ভ্লাদিমির পেতকোভিচ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভ্লাদিমির পেতকোভিচ
Ser-Swi (8) (cropped).jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম ভ্লাদিমির পেতকোভিচ
জন্ম (1963-08-15) ১৫ আগস্ট ১৯৬৩ (বয়স ৫৮)
জন্ম স্থান সারায়েভো, বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা,
যুগোস্লাভিয়া
উচ্চতা ১.৯০ মিটার (৬ ফুট ৩ ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান মধ্যমাঠের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব
সুইজারল্যান্ড (ম্যানেজার)
যুব পর্যায়
0000–১৯৭৮ ইগমান ইলিজা
১৯৭৮–১৯৮১ সারায়েভো
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
১৯৮১–১৯৮৪ সারায়েভো (০)
১৯৮৪–১৯৮৫ রুদার প্রিয়েদোর ১৫ (৭)
১৯৮৫ সারায়েভো (০)
১৯৮৫–১৯৮৬ কোপের ১৪ (৪)
১৯৮৬–১৯৮৭ সারায়েভো ১৭ (৩)
১৯৮৭–১৯৮৮ কুর ৯৭
১৯৮৮–১৯৮৯ সিয়ন (০)
১৯৮৯–১৯৯০ মার্তিনি-স্পোর্টস ৩১ (৮)
১৯৯০–১৯৯৩ কুর ৯৭ ৮৭ (১৯)
১৯৯৩–১৯৯৬ বেল্লিনৎসোনা ৬৩ (৮)
১৯৯৬–১৯৯৭ লোকার্নো ৩২ (৩)
১৯৯৭–১৯৯৮ বেল্লিনৎসোনা
১৯৯৮–১৯৯৯ বুয়োখস
মোট ২৭৫ (৫২)
পরিচালিত দল
১৯৯৭–১৯৯৮ বেল্লিনৎসোনা
১৯৯৯–২০০৪ মালকান্তোনে আগনো
২০০৪–২০০৫ লুগানো
২০০৫–২০০৮ বেল্লিনৎসোনা
২০০৮–২০১১ ইয়াং বয়েজ
২০১১–২০১২ সামসুনস্পোর
২০১২ সিয়ন
২০১২–২০১৪ লাৎসিয়ো
২০১৪– সুইজারল্যান্ড
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে

ভ্লাদিমির পেতকোভিচ (বসনীয়: Vladimir Petković, বসনীয় উচ্চারণ: [ʋlǎdimiːr pêtkoʋit͡ɕ]; জন্ম: ১৫ আগস্ট ১৯৬৩) হলেন একজন সুইজারল্যান্ডীয় সাবেক পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড় এবং ম্যানেজার। তিনি সুইজারল্যান্ড জাতীয় দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন। পেতকোভিচ তার খেলোয়াড়ি জীবনের অধিকাংশ সময় কুর ৯৭ এবং বেল্লিনৎসোনার হয়ে মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছেন। তিনি মূলত আক্রমণাত্মক মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেললেও মাঝেমধ্যে কেন্দ্রীয় মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছেন।

বসনীয় ফুটবল ক্লাব ইগমান ইলিজার যুব পর্যায়ের হয়ে খেলার মাধ্যমে পেতকোভিচ ফুটবল জগতে প্রবেশ করেছিলেন এবং পরবর্তীকালে সারায়েভোর যুব দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি ফুটবল খেলায় বিকশিত হয়েছিলেন। ১৯৮১–৮২ মৌসুমে, বসনীয় ক্লাব সারায়েভোর হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি তার জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করেছিলেন, যেখানে তিনি ৩ মৌসুম অতিবাহিত করেছিলেন; সারায়েভোর হয়ে তিনি ৮ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছিলেন। অতঃপর ১৯৮৪–৮৫ মৌসুমে তিনি রুদার প্রিয়েদোরে যোগদান করেছিলেন। রুদার প্রিয়েদোরে মাত্র ১ মৌসুম অতিবাহিত করার পর পুনরায় সারায়েভোর সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন, যেখানে তিনি ২ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছিলেন। পরবর্তীকালে, তিনি কোপের, সারায়েভো, কুর ৯৭, সিয়ন, মার্তিনি-স্পোর্টস, বেল্লিনৎসোনা এবং লোকার্নোর হয়ে খেলেছিলেন। সর্বশেষ ১৯৯৮–৯৯ মৌসুমে, তিনি বেল্লিনৎসোনা হতে সুইজারল্যান্ডীয় ক্লাব বুয়োখসে যোগদান করেছিলেন; বুয়োখসের হয়ে মাত্র ১ মৌসুম খেলার পর তিনি অবসর গ্রহণ করেছিলেন।

খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি টানার পর ১৯৯৭ সালে, পেতকোভিচ ইতালীয় ফুটবল ক্লাব বেল্লিনৎসোনার ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করার মাধ্যমে ম্যানেজার হিসেবে ফুটবল জগতে অভিষেক করেন। বেল্লিনৎসোনার হয়ে মাত্র ১ মৌসুম ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করার পর তিনি সুইস সুপার লীগের ক্লাব মালকান্তোনে আগনোয় ম্যানেজার হিসেবে যোগদান করেন; মালকান্তোনে আগনোর হয়ে তিনি ১টি লীগ শিরোপা জয়লাভ করেছেন। ২০০৪–০৫ মৌসুমে, তিনি লুগানোর ম্যানেজারের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি পুনরায় বেল্লিনৎসোনার হয়ে ৩ মৌসুম ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করার পর [বিএসসি ইয়াং বয়েজ|ইয়াং বয়েজে]] যোগদান করেন, ইয়াং বয়েজের হয়েই ম্যানেজার হিসেবে তিনি সেরা সময় অতিবাহিত করেছেন, যেখানে তিনি প্রায় ৬০ শতাংশ ম্যাচ জয়লাভ করেছেন। পরবর্তীতে তিনি সামসুনস্পোর, সিয়ন এবং লাৎসিয়োর ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৪ সালের ১লা জুলাই তারিখে অটমার হিৎসফেল্ড বরখাস্ত হওয়ার পর, তিনি সুইজারল্যান্ড জাতীয় দলের ম্যানেজারের পদে নিযুক্ত হয়েছেন।

দলগতভাবে, খেলোয়াড় হিসেবে পেতকোভিচ সর্বমোট ১টি শিরোপা জয়লাভ করেছিলেন, যা তিনি সারায়েভোর হয়ে জয়লাভ করেছিলেন। অন্যদিকে, ম্যানেজার হিসেবে, এপর্যন্ত ২টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন, যার একটি মালকান্তোনে আগনোর হয়ে এবং অন্যটি লাৎসিয়োর হয়ে জয়লাভ করেছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ভ্লাদিমির পেতকোভিচ ১৯৬৩ সালের ১৫ই আগস্ট তারিখে যুগোস্লাভিয়ার বসনিয়া ও হার্জেগোভিনার সারায়েভোয় জন্মগ্রহণ করেছেন। তিনি তার জন্মের পর ভ্রেলো বসনেতে বসবাস করলেও মাত্র পাঁচ বছর বয়সে তিনি তার পরিবারের সাথে সারায়েভোর কাছে হাজিচিতে স্থানান্তরিত হন এবং সেখানেই তার শৈশব অতিবাহিত করেছেন।[১] তিনি জন্মগতভাবে সুইজারল্যান্ডের নাগরিক[২][৩][৪][৫] এবং সুইজারল্যান্ডীয় ও ক্রোয়েশীয় পাসপোর্ট ধারণ করেন।[৬]তার বাবা-মা দুজনেই শিক্ষাকর্মী হিসেবে কাজ করতেন, যার ফলে তার পরিবারের বিভিন্ন স্থানে স্থানান্তরের কারণে তাকে বেশ কয়েকটি বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে হয়েছে।[১]

দাতব্য কর্মকাণ্ড[সম্পাদনা]

সুইজারল্যান্ডে বসবাসকালে পেতকোভিচ পাঁচ বছর ধরে ক্যাথলিক ত্রাণ উন্নয়ন ও সমাজ সেবা সংস্থা টিসিনোর কারিতাস ইন্টারন্যাশনালিসের হয়ে কাজ করেছেন।[৭][৮][৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mourinho sa Ilidže" 
  2. "The official website for European football"UEFA.com। Union of European Football Associations। ৬ জানুয়ারি ২০১৩। 
  3. Tagesanzeiger.ch: «Die Berner denken zu oft ans Verlieren»:Ich bin Schweizer und bosnischer Kroate aus Sarajevo.
  4. "Trainersteckbrief Vladimir Petkovic, Schweiz" 
  5. Ilmessaggero.it: Petkovic, in testa solo la Lazio Il tecnico ha lasciato la famiglia in Svizzera per evitare ogni distrazione: In realtà, per non rimanere tanto lontani al famoso film dove ci sono due mostri sacri come De Sica e la Lollo (Pane, amore e fantasia ndc), a lui molto caro secondo alcuni amici, in questo uomo croato tutto d’un pezzo c’è tanta fantasia e soprattutto tantissimo amore per la sua famiglia., archived: https://web.archive.org/web/20121023213332/http://www.ilmessaggero.it/sport/sslazio/petkovic_in_testa_solo_la_lazio_il_tecnico_ha_lasciato_la_famiglia_in_svizzera_per_evitare_ogni_distrazione/notizie/219395.shtml
  6. Petkovic wird neuer Sion-Trainer! ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৮ জুন ২০১২ তারিখে: Mit YB wurde der Staatsbürger von Kroatien und der Schweiz zweimal Vize-Meister und verlor 2009 mit den Bernern den Cupfinal - gegen Sion.
  7. Caritas-ticino.ch: Auguri a Vladimir Petkovic
  8. expert, James Horncastle Italian football। "Tottenham and Lazio united by fondness for former star Gazza" 
  9. "Hrvatski sport u Svicarskoj"। ৩ জানুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]