ব্যবহারকারী:আফতাবুজ্জামান/শিরিশ দেবকোটা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

শিরিশ দেবকোটা (জন্ম ১৭ জুলাই ১৯৮৫) একজন নেপালী লোকসঙ্গীত শিল্পী। তিনি ১২টি অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন এবং কারুওয়ামা পানি, মা তা আউনে থিনা, দুর্গা হো কি ভবানী, মায়া লাউনা মিলচা রা সহ আরও অন্তত ৬০টি অ্যালবামে কণ্ঠ দিয়েছেন। ২০০৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মা তা আউনে থিনা ইয়াহি চল হোলা ভানিয়া ভা নামের তার রয়লা গান (নেপালি লোকসঙ্গীতের একটি রূপ) তাঁকে জনপ্রিয় করে তোলে।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

তিনি পালপার দারলামদানন্দের বাগানশাকালী-৫-এ জন্মগ্রহণ করেন। [১] তিনি সূর্য প্রসাদ দেবকোটা ও তুলকা দেবী দেবকোটার পুত্র। একটি ছোট গ্রামে জন্মগ্রহণ কারী দেবকোটা ২০০০ সালে ডাক্তার হওয়ার জন্য রাজধানী কাঠমান্ডুতে আসেন, এখানে এসে তিনি গান গাওয়া শুরু করেন। ২০০৩ সালে তার প্রথম গান মানকো কুরো মুক্তি পায়। ২০১৩ সালে, দেবকোটা এবং পশুপতি শর্মা উভয় নেপালের জাতীয় লোক এবং দ্বৈত সঙ্গীত একাডেমীর সম্পাদক নির্বাচিত হন। [৪] পরবর্তীতে ২০১৯ সালে তিনি সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য সুবাশ কেসির (তার বিরোধী দল) বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন[৫] তার অধিকাংশ গান তার দেশপ্রেম, ভালোবাসা এবং তার দেশের সামাজিক পরিস্থিতিকে ঘিরে।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

দেবকোটা ব্যবসায় মাস্টার সম্পন্ন করেছে।

চলচ্চিত্র ও লোকসঙ্গীত শিল্প একত্রে আনা[সম্পাদনা]

দেবকোটা নেপালি লোকসঙ্গীতকে স্থানীয় চলচ্চিত্র শিল্পের সাথে সংযুক্ত করতে কাজ করেন। উদাহরণস্বরূপ, ২০১৫ সালে পালপা মহোৎসবে তিনি মঞ্চে গান গান, সেই সময় নেপালি অভিনেতা রাজেশ হামাল তার গানে নৃত্য পরিবেশন করেন। ২০১৯ সালে তার গান ছোরো আমেরিকা ছ মুক্তি পায়।২০১৮ সালে তার "চাচারা" গান মুক্তি পায়, এতে তিনি অভিনেতা দিলীপ রায়ামাজির সাথে কাজ করেন, দিলীপ রায়ামাজি তার এই গানে নৃত্য পরিবেশন করেছিলেন।২০২০ সালে তার "চৌতারি" গান মুক্তি পায়, এতে তিনি বন্দনা নেপালের সাথে কাজ করেন, যিনি তার গানে নৃত্য পরিবেশন করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]