মনসুর খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
মনসুর খান
বাসস্থান তামিলনাড়ু, ভারত
পেশা চলচ্চিত্র প্রযোজক, পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার
পিতা-মাতা নাসির হোসেন
আত্মীয়

আমির খান (মামা)
ইমরান খান (অভিনেতা) (ভাগ্নে)

তিনা (স্ত্রী)
জায়ান (কন্যা)
পাবলো (ছেলে)

মনসুর খান ইংরেজি: Mansoor Khan) হলেন একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা। এছাড়াও তিনি চলচ্চিত্র নির্মাতা নাসির হুসেন এর পুত্র নামেও পরিচিত।[১][২]

ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

তার চলচ্চিত্রে পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটে কেয়ামত সে কেয়ামত তাক (১৯৮৮) এর মাধ্যমে। চলচ্চিত্রটি শুরু করেন তার চাচাত ভাই বিখ্যাত অভিনেতা আমির খান কে নিয়ে। চলচ্চিত্রটি একটি রোমিও জুলিয়েট-অনুপ্রাণিত রোমান্টিক ধাচের কাহিনী যেটি একটি বিশাল সাফল্য এনে দেয়। কর্ম ভিত্তিক ছায়াছবি দ্বারা প্রভাবিত এক দশকের শেষের দিকে মনসুর খানের পরিচালনাসংক্রান্ত বলিউডের আত্মপ্রকাশ মধ্যে বাদ্যযন্ত্র রোমান্টিক জুটিতে পরিণত হয়। ছবিতে অনেক নতুন মুখের জন্ম নেয় এবং এই ছবির মাধ্যমে তারা বলিউডে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হন। যেমন- নায়ক-নায়িকা হিসেবে আমির খানজুহি চাওলা এবং সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে উদিত নারায়ণ, অলকা ইয়াগনিক। এছাড়াও সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে আনান্দ মিলান্দের অভিষেক ঘটে।

তিনি চার বছর পরে এই সাফল্য সঙ্গে অনুসরণ করে নির্মাণ করেন জো জিতা ওহি সিকান্দার (১৯৯২)। মনসুর খানের অপর দুই চলচ্চিত্র আকেলে হাম আকেলে তুম (১৯৯৫) এবং জোশ (২০০০) ছিল ব্যাবসায়িক দিক থেকে সফল। উভয় সিনেমাতে, প্রায় একই অভিন্ন চিত্রনাট্য লক্ষ্য করা যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]