ভেরনিকা মারচেনকো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০০৯ সালে ভেরনিকা মারচেনকো সেক্রেটারি অব স্টেট হিলারি ক্লিনটন এবং ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামার সাথে।

ভেরনিকা মারচেনকো একজন রাশিয়ান কর্মী।[১] ২০০৮ সালে তিনি এনজিও মাদার্স রাইট ফাউন্ডেশনের প্রধান ছিলেন,যা তিনি ১৯৮৮ সালে একজন ছাত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

জীবন[সম্পাদনা]

মাদার্স রাইট ফাউন্ডেশন অমানবিক অবস্থার মুখোমুখি হওয়া ব্যক্তিদের বিষয়গুলির উপর কাজ করে, যেগুলি রাশিয়ান স্বেচ্ছাসেবকগণের মৃত্যু ঘটায়।[২] পাশাপাশি মৃতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে এবং সেই সকল মৃত্যৃতে যারা দোষী তাদের শাস্তি প্রদান করতে সহায়তা করে। [১][৩][৪] গুন্ডামি বন্ধ করার জন্যেও কাজ করে।[৩] এই এনজিও প্রধানত বিদেশী অনুদানের অর্থায়ন দ্বারা পরিচালিত হয়।[৪][৫]

মারচেনকো "ইউনস্ট" এর জার্নালেও কাজ করেছেন।[৬] ১৯৮৬ সালে তিনি সোভিয়েত সেন্ট্রাল টিভি দ্বারা সম্প্রচারিত "১২ তম স্টোরি" প্রদর্শনীতে ছিলেন এবং তিনি আন্তর্জাতিক যুব আন্দোলন "নেক্সট স্টপ সোভিয়েত" তে (১৯৮৭-১৯৯০) ছিলেন।[৬] ১৯৯৮ সালের নভেম্বর মাসে তাকে পাবলিক রেকগনিশন প্রাইজ পুরস্কার দেয়া হয় এবং ২০০২ সালের ডিসেম্বর মাসে রাশিয়ায় ওপেন সোসাইটি ইনস্টিটিউট তাকে নিঃস্বার্থ কাজের জন্য পুরস্কার প্রদান করেন।[৬] ২০০৯ সালে তিনি আন্তর্জাতিক সাহসী নারী পুরস্কার পেয়েছেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. The Secretary of State's 2009 International Women of Courage Awards
  2. Anne White (৫ এপ্রিল ১৯৯৯)। Democratization in Russia under Gorbachev, 1985–91: The Birth of a Voluntary Sector। Palgrave Macmillan UK। পৃষ্ঠা 103–। আইএসবিএন 978-1-349-27372-0 
  3. Veronika Marchenko: "We are Ready for a Long Fight in Order To Make the Law Prevail" | DipNote
  4. "Veronika Marchenko, head of a Russian NGO protecting the rights"। ৪ জুলাই ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০১৮ 
  5. The Mothers' Right foundation: Russian soldiers' mothers turn grief into action - Telegraph
  6. "Veronika Marchenko - Rights in Russia"। ১৭ জুলাই ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০১৮