মসজিদে তোবা

স্থানাঙ্ক: ২৪°৫১′৩৬″ উত্তর ৬৭°০′৩৬″ পূর্ব / ২৪.৮৬০০০° উত্তর ৬৭.০১০০০° পূর্ব / 24.86000; 67.01000
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তোবা মসজিদ
مسجد طوبٰی
PK Karachi asv2020-02 img57 Tooba Mosque.jpg
তোবা মসজিদ
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিইসলাম
জেলাকরাচী
প্রদেশসিন্ধু
অবস্থাসক্রিয়
অবস্থান
অবস্থানডিএইচএ, করাচী, সিন্ধু
দেশ পাকিস্তান
মসজিদে তোবা পাকিস্তান-এ অবস্থিত
মসজিদে তোবা
পাকিস্তানের মানচিত্রে অবস্থান
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক২৪°৫১′৩৬″ উত্তর ৬৭°০′৩৬″ পূর্ব / ২৪.৮৬০০০° উত্তর ৬৭.০১০০০° পূর্ব / 24.86000; 67.01000
স্থাপত্য
স্থপতিবাবর হামিদ চৌহান, জহির হায়দার নকভি
ধরনমসজিদ
প্রতিষ্ঠার তারিখ১৯৬৯
নির্দিষ্টকরণ
ধারণ ক্ষমতা৫,০০০
গম্বুজসমূহ
গম্বুজের ব্যাস (বাহিরে)৬৫ মিটার (২১৩ ফু)
মিনারসমূহ
মিনারের উচ্চতা৩৭ মিটার (১২১ ফু)
উপাদানসমূহসাদা মার্বেল এবং আয়নার খন্ড খচিত রঙিন স্ফটিক

মসজিদে তোবা বা তোবা মসজিদ (উর্দু: مسجد طوبٰی‎‎) গোল মসজিদ নামেও পরিচিত,[১][২] পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের করাচী শহরের একটি মসজিদ। এটি করাচীর ডিএইচএ (প্রতিরক্ষা আবাসন কর্তৃপক্ষ) এর দ্বিতীয় পর্যায়ে অবস্থিত।[২][৩]

মসজিদটির নির্মাণকাজ ১৯৬৬ সালে শুরু হয় এবং ১৯৬৯ সালে শেষ হয়। মসজিদটির নকশা করেন পাকিস্তানি স্থপতি বাবর হামিদ চৌহান এবং প্রকৌশলী ছিলেন জহির হায়দার নকভি। এই মসজিদটিতে ৫,০০০ লোকের স্থান সংকুলান হয়।[২][৩]

মসজিদটির অনন্য বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

  • মসজিদটির কেন্দ্রীয় প্রার্থনা হলটিতে কোন স্তম্ভ নেই বলে একে বিশ্বের বৃহত্তম একক গম্বুজ বিশিষ্ট মসজিদ হিসেবে দাবি করা হয়। এর বিশাল গম্বুজটি আশেপাশের নিচু প্রাচীরের উপর রক্ষিত।[১][২]
  • ২০১৮ সালের হিসেবে বিশ্বের ১৮ তম বৃহত্তম মসজিদ।[১]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Hasan, Shazia (২০১৮-০৬-০৩)। "Minarets, alcoves, domes and devotion"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-১২ 
  2. "9 most beautiful mosques in Pakistan (Masjid-e-Tooba, Karachi ranked no. 9 on this list)"The Express Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-১১-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-১২ 
  3. "Masjid-e-Tooba – All You Need To Know!"DHA Today (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১২-০৮-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]