বেল্লারী জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বেল্লারী জেলা
কর্ণাটকের জেলা
হাম্পির ধ্বংসাবশেষ
হাম্পির ধ্বংসাবশেষ
ডাকনাম: লৌহ আকরিকের শহর
কর্ণাটকের মধ্যে বেল্লারী জেলার অবস্থান
কর্ণাটকের মধ্যে বেল্লারী জেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ১৫°০৯′০০″ উত্তর ৭৬°৫৬′০০″ পূর্ব / ১৫.১৫০০° উত্তর ৭৬.৯৩৩৩° পূর্ব / 15.1500; 76.9333স্থানাঙ্ক: ১৫°০৯′০০″ উত্তর ৭৬°৫৬′০০″ পূর্ব / ১৫.১৫০০° উত্তর ৭৬.৯৩৩৩° পূর্ব / 15.1500; 76.9333
দেশ ভারত
রাজ্যকর্ণাটক
Regionদাক্ষিণাত্য মালভূমি
MPShri Y.Devendrappa
সদরবেল্লারী
মহকুমাBallari, Bellary Metropolitan Area, Kampli, Hospet, Kudligi, Sanduru, Siruguppa, Hagaribommanahalli, Kotturu, Hoovina Hadagali, Kurugodu, Harapanahalli
সরকার
 • ধরনজেলা পঞ্চায়েত
 • জেলাশাসকSri. S.S. Nakul, IAS
আয়তন
 • কর্ণাটকের জেলা৮,৪৪৭ বর্গকিমি (৩,২৬১ বর্গমাইল)
এলাকার ক্রমসপ্তম
উচ্চতা৪৪৯ মিটার (১,৪৭৩ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • কর্ণাটকের জেলা২৪,৫২,৫৯৫
 • ক্রম6th
 • জনঘনত্ব২৬৫.৭৭/বর্গকিমি (৬৮৮.৩/বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৯,২০,২৩৯
 • গ্রামীণ১৫,৩২,৩৫৬
বিশেষণBallarian
ভাষা
 • সরকারিকন্নড়
সময় অঞ্চলভারতীয় প্রমাণ সময় (ইউটিসি+5:30)
ডাক সূচক সংখ্যা583101
টেলিফোন কোডBallari:08392,Hospet:08394
যানবাহন নিবন্ধনকে।এ-৩৪ ও কে।এ-৩৫
ওয়েবসাইটballari.nic.in

বেল্লারী জেলা (উচ্চারণ করা [əɭɭbəɭɭari]) ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের একটি প্রশাসনিক জেলা। এটি কর্ণাটকের উত্তর-পূর্ব অংশে অবস্থিত। এই জেলাটি কর্ণাটকের অন্যতম বৃহত্তম জেলা। এই জেলায় ভারতের জেলাগুলির মধ্যে সবচেয়ে বেশি লৌহ আকরিক মজুত রয়েছে। বেল্লারী জেলার কুডলিগি হ'ল একটি বিশেষ স্থান যেখানে মহাত্মা গান্ধীর চিতাভস্ম রক্ষিত হয়েছে। বেল্লারী জেলার বৈশিষ্ট্য ঐতিহাসিক স্থাপনা, কৃষি জমি এবং আকরিক উত্তোলনের খনি সমূহ।এখানে রয়েছে ইউনেস্কোবিশ্ব ঐতিহ্যপূর্ণ স্থান বিখ্যাত বিজয়নগর সাম্রাজ্যের রাজধানী বিজয়নগরের ধ্বংসাবশেষ । জেলার সদর শহর বেল্লারী গণি নাড়ু (খনির শহর) নামে পরিচিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আগে বেল্লারী জেলা মাদ্রাজ প্রেসিডেন্সির অংশ ছিল। ১৮৭৬-৭৮-এর মহা মন্বন্তরে অঞ্চলটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল। ভারতের স্বাধীনতার পরে, যখন ভারতীয় রাজ্যগুলি ভাষাগত ধারায় পুনর্গঠিত হয়, বেল্লারী কর্ণাটক রাজ্যের হায়দরাবাদ-কর্ণাটক অঞ্চলের অংশ হয়ে যায়।

ভূগোল[সম্পাদনা]

বেল্লারী জেলা দক্ষিণ-পশ্চিম থেকে উত্তর-পূর্ব পর্যন্ত ছড়িয়ে রয়েছে এবং কর্ণাটক রাজ্যের পূর্ব দিকে অবস্থিত। জেলাটি ১৫°৩০ ’এবং ১৫°৫০’ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৭৫°৪০’এবং ৭৭°১১’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ্র মধ্যে অবস্থিত। জেলার আয়তন ৮৪৪৭ বর্গকিলোমিটার। এই জেলাটি উত্তর দিকে রয়েছে রায়চুর জেলা, উত্তর-পশ্চিমে কোপ্পাল জেলা, পশ্চিমে রয়েছে গাদগহাবেরী জেলা, দক্ষিণে রয়েছে দাবণগেরে জেলা, দক্ষিণ-পূর্বে রয়েছে চিত্রদুর্গ জেলা, পূর্বে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যের অনন্তপুর জেলা এবং উত্তর-পূর্বে রয়েছে কর্নুল জেলা৷

প্রশাসন[সম্পাদনা]

বেল্লারী গুলবর্গা বিভাগের প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এটিতে ২টি রাজস্ব উপ বিভাগ, বেল্লারী মহকুমা এবং হসপেট মহকুমা রয়েছে এবং মোট সাতটি তালুক রয়েছে। বেল্লারী মহকুমায় ৩টি তালুক রয়েছে, এবং হোসপেট মহকুমায় চারটি তালুক রয়েছে।

কর্ণাটকের মধ্যে বেল্লারী জেলার অবস্থান

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

এই জেলার প্রধান পেশা কৃষিকাজ এবং মোট শ্রমশক্তির ৭৫% জীবিকার জন্য কৃষির উপর নির্ভরশীল। জেলার গুরুত্বপূর্ণ ফসলগুলি হ'ল তুলা, জোয়ার, চিনাবাদাম, চাল, সূর্যমুখী এবং সিরিয়াল। মোট কৃষিক্ষেত্রে ৩৭% জলসেচের সুবিধা পায়। ১৯৯৮ সালের হিসাবে, সেচের প্রধান উত্স হ'ল তুঙ্গভদ্রা বাঁধ। খাল নেটওয়ার্কটি জেলার ৬৪% সেচ এলাকাকে পরিষেবা দেয়। গুরুত্বপূর্ণ নদী হ'ল তুঙ্গভদ্রা, বেদবতী এবং চিককাহাগরী। জেলার পশ্চিম তালুকগুলি ধারাবাহিক বছর ধরে কম বৃষ্টিপাতের মধ্যে জর্জরিত ছিল। তবে বর্তমান ও পূর্ববর্তী বছরগুলিতে জেলায় ভারী বৃষ্টিপাত বিপর্যয় সৃষ্টি করেছে এবং অনেককেই হতাশায় ফেলেছে।

শিল্প[সম্পাদনা]

বল্লারি জেলা প্রাকৃতিক সম্পদে সমৃদ্ধ যা জেলার সার্বিক উন্নয়নের জন্য বৃহত্তর পরিমাণে ব্যবহার করা দরকার। এই জেলা খনিজ সম্পদ সমৃদ্ধ। এখানে ধাতব এবং অধাতব উভয়প্রকার খনিজ র্যেছে। ধাতব খনিজগুলির মধ্যে রয়েছে লৌহ আকরিক, ম্যাঙ্গানিজ আকরিক, স্বর্ণ, তামা এবং সীসা। অ ধাতব খনিজগুলির মধ্যে রয়েছে অ্যান্ডালুসাইট, অ্যাসবেস্টস, করুন্ডাম, কাদামাটি, ডলোমাইট, চুনাপাথর, বালি, কোয়ার্টজ, সাবান পাথর, গ্রানাইট এবং লাল অকার। আয়রন আকরিকের বার্ষিক উত্পাদন কোথাও ২.৭৫ থেকে ৪.৫ মিলিয়ন টন এবং ম্যাঙ্গানিজ আকরিক ০.১৩ মিলিয়ন টন থেকে ০.৩০ মিলিয়ন টন । আরও বেশি সংখ্যক শিল্প এই শহরে প্রবেশ করার কারণে ইতিমধ্যে রিয়েল এস্টেটের দাম বাড়তে শুরু করেছে। এর কৃতিত্বের জন্য বল্লারি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম একক রক পর্বত রয়েছে[১]

জনমিতি[সম্পাদনা]

ঐতিহাসিক জনসংখ্যা
বছরজন.±%
১৯০১৫,১২,৬২৪—    
১৯১১৫,০৭,৮০০−০.৯%
১৯২১৪,৪০,৬৬০−১৩.২%
১৯৩১৪,৯৩,৭০১+১২%
১৯৪১৫,৪৪,১১৩+১০.২%
১৯৫১৬,৫৬,০৭৯+২০.৬%
১৯৬১৭,৮৬,৫৫৬+১৯.৯%
১৯৭১৯,৭৬,৯৭২+২৪.২%
১৯৮১১৩,০৫,৬২৪+৩৩.৬%
১৯৯১১৬,৫৬,০০০+২৬.৮%
২০০১২০,২৭,১৪০+২২.৪%
২০১১২৪,৫২,৫৯৫+২১%

২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে বেল্লারী জেলার জনসংখ্যা ২,৪৫২,৫৯৫ জন[২], যা প্রায় কুয়েত রাষ্ট্রের জনসংখ্যার বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেনেভাদা রাজ্যের জনসংখ্যার সমান[৩]। জনসংখ্যার বিচারে এই জেলাটি ভারতে মোট ৬৪০টি জেলার মধ্যে ১৬৮তম স্থান অধিকার করে। এই জেলার জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৩০০ জন (৭৮০ জন / বর্গ মাইল)। ২০০১-২০১১ এর দশকে এর জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার ছিল ২৪.৯২%। বেল্লারীর প্রতি ১০০০ জন পুরুষ প্রতি ৯৭৮ জন মহিলা এবং সাক্ষরতার হার ৬৭.৮৫%[৪]

পর্যটন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bellary Karnataka state report_2012.pdf" (PDF)mospi.nic.in। ২০১২। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১৬ 
  2. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 
  3. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison - Population"। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৭ 
  4. "HDI: Bengaluru Urban, DK, Udupi top list"The New Indian Express। ২০ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৭