ভূমি পেড়নেকর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ভূমি পেড়নেকর
Bhumi Pednekar promoting Sonchiriya.jpg
২০১৯ সালে ভূমি পেড়নেকর
স্থানীয় নাম
भूमि पेडनेकर
জন্ম (1989-07-28) ২৮ জুলাই ১৯৮৯ (বয়স ২৯)
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল২০১৫-বর্তমান

ভূমি পেড়নেকর (হিন্দি: भूमि पेडनेकर; জন্ম: ১৮ জুলাই ১৯৮৯) হলেন একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। ছয় বছর যশ রাজ ফিল্মসের সহকারী কাস্টিং পরিচালক হিসেবে কাজ করার পর, এই কোম্পানির প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক দম লগা কে হইশা (২০১৫) চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার বড় পর্দায় অভিষেক হয়। এই ছবিতে তার কাজ সমাদৃত হয় এবং তিনি শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করেন।

পেড়নেকর ২০১৭ সালে টয়লেট: এক প্রেম কথাশুভ মঙ্গল সাবধান ছবিতে একঘুঁয়ে নারী চরিত্রে অভিনয় করে প্রসিদ্ধি লাভ করেন। শুভ মঙ্গল সাবধান ছবিতে তার কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

পেডনেকর মুম্বইয়ের জুহুর আর্য বিদ্যা মন্দিরে পড়াশুনা করেন। অভিনয়ে আসার পূর্বে তিনি ছয় বছর যশ রাজ ফিল্মসের শানু শর্মার সাথে সহকারী কাস্টিং পরিচালক হিসেবে কাজ করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

যশ রাজ ফিল্মসের সাথে পেড়নেকরের তিনটি চলচ্চিত্রের চুক্তি হয়। ২০১৫ সালে দম লগা কে হইশা চলচ্চিত্র দিয়ে তার বলিউডে অভিষেক হয়। আয়ুষ্মান খুরানার বিপরীতে অভিনয় করা এই চলচ্চিত্রে তাকে স্থুলকায় তরুণী সন্ধ্যা ভার্মা চরিত্রে দেখা যায়। ডেইলি নিউ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস-এর এক প্রতিবেদনে তিনি বলেন অতিরিক্ত স্থুলকায় হওয়া সত্ত্বেও এই চলচ্চিত্রে কাজের জন্য শুটিং শুরুর পূর্বে তিনি আরও ১২ কেজি ওজন বাড়ান। চলচ্চিত্রের চিত্রায়ন শেষ হওয়ার পূর্বে তিনি ওজন কমাতে থাকেন এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি সেইসব পদ্ধতি ও প্রক্রিয়া শেয়ার করেন। চলচ্চিত্রটি মুক্তির পূর্বেই তিনি অনেকাংশে তার ওজন কমিয়ে ফেলেন। ছবিটি মুক্তির পর তা স্লিপার হিট তকমা লাভ করে। রাজিব মাসান্দ এই চলচ্চিত্রের পর্যালোচনায় লিখেন, "পেড়নেকর নিশ্চিতভাবে এই ছবির একটি অংশে প্রভাব বিস্তার করেছেন যা সন্ধ্যার প্রতি আপনাকে আগ্রহী করে তুলবে।" পেড়নেকর তার কাজের জন্য শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করেন।[১]

শুভ মঙ্গল সাবধান (২০১৭) ছবির প্রচারণায় ভূমি।

একই বছর পেড়নেকর ওয়াই-ফিল্মসের একটি মিনি ওয়েব ধারাবাহিক ম্যান্‌স ওয়ার্ল্ড-এ অভিনয় করেন। লিঙ্গ অসমতা নিয়ে নির্মিত চার খণ্ডের ধারাবাহিকটি ২০১৫ সালের ২৯সে সেপ্টেম্বরে ইউটিউবে প্রকাশিত হয়। এতে আরও অভিনয় করেন অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া, কালকি কেকলাঁরিচা চাড্ডা। এক বছর অনুপস্থিতির পর তিনি শ্রী নারায়ণ সিংয়ের অভিষেক চলচ্চিত্র টয়লেট: এক প্রেম কথা (২০১৭) ছবিতে অক্ষয় কুমারের বিপরীতে অভিনয় করেন।[২][৩] এতে তিনি খোলা মাঠে মলত্যাগ প্রতিরোধে ভূমিকা পালনকারী এক ভারতীয় তরুণী চরিত্রে অভিনয় করেন। এনডিটিভি-র শৈবাল চ্যাটার্জি চলচ্চিত্রটি অপছন্দ করলেও "ছোটখাট একটি বিপ্লবের প্রধান অনুঘটক" হিসেবে পেড়নেকরের কাজের প্রশংসা করেন। চলচ্চিত্রটি বাণিজ্যিকভাবে সফল হয় এবং ২১৬ কোটি রূপীর বেশি আয় করে।

টয়লেট: এক প্রেম কথা ছবির সফলতার পর তিনি হাস্যরসাত্মক-নাট্যধর্মী শুভ মঙ্গল সাবধান (২০১৭) ছবিতে অভিনয় করেন। যৌনরোগ নিয়ে ব্যঙ্গধর্মী এই ছবিটি পরিচালনা করেন আর. এস. প্রসন্ন।[৪] এতে তিনি দ্বিতীয়বারের মত আয়ুষ্মান খুরানার বিপরীতে অভিনয় করেন।[৫] দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর শুভ্র গুপ্ত লিখেন, "পেড়নেকর আবার মনে করিয়ে দিলেন ভালোবাসার জন্য সৎ তরুণী ভূমিকায় তিনি কতটুকু দৃঢ়প্রত্যয়ী হতে পারেন।" এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং বিদ্যা বালানের কাছে পরাজিত হন।[৬]

পেড়নেকর পরবর্তীতে নেটফ্লিক্সের লাস্ট স্টোরিজ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র সংকলনে জোয়া আখতারের পরিচালিত অংশে অভিনয় করেন। এতে তাকে গৃহকর্তার সাথে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত এক গৃহকর্মী চরিত্রে দেখা যায়।[৭] এনডিটিভির রাজা সেন চারটি চলচ্চিত্রের মধ্যে জোয়া আখতারের অংশের প্রশংসা করেন এবং পেড়নেকরের কাজকে খুবই ভালো বলে উল্লেখ করেন।[৮] অভিষেক চৌবে পরিচলিত অপরাধধর্মী চলচ্চিত্র সঞ্চিরিয়া-য় তিনি সুশান্ত সিং রাজপুতের বিপরীতে অভিনয় করছেন। এতে তাকে ডাকাত চরিত্রে দেখা যাবে।

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্রের শিরোনাম চরিত্রের নাম পরিচালক টীকা
২০১৫ দম লগা কে হইশা সন্ধ্যা ভার্মা শরত কাটারিয়া
ম্যান্‌স ওয়ার্ল্ড নামহীন ওয়েব ধারাবাহিক
২০১৭ টয়লেট: এক প্রেম কথা জয়া শর্মা শ্রী নারায়ণ সিং
শুভ মঙ্গল সাবধান সুগন্ধা আর. এস. প্রসন্ন
২০১৮ লাস্ট স্টোরিজ সুধা জোয়া আখতার চারটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের জোয়া আখতারের অংশ
২০১৯ সঞ্চিরিয়া অভিষেক চৌবে নির্মাণাধীন

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "৬১ তম ফিল্মফেয়ার অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিজয়ীদের তালিকা"ওয়ানইন্ডিয়া। ১৬ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  2. "অক্ষয়-ভূমির 'টয়লেট' প্রেম!"আনন্দবাজার পত্রিকা। ১৪ আগস্ট ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  3. "হেভি ওয়েট থেকে এক্কেবারে স্লিম হয়ে ফিরছেন এই অভিনেত্রী"আনন্দবাজার পত্রিকা (ইংরেজি ভাষায়)। ১৪ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  4. "'মারাত্মক সমস্যা' নিয়ে বড় পর্দায় ফিরছে এই জুটি"আনন্দবাজার পত্রিকা (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  5. "আয়ুষ্মানকে সঙ্গে নিয়ে ভূমির রিটার্ন"আনন্দবাজার পত্রিকা (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ এপ্রিল ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  6. "চমকে ভরপুর ৬৩তম ফিল্মফেয়ার"দৈনিক জনকন্ঠ (us ভাষায়)। ২৫ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুলাই ২০১৮ 
  7. পাল, চন্দ্রিমা (২৬ জুন ২০১৮)। "Bhumi Pednekar on 'Lust Stories': 'I was wiping floors at home for weeks. My mom loved it'"স্ক্রোল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  8. সেন, রাজা (২৯ জুলাই ২০১৮)। "Lust Stories Movie Review: 4 Directors Explore The Idea Of Lust, Without Caution"এনডিটিভি। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]