ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন (বীবীএস) ভারতের ওডিশা রাজ্যের রাজধানী ভুবনেশ্বর কে সেবা করে বা এটি ইন্ডিয়ান রাইলবয়স এর ইস্ট কোস্ট রেলওয়ে জোনের সদর দপ্তর।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

1893 থেকে 1896 পযন্ত ইস্ট কোস্ট স্টেট রেলওয়ের 800 মাইল নির্মিত করা গেছিলো এবং ট্রাফিকের জন্য খোলা হয়েছিল। এর জন্নো ব্যাহমানি, কাঠাজোদি, কুয়াখাই আর বিরূপার মত নদীর উপর দিয়ে বড় বড় সেতু নির্মাণের প্রয়োজন ছিলো।

রেলওয়ের পুনর্গঠন[সম্পাদনা]

1944 বর্ষে বেঙ্গালুরু নাগপুর রেলওয়ের জিতিয়াকরণ করা হলো।[১] ইস্ট ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কোম্পানির পূর্ব ভাগ মুঘলসরাই বা বেঙ্গল নাগপুর রেলওয়ে কে মার্জ করে 14 এপ্রিল 1952 কে ইস্টার্ন রেলওয়ে গঠিত করা হলো।[২] 1955 বর্ষে ইস্টার্ন রেলওয়ে দিয়ে সাউথ ইস্টার্ন রেলওয়ে তৈরি করা হলো। এটা বেশিরভাগ আগে BNR দ্বারা পরিচালক লাইন দিয়ে গঠিত। ইস্ট কোস্ট রেলওয়ে এবং সাউথ ইস্ট সেন্ট্রাল রেলওয়ে 2003 এপ্রিলে নতুন আরম্ভ হয়েছে ।[৩] এই দুটোই রেলওয়ে জোনে সাউথ ইস্টার্ন রেলওয়ে দিয়ে গঠিত ।

পরিকাঠামো[সম্পাদনা]

বর্ষ 2001-02 তে ভুবনেশ্বর ইয়ার্ড ও খুর্দ রোড - ভুবনেশ্বর বিভাগ বিদ্যুতায়িত হয়েছে। ভুবনেশ্বর - বরং বিভাগ 2002 - 03 বর্ষে বিদ্যুতায়িত হয়েছে।[৪] ভারটিয়া রেলওয়ের টেলিকম বহু রেলটেল গুগলের সাথে অংশীদারিত্ব করে ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশনে বিনামূল্যে উচ্চ গতি ওই -ফাই সার্ভিস উপলব্ধ করাএ। রেলওয়ে মিনিস্টার সুরেশ প্রভু এবং মিনিস্টার অফ স্টেট ফর রাইলবয়স মনোজ সিনহা এই সার্ভিসের উদ্ঘাটন করেছেন । এই ওই-ফাই সার্ভিস প্রতিদিন 1.৪ লক্ষ ভুবনেশ্বর স্টেশনের দর্শকদের লাভ করবে ।[৫]

নির্মাণাধীন[সম্পাদনা]

ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশনের সাত তোলা ভবনে চারটি উচ্চতার শ্রেণী উপেক্ষা হল, দুটো এক্সেকিউটিভে লাউঞ্জে এবং ফাঁকটি সেকেন্ড ক্লাস উপেক্ষা হল তৈরি করা হবে । উচ্চতর শ্রেণী প্রতীক্ষা হল 600 যাত্রী মিটমাট করতে পারযে বা দুই নির্বাহী লাউঞ্জে 100 মানুষের দখলে রাখার ক্ষমতা থাকবে । ফাঁকটি সেকেন্ড শ্রেণী উপেক্ষা হলে 1000 যাত্রীর ক্ষমতা হবে । এই সব ছাড়াও, বিল্ডিং এর সমস্ত মেঝে রেটিরিং কক্ষ এবং ডরমিটরি (উভয় এয়ার কন্ডিশনাল এবং সাধারণ) বিশ্বমানের আধুনিক সুযোগ সুবিধার সাথে থাকবে । সমস্ত তোলে মাল্টি - কুজীন রেস্টুরেন্ট, বই এর দোকান, ওষুধ এর দোকান, টিকিট কাউন্টার, পর্যটন কেন্দ্র এবং অনেক আরও উডসের জন্নো কিয়স্ক ও বানাবা হবে। ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশনের বহু তোলা পার্কিঙের 4000 স্কোয়ার কিলোমিটার বাসমেন্টে 3200 স্কুটার এবং সাইকেলের জন্নো জাগা হবে বা দু তোলা থেকে সাত তোলা পযন্ত 900 চার্ রাখা যেতে পারবে ।

কাছাকাছি স্টেশন[সম্পাদনা]

আজপঁযন্ত ভুবনেশ্বরের নাগরসীমার ভেতরে 6 রেলওয়ে স্টেশন আছে । এই স্টেশন সম্পর্কে তথ্য নিম্নরূপ হয় -

  • ভুবনেশ্বর রাইলেয় স্টেশন- 6 প্লাটফর্ম
  • মানচেস্বার - 4 প্লাটফর্ম
  • লিঙ্গরাজ টেম্পলে রোড স্টেশন - 3 প্লাটফর্ম
  • বাণী বিহার স্টেশন- 2 প্লাটফর্ম
  • পাতিয়া স্টেশন- 2 প্লাটফর্ম
  • সারকন্ট্রা স্টেশন- 2 প্লাটফর্ম

নিউ ভুবনেশ্বর[সম্পাদনা]

হিসাবে ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন তাড়াতাড়ি সাম্রাধ হয়ে চলেছে একটু ননতুন স্যাটেলাইট যাত্রী টার্মিনাল নিউ ভুবনেশ্বরে নির্মাণ করা হচ্ছে । ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন ভুবনেশ্বর শহরের পশ্চিম দিকে আছে বা নিউ ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন সারের উত্তর দিকে তৈরি হচ্ছে ।

ট্র্যাফিক[সম্পাদনা]

ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন ভারতীয় রেল এর শীর্ষ 100 বুকিং স্টেশনগুলির মধ্যে রয়েছে । বুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশনে 173 ট্রেন বিরাম করে এবং 34 ট্রেন উদ্ভব করে। 1.5 লক্ষ যাত্রী দিয়ে উপরে এই রেলওয়ে স্টেশন থেকে প্রতিদিন আসা যাওয়া করে ।

উল্লেখ[সম্পাদনা]

  1. "IR History: Part - III (1900 - 1947)"। www.irfca.org। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০১৭ 
  2. "Geography : Railway Zones"। www.irfca.org। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০১৭ 
  3. "IR History: Part - IV (1947 - 1970)"। www.irfca.org। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০১৭ 
  4. "History of Electrification"। www.irfca.org। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০১৭ 
  5. "ভুবনেশ্বর রেলওয়ে স্টেশন"। cleartrip.com।