বেদ কৃষ্ণমূর্তি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বেদ কৃষ্ণমূর্তি
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামবেদ কৃষ্ণমূর্তি
জন্ম (1992-10-16) ১৬ অক্টোবর ১৯৯২ (বয়স ৩০)
কাদুর, চিকমাগালুর, কর্ণাটক
ব্যাটিংয়ের ধরনডান হাতি ব্যাট
বোলিংয়ের ধরনডান হাতি লেগব্রেক
ভূমিকাব্যাটসউওম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় দল
ওডিআই অভিষেকজুন ৩০ ২০১১ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ ওডিআইজুলাই ২৩ ২০১৭ বনাম ইংল্যান্ড
ওডিআই শার্ট নং৭৯
টি২০আই অভিষেকজুন ১১ ২০১১ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টি২০আইডিসেম্বর ৪ ২০১৬ বনাম পাকিস্তান
টি২০আই শার্ট নং৭৯
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০৯-২০১৪কর্ণাটক (জার্সি নং ৭৯)
২০১৫-বর্তমানরেলওয়েজ (জার্সি নং ৭৯)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ডব্লিউ-ওডিআই ডব্লিউ-টি২০আই
ম্যাচ সংখ্যা ৪০ ৩৭
রানের সংখ্যা ৬৭৮ ৪৭০
ব্যাটিং গড় ২৭.১২ ১৬.৭৮
১০০/৫০ -/৬ ০/১
সর্বোচ্চ রান ৭১ ৫০
বল করেছে ১১৪ ১২
উইকেট -
বোলিং গড় ২২.০০ -
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ২/১৩ -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৪/১ ১৩/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো, জুলাই ২৪ ২০১৭

বেদ কৃষ্ণমূর্তি (কন্নড়: ವೇದಾ ಕೃಷ್ಣಮೂರ್ತಿ; জন্ম: ১৬ অক্টোবর ১৯৯২; কর্ণাটকের চিকমাগালুর জেলার কাদুরে) হলেন একজন ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট খেলোয়াড়।[১][২] ইংল্যান্ড মহিলা ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের ৩০ জুন ডার্বিতে একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অভিষেক ঘটে।[৩] তিনি ডানহাতে ব্যাট ও ডানহাতে লেগব্রেক বল করেন।[৪][৫]

২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে ওনার নাম দ্বিতীয় শ্রেণীর চুক্তিতালিকাভুক্ত করা হয়। সেবারেই প্রথম মহিলা ক্রিকেটারদের জন্য ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড চুক্তি ব্যবস্থা শুরু করে।[৬]

পরিবারে বেদ চার ভাইবোনদের মধ্যে কনিষ্ঠতম। ১২ বছর বয়সে উনি ডবল ব্ল্যাক বেল্ট অর্জন করেন। তার বাবা একজন কেবল অপারেটর এবং তিনি চিকমাগালুররের একটি ছোট তালুক থেকে বেঙ্গালুরু চলে আসেন মেয়ের জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন পূরণ করার জন্য।[৭]

২০১৭ সালের মহিলা ক্রিকেট বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলা ভারতীয় দলের সদস্যা ছিলেন বেদ।[৮][৯][১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]