ভি মোহিনী গিরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ভি মোহিনী গিরি
The President, Dr. A.P.J. Abdul Kalam presenting Padma Bhushan to Dr. (Smt.) V. Mohini Giri (Social Activist), at an Investiture Ceremony at Rashtrapati Bhavan in New Delhi on March 23, 2007.jpg
ভারতের মাননীয় রাষ্ট্রপতি ড. এ পি জে আবদুল কালাম ২০০৭ খ্রিস্টাব্দের ২৩শে মার্চ রাষ্ট্রপতি ভবনে এক সুসজ্জিত মনোজ্ঞ অনুষ্ঠানে ড. (শ্রীমতী) ভি মোহিনী গিরি (সমাজ কর্মী) মহাশয়াকে পদ্মভূষণ সম্মান প্রদান করছেন
জন্ম১৯৩৮ (বয়স ৮১–৮২) [১]
লখনৌ, উত্তর প্রদেশ
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাসমাজসেবী, কর্মী
প্রতিষ্ঠাত্রী গিল্ড অফ সার্ভিস (১৯৭৯)

ড. ভি মোহিনী গিরি (জন্মগ্রহণ করেছেন ১৯৩৮ খ্রিষ্টাব্দে) হলেন একজন ভারতীয় সমষ্টি সেবাব্রতী এবং বিশিষ্ট সমাজ কর্মী, একাধারে যিনি হলেন সমবায় সেবা সঙ্ঘের মাননীয়া সভানেত্রী, যে সংস্থা নয়াদিল্লি ভিত্তিক একটা সামাজিক সেবা কেন্দ্র। ১৯৭৯ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত হয়ে এই সমাজ সেবা কেন্দ্র সমাজের মহিলা এবং শিশুদের শিক্ষা, বেকারদের কর্ম সংস্থান এবং সকল মানুষের আর্থিক নিরাপত্তার পক্ষে কাজ করে তাদের সহায়তা দেয়।[২][৩] ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দে তিনি নয়াদিল্লিতে ওয়ার উইডোজ অ্যাসোসিয়েশন (১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান তথা অধুনা বাংলাদেশে যে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল, তার ফলস্বরূপ যে সমস্ত মহিলার স্বামী ওই যুদ্ধে নিহত হয়েছিলেন, তাদের পুনর্বাসনের জন্যে এই সংস্থা গঠন করেছিলেন) নামে এক সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৯৫ থেকে ১৯৯৮ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত তিনি ন্যাশনাল কমিশন ফর ওমেন সংস্থার সভানেত্রীর পদও অলংকৃত করেন।[৪]

২০০৭ খ্রিষ্টাব্দে নয়াদিল্লির রাইসিনা হিলসে রাষ্ট্রপতি ভবনে এক মনোজ্ঞ অনুষ্ঠানে ভারতের রাষ্ট্রপতি ড. এ পি জে আবদুল কালাম সমাজ কর্মী ড. ভি মোহিনী গিরিকে ভারত সরকার কর্তৃক ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান পদ্মভূষণ উপাধি প্রদান করেন।[৫]

প্রারম্ভিক জীবন ও পশ্চাৎপট[সম্পাদনা]

ড. ভি মোহিনী গিরির জন্ম উত্তর প্রদেশের রাজধানী লখনৌতে। ড. ভি এস রাম তার পিতা। তিনি উত্তর প্রদেশের লখনৌ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তার স্নাতক ডিগ্রি প্রাপ্ত হন,[৬] পরবর্তীকালে তিনি দিল্লিতে গিয়েছিলেন উচ্চশিক্ষা লাভের জন্যে এবং দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি প্রাচীন ভারতীয় ইতিহাসে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ড. ভি মোহিনী গিরি তার ডক্টরেট ডিগ্রি পেয়েছিলেন জি বি পন্থ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।[৭]

ড.ভি মোহিনী গিরি, সম্পর্কে, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রয়াত মাননীয় বরাহ গিরি ভেঙ্কট গিরির পুত্রবধূ। তিনি তার অধ্যবসায় ও ব্যক্তিত্বের সমন্বয়ে একজন বিশিষ্ট সমাজসেবী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন এবং ভারতীয় সমাজের উন্নয়ন ও কল্যাণের জন্যে কাজ করছেন। [১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ড. ভি মোহিনী গিরি লখনৌ বিশ্ববিদ্যালয়ে ওমেন স্টাডিজ বিভাগ প্রতিষ্ঠা করেন এবং শিক্ষাবিদ হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন।[৬] তিনি ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দে স্থাপিত ওয়ার উইডোজ অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাত্রী সভানেত্রী, যে সংস্থা সংগঠিত হয়েছিল ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের পর। এই সংস্থার উদ্দেশ্য ও কর্মপন্থা হল, যে সমস্ত ব্যক্তি বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের ফলে শহিদ হয়েছেন, তাদের বিধবা পত্নীদের সামাজিক পুনর্বাসন দিয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করা। এই রকম একটা স্থায়ী জনকল্যাণমূলক কাজের সূচনা করে ড. ভি মোহিনী গিরি তার সহজাত মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন।[৮] দেশের বাইরে বিদেশেও তিনি মানবজাতির কল্যাণে অবদান রেখেছেন। ২০০০ খ্রিষ্টাব্দে তিনি ওমেন ইনিসিয়েটিভ ফর পিস ইন সাউথ এশিয়া সংস্থার প্রতিষ্ঠাত্রী ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করেন।[৭]

ড. ভি মোহিনী গিরির সমাজসেবার পরিধি দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও ছড়িয়ে পড়েছিল। নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক এক আন্তর্জাতিক দাতব্য প্রতিষ্ঠানেরও তিনি বোর্ড সদস্য হিসেবে কাজ করেন।[৯]

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "V. Mohini Giri Profile"। Guild for Service। ২০১৪-০৩-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১১ 
  2. Pisharoty, Sangeeta Barooah (২৭ আগস্ট ২০১৩)। "Silver years defined"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১১ 
  3. "Interview with Dr. Mohini Giri" (ইংরেজি ভাষায়)। aarpinternational.org। ১ সেপ্টেম্বর ২০১০। ২০১৩-১০-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১২ 
  4. "Chairpersons of the Commission" (ইংরেজি ভাষায়)। NCW Official website। ২০১৪-০২-০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১১ 
  5. "Padma Awards Directory (1954–2009)" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। Ministry of Home Affairs। ১০ মে ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৩ 
  6. "Illustrious alumni recall glorious days at Lucknow University" (ইংরেজি ভাষায়)। The Times of India। ২৬ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১২ 
  7. "Dr. V. Mohini Giri profile" (ইংরেজি ভাষায়)। The Hunger Project। ২০১৪-০২-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১১ 
  8. "History" (ইংরেজি ভাষায়)। War Widows Association, New Delhi, India। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১১ 
  9. "Global Board of Directors and Officers" (ইংরেজি ভাষায়)। The Hunger Project। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪