ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস
Vespula flaviceps.jpg
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: Arthropoda
শ্রেণী: Insecta
বর্গ: Hymenoptera
পরিবার: Vespidae
গণ: Vespula
প্রজাতি: V. flaviceps
দ্বিপদী নাম
Vespula flaviceps
স্মিথ, ১৮৭০

ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস (ইংরেজি: Vespula flaviceps) হচ্ছে ভেসপুলা গণভুক্ত বোলতার একটি প্রজাতি। পূর্ব এশিয়া ও জাপানে মূলত এটি দেখতে পাওয়া যায়। এক গবেষণায় দেখা গেছে, এই প্রজাতির স্ত্রী বোলতা একই সাথে অনেক পুরুষ বোলতার সাথে মিলিত হতে পারে, এবং একইসাথে সবার শুক্রাণু ব্যবহারও করতে পরে। যদিও এখন পর্যন্ত এরকমটি হবার কারণ সঠিকভাবে বোঝা সম্ভব হয়নি।[১]

শ্রেণীবিন্যাস[সম্পাদনা]

সমার্থক নাম[সম্পাদনা]

ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস-এর দ্বিপদ নাম একাধিক। এ ধরনের কতোগুলো নামের তালিকা নিম্নে দেওয়া হলো:[২]

  • Vespula gracilia
  • Vespa saussurei
  • Vespa quadrimaculata
  • Vespula pionganensis
  • Vespa japonica
  • Vespa karenkona
  • Vespa lewisii
  • Vespa flavior

উপপ্রজাতি[সম্পাদনা]

ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস-এর উপপ্রজাতির সংখ্যা দুই। এগুলো হচ্ছে:

  • V. f. flaviceps
  • V. f. lewisii

খাদ্য হিসেবে[সম্পাদনা]

ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস-এর বাসস্থান, লার্ভা ও পিউপি দেখা যাচ্ছে।

ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস মধ্য জাপানের একটি জনপ্রিয় খাদ্য। সকল অবস্থাতেই এটি মানুষ গ্রহণ করলেও, মূলত এর লার্ভাকে সবচেয়ে সুস্বাদু ধরা হয়।[৩] ছোট বাসস্থানগুলোতে কৃত্রিম চাক সংগ্রহ করে খাদ্য হিসেবে তা চাষ করার জন্যে ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস লালন-পালন করা হয়।[৪] এই চাকগুলো শীতকালে মানুষের কাছে বসতি স্থাপন করে, যাতে শুধু মানুষের উপকার নয়, বরং বোলতারও উপকার হয়। ঠাণ্ডা থেকে বাঁচার ফলে তাদের পরিবেশে টিকে থাকার সম্ভাবনাও বাড়ে।[৪]

জাপানের কিছু স্থানে এই পতঙ্গটিকে ভাতের সাথে খাওয়া হয়।[৩] চুবু এলাকায় লার্ভার সাথে ভাতের এই মিশ্রণ খুবই সুস্বাদু একটি খাবার হিসেবে বিবেচিত। এই খাবার মূলত বিশেষ বিশেষ উৎসবগুলোতে রান্না করা হয়, যেমন: বসন্তকালীন উৎসব।[৩] ভেসপুলা ফ্লাভিসেপস রান্না বা ভাজি করে খাওয়া যেতে পারে। লার্ভা ও পিউপি সচারচর বাসা থেকে এনে সয়া সস, চিনি, এবং অন্যান্য কৃত্রিম মশলায় মাখিয়ে রান্না করা হয়।[৩] সাম্প্রতিককালে, এই প্রজাতির সংখ্যা জাপানে কমে যাওয়ায়, কোরিয়া থেকে এটি আমদানী করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Foster, Kevin R.; Francis L.W. Ratnieks (২০০১)। "Paternity, reproduction, and conflict in vespine wasps: A model system for testing kin selection predictions"। Springer-Verlag। সংগৃহীত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০  |coauthors= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য)
  2. "Species: Vespula flaviceps (Smith, 1870)"Global Biodiversity Information Facility। ২০০০। সংগৃহীত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  3. Makoto, Matsuura (১৯৯৯)। "The History and Present Situation of Insect Foods in Japan : Focusing on Wasp and Hornet Broods (Abstract)"Bulletin of the Faculty of Bioresources। Mie University। সংগৃহীত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  4. Toms, Rob; Kenichi Nonaka (২০০৫)। "Sustainable Harvesting in Japan"Harvesting of insects in South Africa and Japan- Indigenous Knowledge in the Classroom। Merck Education। সংগৃহীত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০  |coauthors= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]