Alfred's Carolingian Contemporaries"। Reuter, Timothy। Alfred the Great। Aldershot, UK: Ashgate। পৃষ্ঠা 293–310। আইএসবিএন 978-0-7546-0957-5 
  • Nelson, Janet (২০০৪)। "Æthelwulf (d. 858)"Oxford Dictionary of National Biography। Oxford University Press। ডিওআই:10.1093/ref:odnb/8921  (সাবস্ক্রিপশন বা যুক্তরাজ্যের গণগ্রন্থাগারের সদস্যপদ প্রয়োজন)
  • Peddie, John (১৯৮৯)। Alfred the Good Soldier। Bath, UK: Millstream Books। আইএসবিএন 978-0-948975-19-6 
  • Orosius, Paulus; Hampson, Robert Thomas (১৮৫৫)। A Literal Translation of King Alfred's Anglo-Saxon Version of the Compendious History of the World। Longman। পৃষ্ঠা 16 
  • Parker, Joanne (২০০৭)। 'England's Darling'। Manchester: Manchester University Press। আইএসবিএন 978-0-7190-7356-4 
  • Paul, Suzanne (২০১৫)। "Alfred the Great's Old English translation of Gregory the Great's Pastoral Care (MS Ii.2.4)"। Cambridge Digital Library। ৩ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Plummer, Charles (১৯১১)। "Alfred the Great"। চিসাম, হিউ। ব্রিটিশ বিশ্বকোষ01 (১১তম সংস্করণ)। কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি প্রেস। পৃষ্ঠা 582–584। [[বিষয়শ্রেণী:উইকিসংকলনের তথ্যসূত্রসহ ১৯১১ সালের এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা থেকে উইকিপিডিয়া নিবন্ধসমূহে উদ্ধৃতি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে]]
  • Pratt, David (২০০৭)। The political thought of King Alfred the Great। Cambridge Studies in Medieval Life and Thought: Fourth Series। 67। Cambridge University Press। আইএসবিএন 978-0-521-80350-2 
  • Preston, Richard A; Wise, Sydney F; Werner, Herman O (১৯৫৬)। Men in Arms: A History of Warfare and Its Interrelationships with Western Society। New York: Frederick A. Praeger। 
  • Ranft, Patricia (২০১২)। How the Doctrine of Incarnation Shaped Western Culture। Plymouth, England: Lexington Books। আইএসবিএন 978-0-7391-7432-6 
  • Savage, Anne (১৯৮৮)। Anglo-Saxon Chronicles। Papermac। পৃষ্ঠা 288। আইএসবিএন 0-333-48881-4 
  • Schepss, Dr. G. (১৮৯৫)। "Zu König Alfreds Boethius"। Archiv für das Studium der neueren Sprachenvxciv: 149–60। 
  • Sedgefield, W.J. (১৯০০)। King Alfred's version of the Consolations of Boethius। Oxford: Clarendon Press। 
  • Smyth, Alfred P. (১৯৯৫)। King Alfred the Great। Oxford: Oxford University Press। আইএসবিএন 0-19-822989-5 
  • Stenton, Frank M. (১৯৭১)। Anglo-Saxon England (3rd সংস্করণ)। Oxford: Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-280139-5 
  • Swanton, Michael, সম্পাদক (২০০০)। The Anglo-Saxon Chronicles। London, UK: Phoenix। আইএসবিএন 978-1-84212-003-3 
  • Tait, James (১৯৯৯)। The Medieval English Boroughবিনামূল্যে নিবন্ধন প্রয়োজন। Manchester: Manchester University Press। আইএসবিএন 0-7190-0339-3 
  • Townsend, Ian (৩ জানুয়ারি ২০০৮)। "Statue damage quiz man bailed"Wantage Herald। ২ জুলাই ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Welch, Martin (১৯৯২)। Anglo-Saxon England। London: English Heritage। আইএসবিএন 0-7134-6566-2 
  • Whitelock, Dorothy, সম্পাদক (১৯৯৬)। English historical documents. Volume 1, C. 500–1042 (2nd সংস্করণ)। Routledge। আইএসবিএন 978-0-203-43950-0 
  • Woodruff, Douglas (১৯৯৩)। The Life And Times of Alfred the Great। London, UK: Weidenfeld and Nicolson। আইএসবিএন 978-0-297-83194-5 
  • Wormald, Patrick (২০০১) [1999]। The Making of English Law: King Alfred to the Twelfth Century। পৃষ্ঠা 528। আইএসবিএন 978-0-631-22740-3 
  • Winchester Museums Service (৪ ডিসেম্বর ২০০৯)। "Summary of Hyde Community Archaeology Project (completed in 1999)"। Winchester Council। ১৩ জুলাই ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Wormald, Patrick (২০০৬)। "Alfred [Ælfred] (848/9–899)"Oxford Dictionary of National Biography। Oxford University Press। ডিওআই:10.1093/ref:odnb/183। ৭ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  (সাবস্ক্রিপশন বা যুক্তরাজ্যের গণগ্রন্থাগারের সদস্যপদ প্রয়োজন)
  • Yorke, Barbara (১৯৯০)। Kings and Kingdoms of Early Anglo-Saxon England। London, UK: Routledge। আইএসবিএন 978-0-415-16639-3 
  • Yorke, Barbara (১৯৯৫)। Wessex in the early Middle Ages। Leicester: Leicester University Press। আইএসবিএন 978-0-7185-1856-1 
  • Yorke, Barbara (১৯৯৯)। "Alfred the Great: The Most Perfect Man in History?"History Today। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  • Yorke, Barbara (২০০৪)। "Cerdic (fl. 6th cent."Oxford Dictionary of National Biography। Oxford University Press। ডিওআই:10.1093/ref:odnb/5003। ১৯ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  (সাবস্ক্রিপশন বা যুক্তরাজ্যের গণগ্রন্থাগারের সদস্যপদ প্রয়োজন)
  • Yorke, B.A.E. (২০০১)। "Alfred, king of Wessex (871–899)"। Lapidge, Michael; ও অন্যান্য। The Blackwell Encyclopaedia of Anglo-Saxon England। Blackwell Publishing। পৃষ্ঠা 27–28। আইএসবিএন 978-0-631-15565-2 

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Discenza, Nicole; Szarmach, Paul, সম্পাদকগণ (২০১৫)। A Companion to Alfred the Great। Leiden, Netherlands: Brill। আইএসবিএন 978-90-04-27484-6 
  • Fry, Fred (২০০৬)। Patterns of Power: The Military Campaigns of Alfred the Greatআইএসবিএন 978-1-905226-93-1 
  • Giles, J. A., সম্পাদক (১৮৫৮)। The Whole Works of King Alfred the Great (Jubilee in 3 vols সংস্করণ)। Oxford and Cambridge। 
  • Heathorn, Stephen (ডিসেম্বর ২০০২)। "The Highest Type of Englishman: Gender, War, and the Alfred the Great Commemoration of 1901"। Canadian Journal of History37 (3): 459–84। ডিওআই:10.3138/cjh.37.3.459অবাধে প্রবেশযোগ্যপিএমআইডি 20690214 
  • Irvine, Susan (২০০৬)। "Beginnings and Transitions: Old English"। Mugglestone, Lynda। The Oxford History of English। Oxford, UK: Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-954439-4 
  • Pollard, Justin (২০০৬)। Alfred the Great: the man who made Englandআইএসবিএন 0-7195-6666-5 
  • Reuter, Timothy, সম্পাদক (২০০৩)। Alfred the Great। Studies in early medieval Britain। আইএসবিএন 978-0-7546-0957-5 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

মহামতি অ্যালফ্রেড
[হাউজ অফ ওয়েসেক্স]]
জন্ম: ৮৪৭–৮৪৯ মৃত্যু: ২৬ অক্টোবর ৮৯৯
রাজত্বকাল শিরোনাম
পূর্বসূরী
এথেলরেড
ব্রেটওয়াল্ডা
৮৭১–৮৯৯
শেষ পদাধিকারী
পশ্চিম স্যাক্সনদের রাজা
৮৭১–আনু. ৮৮৬
অ্যাংলো-স্যাক্সনদের রাজা হয়েছিলেন
নতুন পদবী অ্যাংলো-স্যাক্সনদের রাজা
আনু. ৮৮৬–৮৯৯
উত্তরসূরী
এডওয়ার্ড দি এল্ডার

টেমপ্লেট:Wessex monarchs টেমপ্লেট:Viking Invasion of England টেমপ্লেট:Old English prose