মরিৎজ ব্যালথেসার বোর্খাউসেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মরিৎজ ব্যালথেসার বোর্খাউসেন (জার্মান: Moritz Balthasar Borkhausen; ৩ ডিসেম্বর ১৭৬০, গিসেন - ৩০ নভেম্বর ১৮০৬, ডার্মস্ট্যাড) ছিলেন একজন জার্মান প্রকৃতিবিদ এবং বনবিদ। তিনি গিসেনে শিক্ষা গ্রহণ করেন এবং ১৭৯৬ সালে ডার্মস্ট্যাডের বন অফিসে মূল্যনির্ণায়ক হিসাবে কাজ শুরু করেন।[১]

জীবনী[সম্পাদনা]

মরিৎজ ব্যালথেসার বোর্খাউসেন ছিলেন ফরাসি ক্যপ্টেন হারমান জোহান ফন বোর্খাউসনের ছেলে। হারমান জোহান ফন বোর্খাউসন রাজকীয় ফরাসী রেজিমেন্ট নাসাও-সারব্রেকেনে কাজ করতেন। জিসেনের কাছে এক যুদ্ধে তিনি আহত হন ও পরে মারা যান। সন্তান জন্মের কয়েক মাস আগে পিতা মারা যাওয়ায় মা জাস্টিন ইলেওনোরাকে একাই ছেলের ভরপোষণ করতে হয়।

বোর্খাউসেন লাতিন ভাষাতে শিক্ষা পান। তিনি প্যাডোগোগিয়ামে অংশ নেন এবং ১৭ বছর বয়সে গিজেন বিশ্ববিদ্যালয়ে আইনশাস্ত্র এবং ক্যামেরালিয়া সম্পর্কিত অধ্যয়ন শুরু করে। একই সাথে তিনি ইতিহাস এবং বিশেষত প্রাকৃতিক বিজ্ঞানের বিষয়েও আগ্রহী ছিলেন। তিনি উদ্ভিদ্বিদ্যাসংক্রান্ত রচনাগুলি পড়তে শুরু করেন এবং নিজের উদ্ভিদ সংগ্রহ এবং পতঙ্গ বিষয়ক সংগ্রহশালা তৈরি করতে শুরু করেন। তিনি কার্ল লিনিয়াস এবং জন জেমস ডিলিমাসকে আদর্শ হিসেবে গ্রহণ করেন।

১৭৮১ সালে স্নাতক করার পরে, তিনি গ্ল্যাডেনবাচের আমটম্যান ক্রেবসের বাড়িতে গৃহশিক্ষকের দায়িত্ব নেন। গ্ল্যাডেনবাচে তিনি চার বছর অতিবাহিত করেন, এই সময়ে চিকিত্সক অগস্ট ফ্রেড্রিখ অ্যাড্রিয়ান ডিলের সাথে তার বন্ধুত্ব গড়ে উঠে, যিনি নিবিড়ভাবে পমোলজি (ফলগাছ চাষবাদ সম্বন্ধীয় বিদ্যা) গবেষণায় জড়িত ছিলেন। এছাড়াও তিনি বনবিজ্ঞানী জর্জ লুডভিগ হার্টিগের (Georg Ludwig Hartig) পিতা ফোর্স্টমিস্টার আর্নস্ট ফ্রেডরিখ হার্টিগের (১৭৭৩-১৮৪৩) সাথে নিবিড় যোগাযোগ বজায় রেখেছিলেন, যিনি তাকে বনজ শিক্ষা অধ্যয়নের জন্য অনুপ্রাণিত করেছিল।

১৭৮৫ সালে আমটম্যান ক্রেবসের ছেলে পড়াশোনা করতে অন্যত্র চলে যাওয়ার পরে, বোর্খাউসেন তাঁর প্রাক্তন অধ্যাপক লুডভিগ হ্যাপফোনারের শিক্ষকের পদে চলে আসেন, লুডভিগ হ্যাপফোনারকে ১৭৮১ সালে ডারমস্টাড্টে স্থানান্তর করা হয়েছিল। বোর্খাউসেন সেখানে প্রাথমিকভাবে উত্তরবিচারকারী ছিলেন, পরে গোপন ট্রাইব্যুনাল পরিষদের সদস্য হন। একই সঙ্গে তিনি আইনী কাজের সাথেও জড়িত হন। অবসর সময়ে, তিনি তাঁর বৈজ্ঞানিক সংগ্রহ এবং অধ্যয়নের প্রসারে নিজেকে নিয়োজিত করেন।

বোর্খাউসেন অবশেষে নিজেকে বৈজ্ঞানিক গবেষণায় নিবেদিত করার সিদ্ধান্ত নেন। তিনি তাঁর মাকে নিয়ে ডার্মস্ট্যাড্টের কাছে আরহিলিগেনে (Arheiligen) চলে আসেন। এখানে কার্ল লুডভিগ গটলিব স্ক্রিবা (Ludwig Gottlieb Scriba) নামে এক প্রোটেস্ট্যান্ট যাজক ছিলেন, যিনি একজন প্রকৃতিবিদ এবং কীটতত্ত্ববিদ হিসাবে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। স্ক্রিবার একটি পতঙ্গ বিষয়ক সংগ্রহশালা এবং একটি বিস্তৃত গ্রন্থাগার ছিল, যা তিনি পড়াশোনার জন্য বোর্খাউসেনকে দিয়ে দেন।

প্রাকৃতিক বিজ্ঞানে কৃতিত্বের কারণে, এরলাঞ্জেন বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন অনুষদ তাকে ২০ ফেব্রুয়ারি ১৭৯৩ ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করে। প্রদেশের লর্ড সমন জারির করে তাঁকে ২০ এপ্রিল ১৭৯৩ সালে ল্যান্ডউয়ার্সচাফ্টস-ডেপুটেশন ডার্মস্ট্যাড্টে (Landwirtschafts-Deputation Darmstadt) এ মূল্যায়নকারী হিসাবে নিয়োগ করেন। তাঁর প্রধান কাজ ছিল হেসির প্রাকৃতিক ইতিহাস নিয়ে লেখা।

২০ মে, ১৭৯৬ সালে তিনি ওবারফোরস্ট্যাম্ট ডার্মস্ট্যাড্টে (Oberforstamt Darmstadt) এ মূল্যনির্ণায়ক হিসাবে কাজ শুরু করেন। ২ ফেব্রুয়ারী ১৮০০ সালে তাঁকে কামের্রাথস উপাধিতে এবং ১৮০৪ সালে তাঁকে ওবারফোরস্টকোলিজিয়ামের (Oberforsthaus Collegium) পরামর্শদাতা হিসেবে ভূষিত করা হয়।[২]

মরিৎজ ব্যালথেসার বোর্খাউসেন ২০ অক্টোবর ১৭৯৮ সালে গিয়াসেনের বন প্রশাসক এবং প্রধান বনজ কর্মকর্তা জর্জ আলেকজান্ডার ফ্যাব্রিকিয়াসের বড় মেয়ে অ্যামালি ফিলিপাইন অ্যান্ড্রেটা ফ্যাব্রিকিয়াস (Amalie Philippine Andreatta Fabricius) কে বিয়ে করেন। তাঁদের চার সন্তান হয়। যার মধ্যে এক কন্যা তার জন্মের বছরে মারা যায় এবং এক পুত্র এগারো বছর বয়সে মারা যায়। আর একজন বোর্খাউসেনের মৃত্যুর দশ দিন পরে জন্মগ্রহণ করে।

মরিৎজ ব্যালথেসার বোর্খাউসেন, তার কনিষ্ঠ কন্যা হেনরিয়েট আর্নেস্টিনা অ্যাডেলহিডের জন্মের দশ দিন আগে, মারাত্মক রক্তক্ষরণের কারণে ৩০ নভেম্বর ১৮০৬ সালে ডার্মস্ট্যাডে মারা যান।

তাঁর বিধবা স্ত্রী তাঁর মৃত্যুর তিন বছর পরে গ্রন্থাগারবিদ এবং উদ্ভিদবিদ জোহানেস হেসকে (১৭৮৬-১৭৩৭) বিয়ে করেছিলেন। জোহানেস হেস উদ্ভিদ্বিদ্যা অধ্যয়নে বোর্খাউসেনের বিস্তৃত হার্বেরিয়াম (শুষ্ক ঔষধির সংগ্রহ বা নমুনা রাখিবার বাক্স) দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন।

১৯৪৪ সালে ডারমস্ট্যাডে বোমা হামলার কারণে বোর্খাউসনের হার্বেরিয়াম ধ্বংস হয়ে যায়।

কাজসমূহ[সম্পাদনা]

তিনি বেশকিছু উল্লেখযোগ্য বই লিখেছেন।

  • Naturgeschichte der europäischen Schmetterlinge (ইউরোপীয় লেপিডোপেটেরার প্রাকৃতিক ইতিহাস) (১৭৮৮-৯১)।
  • Versuch einer Erklärung der zoologischen Terminologie (প্রাণিবিদ্যার পরিভাষার ব্যাখ্যা) (১৭৯০)।
  • Versuch einer forstbotanischen Beschreibung der in Hessen-Darmstädter Landen im Freien wachsenden Holzarten (হেসি-ডারমস্টাডেটে বর্ধমান কাষ্ঠময় গাছের বর্ণনা) (১৭৯০)।
  • Tentamen dispositionis plantarum Germaniae seminiferarum secundum new fact methodum A staminum situ proportione, (১৭৯২)।
  • বোর্খাউসেন, মরিৎজ ব্যালথেসার (১৭৯৭)। Botanisches Wörterbuch oder Versuch einer Erklärung der vornehmsten Begriffe und Kunstwörter in der Botanik, 2 Volumes। গিসেন: জর্জি ফ্রেডরিখ হায়ার। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৫  (উদ্ভিদ্বিদ্যাসংক্রান্ত অভিধান)
  • Theoretisch-praktisches Handbuch der Forstbotanik und Forsttechnologie (বন প্রযুক্তির ম্যানুয়াল) (১৮০০-১৮০৩)।
  • Deutsche Ornithologie oder Naturgeschichte aller Vögel Deutschlands (জার্মান পাখির প্রাকৃতিক ইতিহাস) (১৮১০)।[২]

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

  • রবার্ট জান্ডার; ফ্রিটজ এন্কে, গুন্থার বুখাইম, সিগমুন্ড সায়বোল্ড (Hrsg.): Handwörterbuch der Pflanzennamen. ১৩. আউফ্লেজ। আলমার ভার্লাগ, স্টুটগার্ট ১৯৮৪, আইএসবিএন ৩-৮০০১-৫০৪২-৫.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Borkhausen; Lichthammer (১৮০০)। Teutsche Ornithologie oder Naturgeschichte aller Vögel Teutschlands in naturgetreuen Abbildungen und Beschreibungen (জার্মান ভাষায়)। im Verlage der Herausgeber। 
  2. Borkhausen | eLexikon : Meyers Konversations-Lexikon, ১৮৮৮; Verlag des Bibliographischen Instituts, Leipzig und Wien, ৪র্থ সংস্করণ, ১৮৮৫-১৮৯২; খণ্ড ৩, পৃ. ২২১ (পিডিএফ) (জার্মান)