বিষয়বস্তুতে চলুন

নাৎসি বাহিনীর পোল্যান্ড আক্রমণ: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট বানান ঠিক করছে: কারণ, আচরণ, দক্ষিণ, খ্রিস্টাব্দ, প্রাইমারি, পরিমাণ, আরবি, ফরাসি, ফার্সি, গ্রিক
(বট বানান ঠিক করছে: কারণ, আচরণ, দক্ষিণ, খ্রিস্টাব্দ, প্রাইমারি, পরিমাণ, আরবি, ফরাসি, ফার্সি, গ্রিক)
অন্যদিকে ব্রিটেন ও ফ্রান্স পোল্যান্ডের সাথে সহায়তা চুক্তি করে ।
১লা সেপ্টেম্বর সীমান্তে একটি সাজানো আক্রমনের ছুতো ধরে হিটলার পোল্যান্ড দখলের অভিযান শুরু করল ।৩রা সেপ্টেম্বর মিত্রবাহিনী জার্মানীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করল,এবং শুরু হল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ ।
পোলিশ বাহিনী আয়তনে যথেষ্ট বিশাল হলেও তাদের অস্ত্রশস্ত্র ও সামরিক চিন্তাভাবনা ছিল সনাতন ।প্রথম দিনই জার্মান বিমান বাহিনী বোমা ফেলে তাদের শহর ,রেল ,সেতু ,শক্তিকেন্দ্র এবং তাদের বিমান বাহিনী অচল করে দিল ।অন্যদিকে সাইলেশিয়া ,প্রুশিয়া ,মোরাভিয়া ,স্লোভাকিয়া দিয়ে জার্মান বাহিনী ঢুকে পোলিশ বাহিনীকে ছিন্নবিচ্ছিণ্ন করে দিল ।ফরাসী।ফরাসি ও ব্রিটিশ বাহিনী সাহায্য করবার সুযোগ পেল না ।এটি পশ্চিমের বিশ্বাসভঙ্গতা হিসেবে পরিচিত ।
জার্মানীর এই নতুন ধরণের যুদ্ধ পদ্ধতি blitzkrieg বা ঝটিকা যুদ্ধ নামে পরিচিত ।
১৭ই সেপ্টেম্বর গোপন সমঝোতা অনুসারে সোভিয়েত বাহিনীও আক্রমণে যোগ দিল । পরদিনই পোলিশ কর্তাব্যক্তিরা দেশ ছাড়লেন ।ওয়ারস পতন হলো ২৭শে সেপ্টেম্বর ।শেষ সেনাদল কক্ দূর্গে যুদ্ধ করে ৬ই অক্টোবর পর্যন্ত ।
২,০০,১০৩টি

সম্পাদনা