ব্যোমকেশ বক্সী (২০১৫-এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ব্যোমকেশ বক্সী
ব্যোমকেশ বক্সী (২০১৫-এর চলচ্চিত্র) এর পোস্টার.jpg
ব্যোমকেশ বক্সী চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালকঅঞ্জন দত্ত
প্রযোজককৌস্তুভ রায়
অঞ্জন দত্ত
চিত্রনাট্যকারঅঞ্জন দত্ত
উৎসশরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায় কর্তৃক 
কহেন কবি কালিদাস
শ্রেষ্ঠাংশেযীশু সেনগুপ্ত
শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়
ঊষসী চক্রবর্তী
প্রিয়াঙ্কা সরকার
কৌশিক সেন
শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়
সুরকারনীল দত্ত
চিত্রগ্রাহকইন্দ্রনীল মুখার্জী
সম্পাদকঅর্ঘ্যকমল মিত্র
প্রযোজনা
কোম্পানি
আর পি টেকভিশন ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড
অঞ্জন দত্ত প্রোডাকশন
মুক্তি
  • ১৬ অক্টোবর ২০১৫ (2015-10-16)
দৈর্ঘ্য১১০ মিনিট
দেশভারত ভারত
ভাষাবাংলা
নির্মাণব্যয়₹ ৭৫ লক্ষ
আয়₹ ১ কোটি ৩০ লক্ষ

ব্যোমকেশ বক্সী[১] ২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা সাহিত্যের গোয়েন্দা চরিত্র ব্যোমকেশ বক্সীর উপর নির্মিত একটি ভারতীয় রহস্য-রোমাঞ্চ চলচ্চিত্র।[২] ছবিটি পরিচালনা করেন অঞ্জন দত্ত। এটি অঞ্জন দত্ত পরিচালিত ব্যোমকেশ বক্সী সিরিজের চতুর্থ চলচ্চিত্র।[৩] চলচ্চিত্রটি শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায় রচিত কহেন কবি কালিদাস রচনার উপর নির্মিত হয়েছে।[৪][৫] আগের তিনটি চলচ্চিত্রে আবীর চট্টোপাধ্যায় ব্যোমকেশ বক্সীর চরিত্রে অভিনয় করলেও, এবার যীশু সেনগুপ্ত সেই ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

ছবিমুক্তি পরবর্তী প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

ছবিটি চলচ্চিত্র বোদ্ধাদের কাছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পেলেও, সাধারণ দর্শকেরা এটাকে ভালভাবেই গ্রহণ করেছে।[৬][৭]

সিক্যুয়েল[সম্পাদনা]

২০১৬ সালে এর সিক্যুয়েল ব্যোমকেশ ও চিড়িয়াখানা মুক্তি পায়। এই চলচ্চিত্রেও যীশু সেনগুপ্ত ব্যোমকেশ বক্সীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]