বিষয়বস্তুতে চলুন

"সু ফেলজ, সাউথ ডাকোটা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(→‎তথ্যসূত্র: বিষয়শ্রেণী যোগ)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
[[সেন্ট পল, মিনেসোটা|সেন্ট পলের]] ডাকোটা ভূমি কোম্পানি ও আইওয়া অঙ্গরাজ্যের দুবুকে শহরের ওয়েস্টার্ন টাউন কোম্পানি ১৮৫৬ সালে জলপ্রপাতের আশপাশে ভূমি নিজেদের মালিকানার আওতাভুক্ত শুরু করে। উভয় প্রতিষ্ঠান ৩২০ একর ভূমি দাবি করে এবং পরস্পরকে সুরক্ষাদানে সম্মত হয়। আদিবাসীরা ভূমির অধিকার ছাড়তে অসম্মত হলে তারা ''ফোর্ট সড'' নামক তৃণ-নির্মিত সুরক্ষাপ্রাচীর গঠন করে। সতেরোজন ১৮৫৬ সালের শীতকালে সু ফেলজে বসতি স্থাপন করে। পরবর্তী বছরে সু ফেলজের জনসংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৪০।
 
মিনেহাহা কাউন্টিতে বসবাসরত আদিবাসী আমেরিকান ও শ্বেতাঙ্গদের মধ্যে শুরুতে বিরোধ না থাকলেও ১৮৬২ সালের ডাকোটা যুদ্ধের ফলে সংঘাত তীব্র হয়ে ওঠে। ঐ বছর আগস্টে দুইজন বসতি স্থাপনকারী মৃত্যুবরণ করলে শহর ছেড়ে ইউরোপীয়রা পালিয়ে যান। তখন এখানে ব্যাপক লুটতরাজ ও অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হয়েছিল।
 
১৮৬৫ সালের মে মাসে সু ফেলজ শহরে ডাকোটা দুর্গ প্রতিষ্ঠিত হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.angelfire.com/mn3/rambow/vtour.html|শিরোনাম=Ft. Dakota Virtual Tour|ওয়েবসাইট=www.angelfire.com|সংগ্রহের-তারিখ=2020-09-27}}</ref> এখানে নতুন করে বসতি স্থাপন শুরু হয়। ১৮৭৩ সালে এর জনসংখ্যা বেড়ে হয় ৫৯৩। ১৮৭৬ সালে সু ফেলজ গ্রাম স্থানীয় শাসনের আওতাভুক্ত করা হয়। ডাকোটা আইনসভা ১৮৮৩ সালের ৩ মার্চ একে শহর হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.factmonster.com/encyclopedia/places/north-america/us/sioux-falls|শিরোনাম=Sioux Falls {{!}} FactMonster|ওয়েবসাইট=www.factmonster.com|সংগ্রহের-তারিখ=2020-09-27}}</ref>
রেলসড়ক নির্মাণ এর জনসংখ্যা বৃদ্ধির ধারাকে আরো বেগবান করে। ১৮৮০ সালে সু ফেলজের জনসংখ্যা ছিল ২,১৬৭। ১৮৮০-র দশকের শেষভাগে জনসংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১০,১৬৭। কিন্তু [[ঘাসফড়িং]]-সৃষ্ট [[প্লেগ]] মহামারি ও মহামন্দার ফলে এর জনসংখ্যা বৃদ্ধির গতি শ্লথ হয়ে পড়ে। পরবর্তী দশ বছরে জনসংখ্যা মাত্র ৮৯ বৃদ্ধি পায়।
 
১৯০৯ সালে জন মোরেল এখানে মাংস বাজারজাতকরণ কেন্দ্র খুললে শহরটি অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি লাভ করে। ১৯৪২ সালে এখানে একটি বিমানঘাঁটি এবং সামরিক রেডিও ও যোগাযোগ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপিত হয়। ১৯৬০ সালে আন্তঃরাজ্য সড়ক নির্মাণের ফলে অর্থনৈতিক উন্নতি অব্যাহত থাকে।
 
১৯৫৫ সালে দক্ষিণ সু ফেল ও সু ফেল শহর একীভূত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ১৯৫০ এর আদমশুমারি অনুযায়ী,দক্ষিণ সু ফেল শহরের জনসংখ্যা ছিল ১,৬০০। ১৯৫৫ সালের ১৮ অক্টোবর ৭০৪-২২৭ ভোটে দক্ষিণ সু ফেলের বাসিন্দারা একীভূতকরণের পক্ষে রায় দেয়। ১৫ নভেম্বর ২৭১৪-৪৫০ ভোটে সু ফেলের বাসিন্দারা একীভূতকরণ প্রক্রিয়া অনুমোদন করে।
 
ঋণ নীতিমালা শিথিল করায় ১৯৮১ সালে সিটিব্যাংক নিউ ইয়র্ক থেকে সু ফেলজ শহরে ক্রেডিট কার্ড কেন্দ্র স্থানান্তরিত করে। অনেকেই বলেন, সিটিব্যাংকের কার্যালয় স্থানান্তরের ফলে এখানে অভাবনীয় উন্নতি সাধিত হয়েছে।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.mprnews.org/story/2006/02/23/siouxfalls|শিরোনাম=Sioux Falls 25 years after Citibank's arrival|ওয়েবসাইট=MPR News|সংগ্রহের-তারিখ=2020-09-27}}</ref>
সু ফেলজ শহরে ৭০টির বেশি পার্ক ও উদ্যান রয়েছে। ফেলজ পার্ক এর সবচেয়ে বিখ্যাত বিনোদনকেন্দ্র।
 
শহরটির জলবায়ু আর্দ্র মহাদেশীয় ধরনের। জানুয়ারি মাসে ১৬.৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট ও জুলাই মাসে ৭৩ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রা বিরাজ করে। শহরে প্রতি বছর গড়ে ৪৪.৬ ইঞ্চি তুষারপাত ও ২৬.৩৩ ইঞ্চি বৃষ্টিপাত হয়।
 
==জনমিতি==
==তথ্যসূত্র==
{{সূত্র তালিকা}}
 
[[বিষয়শ্রেণী:মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শহর]]
[[বিষয়শ্রেণী:মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্যের রাজধানী]]
১,৮৬,১২৭টি

সম্পাদনা