ভিশ্মদেব চক্রবর্তী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাননীয় বিচারপতি
ভিশ্মদেব চক্রবর্তী
বাংলাদেশ হাইকোর্ট বিভাগ
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1967-06-02) ২ জুন ১৯৬৭ (বয়স ৫২)
জাতীয়তাবাংলাদেশ
পিতামাতাকেশব চক্রবর্তী (পিতা)
সুনীতি চক্রবর্তী (মাতা)
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
জীবিকাবিচারপতি

ভিশ্মদেব চক্রবর্তী (জন্ম: ২ জুন ১৯৬৭) হাইকোর্ট বিভাগের একজন বাংলাদেশী বিচারক। ২০১৫ সালে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। [১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ভিশ্মদেব চক্রবর্তী বাংলাদেশের হাইকোর্টের বিচারক। ৯ মে ২০১৭ সালে তার রায়ে ২৫ বছরের পুরানো দুর্নীতি মামলায় খালাস পেয়েছিলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেন মোহাম্মদ এরশাদ[২][৩] ৬ আগস্ট ২০১৭ সালে তিনি এবং বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস বিশ্বজিৎ দাস হত্যার মামলায় রায় দিয়েছেন। রায়ে ৮ জন আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন। [৪][৫][৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Annual Report 2016" (PDF)। Supreme Court of Bangladesh। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-২২ 
  2. "Ershad acquitted of 25-yr-old graft case"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৫-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-২৮ 
  3. "High Court fixes May 9 to decide on 1991 graft case against HM Ershad"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-২৮ 
  4. "High Court upholds death for 2 of Biswajit's killers"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-২৮ 
  5. "'Student politics being stigmatised for few'"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-১১-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-২৮ 
  6. "Full text of Biswajit murder trial verdict released"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-২৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]