বিষয়বস্তুতে চলুন

"মেসোপটেমিয়া" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বানান সংশোধন
(→‎ভৌগোলিক পটভূমি: বানান সংশোধন)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
(বানান সংশোধন)
যদিও প্রথমদিকে তাদের ধারণা ছিল পৃথিবীটা চ্যাপ্টা চাকতির মত কিন্তু পরবর্তীতে তাদের মধ্যে গোল পৃথিবীর ধারণা জন্মায় এবং তারাই প্রথম পৃথিবীকে ৩৬০ ডিগ্রিতে ভাগ করার পরিকল্পনা করে। ধারণা করা হয় যে তারাই প্রথম ১২ টি রাশিচক্র এবং জলঘড়ি আবিষ্কার করে।
 
ধাতুর ব্যবহারের ক্ষেত্রে মেসোপটেমীয়রা বেশ উন্নতি সাধন করেছিল। তারা খ্রিষ্টপূর্ব ২৫০০ অব্দে [[তামা]] ও [[ব্রোঞ্জ|ব্রোঞ্জের]] ব্যবহার শুরু করে। মেসোপটেমিয়ার বিভিন্ন মন্দির এবং জিগুরাট থেকে প্রাপ্ত বিভিন্ন বাসন কোসন পর্যবেক্ষণ করলে ধারনাধারণা করা যায় যে তারাই [[তামা]] ও [[টিন|টিনের]] সংমিশ্রনে তৈরী একটি চমৎকার ধাতু [[ব্রোঞ্জ|ব্রোঞ্জের]] আবিষ্কারক। এছাড়া মেসোপটেমিয়ায় কাচের ব্যবহার খ্রিষ্টপূর্বাব্দ ১৬০০ থেকে শুরু হয় বলে ধারণা করা হয়।<ref>Eves, Howard [http://books.google.co.uk/books?id=lbmXsaTGNKUC&pg=PA47&dq=mesopotamia&source=gbs_toc_r&cad=4#v=onepage&q=mesopotamia&f=false''Daily Life in Mesopotamia''] Karen Rhea Nemet Nejat, p. 16-17</ref>
 
== ভাষা ও সাহিত্য ==
৩,৬৯,৩৬০টি

সম্পাদনা