ভারতীয় প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান (ইন্ডিয়ান স্কুল অব মাইনস), ধানবাদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ধানবাদ
ভারতীয় প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান (ইন্ডিয়ান স্কুল অব মাইনস), ধানবাদ লোগো.png
বাংলায় নীতিবাক্য
উঠুন, জেগে উঠুন, সর্বোচ্চের জন্য সংগ্রাম করুন ও আলোতে থাকুন
ধরনসরকারি কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়
স্থাপিত১৯২৬; ৯৬ বছর আগে (1926)
চেয়ারম্যানপ্রেম ব্রত
পরিচালকরাজীব শেখর[১]
শিক্ষায়তনিক ব্যক্তিবর্গ
৩৩২[২]
শিক্ষার্থী৮,১০১[২]
স্নাতক৩,৭৩২[২]
স্নাতকোত্তর১,৯৫১[২]
২,৪১৮[২]
অবস্থান, ,
২৩°৪৮′৪৮″ উত্তর ৮৬°২৬′৩১″ পূর্ব / ২৩.৮১৩৩° উত্তর ৮৬.৪৪১৯° পূর্ব / 23.8133; 86.4419
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
৪৪৪ একর (১.৮০ কিমি)
অধিভুক্তিভারতীয় প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান
ওয়েবসাইটwww.iitism.ac.in

ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (ইন্ডিয়ান স্কুল অব মাইনস), ধানবাদ (সংক্ষেপে আইআইটি (আইএসএম), ধানবাদ) হল ভারতের ধানবাদে অবস্থিত একটি সরকারি কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়। ধানবাদের সর্দার প্যাটেল নগর এলাকায় এটির ২০১৮ একরের প্রধান বিদ্যায়তন রয়েছে এবং সম্প্রতি ঝাড়খণ্ড মন্ত্রিসভা দ্বিতীয় বিদ্যায়তনের জন্য নিসারায় ২২৬.৯৮ একর জমি অনুমোদন করেছে, আইআইটি (আইএসএম) ধানবাদ প্রশাসনের ধানবাদের নিরসার আসন্ন ক্যাম্পাসে ২৯ টিরও বেশি একাডেমিক কেন্দ্র খোলার পরিকল্পনা রয়েছে। এটি জাতীয় গুরুত্বের একটি প্রতিষ্ঠান। আইআইটি (আইএসএম) এর ১৮ টি একাডেমিক বিভাগ রয়েছে, যা প্রকৌশল, ফলিত বিজ্ঞান, মানববিদ্যাসামাজিক বিজ্ঞান এবং ব্যবস্থাপনা কর্মসূচিসমূহকজে কভার করে।[৩]

আইআইটি (আইএসএম) ধানবাদ ভারতের খনিজ সমৃদ্ধ অঞ্চল ধানবাদ শহরে অবস্থিত। এটি তৃতীয় প্রাচীনতম প্রতিষ্ঠান (আইআইটি রূড়কী এবং আইআইটি (বিএইচইউ) বারাণসীর পরে), যা আইআইটি-তে রূপান্তরিত হয়েছিল।[৪][৫] এটি ব্রিটিশ ভারত সরকার দ্বারা রয়্যাল স্কুল অব মাইনস-লন্ডনের আদলে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং ভারতের তৎকালীন ভাইসরয় লর্ড আরউইন ১৯২৬ সালের ৯ই ডিসেম্বর তারিখে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেছিলেন।[৬] এটি খনি ও খনিজ বিজ্ঞানে শিক্ষা প্রদানের জন্য একটি প্রতিষ্ঠান হিসাবে শুরু হয়েছিল এবং আজ বিভিন্ন একাডেমিক বিভাগ সহ একটি প্রযুক্তিগত প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। আইআইটি (আইএসএম) ধানবাদ জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার (অ্যাডভান্সড) মাধ্যমে স্নাতক শিক্ষার্থীদের ভর্তি করে, পূর্বে আইআইটি-জেইই এর মাধ্যমে স্নাতক শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হত।[৭][৮]

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা আইএসএম ধানবাদকে একটি ভারতীয় প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠানে রূপান্তর করার জন্য ২০১৬ সালের ২৫শে মে দ্য ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি অ্যাক্ট, ১৯৬১-এর সংশোধন করার অনুমোদন প্রদান করে।[৯][১০] সংশোধনীটি সংসদ দ্বারা অনুমোদিত হয়েছিল এবং রাষ্ট্রপতির সম্মতির ভিত্তিতে, ২০১৬ সালের ১০ই আগস্ট ভারতের গেজেটে অবহিত করা হয়েছিল।[১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "HRD appoints directors of IIT Kanpur, Dhanbad"The Indian Express। ১৩ মার্চ ২০১৮। 
  2. "NIRF 2019" (PDF)। IIT (Indian School of Mines), Dhanbad। [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "About us"www.iitism.ac.in। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "ISM to IIT conversion bill passed"IITISM.com। ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ 
  5. "ISM to IIT conversion bill passed on 6/9/2016 | IIT(ISM) Dhanbad"IIT(ISM), Dhanbad (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৬-২৩। ২০১৭-০৯-১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ 
  6. "About ISM"ismdhanbad.ac.in। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১২ 
  7. "14 lakh examinees get ready to take JEE mains"The Times of India। ২০১৩-০৪-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  8. "Only 591 seats vacant at IITs, ISM Dhanbad - Times of India" 
  9. "ISM to IIT conversion bill passes"IITISM.com। ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ 
  10. PTI (২৫ মে ২০১৬)। "Centre approves 6 new IITs, upgradation of ISM Dhanbad" 
  11. http://egazette.nic.in/WriteReadData/2016/171218.pdf

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]