ব্রায়ান ডেভিস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ব্রায়ান ডেভিস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামব্রায়ান অ্যালান ডেভিস
জন্ম২ মে, ১৯৪০
বেলমন্ট, পোর্ট অব স্পেন, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
সম্পর্কসিএ ডেভিস (ভ্রাতা), জিএ ডেভিস (পুত্র)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১২৩)
২৬ মার্চ ১৯৬৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট১৪ মে ১৯৬৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১১২
রানের সংখ্যা ২৪৫ ৬,২৩১
ব্যাটিং গড় ৩০.৬২ ৩৪.৮১
১০০/৫০ -/৩ ৫/৪৬
সর্বোচ্চ রান ৬৮ ১৮৮*
বল করেছে - -
উইকেট -
বোলিং গড় - ৪৮.২২
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ৪/৭৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ১২৭/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৪ জুলাই ২০২০

ব্রায়ান অ্যালান ডেভিস (ইংরেজি: Bryan Davis; জন্ম: ২ মে, ১৯৪০) পোর্ট অব স্পেনের বেলমন্ট এলাকায় জন্মগ্রহণকারী ত্রিনিদাদীয় বংশোদ্ভূত সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১][২] ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৬০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটে ত্রিনিদাদ ও ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে গ্ল্যামারগন দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিং করতেন ব্রায়ান ডেভিস

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৫৯-৬০ মৌসুম থেকে ১৯৭০-৭১ মৌসুম পর্যন্ত ব্রায়ান ডেভিসের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে অসাধারণ যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছিলেন ব্রায়ান ডেভিস। নর্থের সদস্যরূপে সাউথ ত্রিনিদাদের বিপক্ষে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ব্যাটিং করে ১৮৮ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলার স্বীকৃতিস্বরূপ এ সফরে অংশ নেয়ার জন্যে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল।

লেগ স্পিন বোলার হিসেবেও নিজেকে মেলে ধরতে সচেষ্ট হয়েছিলেন। গ্ল্যামারগনের পক্ষে ১৯৬৯ ও ১৯৭০ - এ দুই মৌসুম খেলেন। উভয় মৌসুমেই সহস্র রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছিলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে চারটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন ব্রায়ান ডেভিস। সবগুলো টেস্টই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলেছিলেন তিনি। ২৬ মার্চ, ১৯৬৫ তারিখে পোর্ট অব স্পেনে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ১৪ মে, ১৯৬৫ তারিখে একই মাঠে ও একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৬৫ সালে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে খেলার জন্যে মনোনীত হন। তিন টেস্টে ব্যাটিং উদ্বোধনে নেমেছিলেন। নিজস্ব প্রথম টেস্টেই তিনি তার সবচেয়ে সেরা খেলা উপহার দিতে সক্ষম হন। পোর্ট অব স্পেনে নিজ মাঠের দর্শকের সামনে ৫৪ ও ৫৮ রান তুলেন। এ পর্যায়ে কনরাড হান্টের সাথে ১১৬ ও ৯১ রান সংগ্রহ করেছিলেন। এর পাশাপাশি ব্রিজটাউন টেস্টে ৬৮ রান করেন। তাসত্ত্বেও তাকে আর খেলানো হয়নি।

১৯৬৬-৬৭ মৌসুমে ভারত গমন করেন। তবে, কোন টেস্টেই তাকে খেলার সুযোগ দেয়া হয়নি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. List of West Indies Test Cricketers
  2. "West Indies – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]