বিষয়বস্তুতে চলুন

"জম্মু ও কাশ্মীর" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

119.77.71.105-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে Pratik89Roy-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত
(119.77.71.105-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে Pratik89Roy-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত)
ট্যাগ: পুনর্বহাল
 
== ইতিহাস ==
১৯২৫ সালে [[হরি সিং]] কাশ্মীরের রাজা হন। <ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Sharma|প্রথমাংশ=Vivek|শিরোনাম=Kashmir Ki Kahani|ইউআরএল=http://www.aajkiawaaz.com/editorial/941-story-of-kashmir.html|কর্ম=Aajkiawaaz|প্রকাশক=Arpana Singh Parashar|সংগ্রহের-তারিখ=12 August 2013}}</ref> ১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতা লাভ পর্যন্ত তিনিই ছিলেন কাশ্মীরের শাসক। ১৯৪৭ সালে ভারত-বিভাজনের অন্যতম শর্ত ছিল, ভারতের দেশীয় রাজ্যের রাজারা ভারত বা পাকিস্তানে যোগ দিতে পারবেন, অথবা তারা স্বাধীনতা বজায় রেখে শাসনকাজ চালাতে পারবেন। ১৯৪৭ সালের ২২ অক্টোবর পাকিস্তান-সমর্থিত পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলার বিদ্রোহী নাগরিক এবং পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশের পশতুন উপজাতিরা কাশ্মীর রাজ্য আক্রমণ করে।<ref name="news.bbc.co.uk">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://news.bbc.co.uk/1/hi/world/south_asia/5030514.stm|শিরোনাম=Quick guide: Kashmir dispute|প্রকাশক=BBC News|তারিখ=29 June 2006|সংগ্রহের-তারিখ=14 June 2009}}</ref><ref name="news.bbc.co.uk" /><ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://timesofindia.indiatimes.com/india/Who-changed-the-face-of-47-war/articleshow/1200682.cms|শিরোনাম=Who changed the face of '47 war?|প্রকাশক=Times of India|তারিখ=14 August 2005|সংগ্রহের-তারিখ=14 August 2005}}</ref>
১৯২৫ সালে হরি সিং নামক এক হিন্দু মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ কাশ্মিরের সিংহাসনে বসে। ১৯৪৭ সালের দেশ ভাগের সময়েও মুসলিম অধ্যুষিত কাশ্মির সেই হিন্দু রাজার শাসনে ছিলো। সে সময় কাশ্মিরের প্রায় ৮০% মানুষ ছিল মুসলমান। দেশ বিভাগের সময় সেও কাশ্মিরের স্বাধীনতার পক্ষে ছিল। তা হতেও পারতো। কিন্তু হঠাৎই ১৯৪৭ সালের ২০ অক্টোবর কিছু পার্বত্য দস্যুদের আক্রমণের শিকার হয় দুর্ভাগা কাশ্মিরের অধিবাসীরা। সে সময় দস্যুদেরর হাত থেকে বাঁচতে ও ভারতীয় সেনাদের সাহায্য লাভের আশায় ভারতের সঙ্গে যোগ দেয় হরি সিং, অথচ কাশ্মিরের প্রায় ৮০% মুসলমান পাকিস্তানের সাথেই যোগ দেওয়ার পক্ষে ছিল। হরি সিং এর সেই ভারতের সাথে হাত মিলানোর অঘটন আজো কাশ্মিরিদের গলার কাঁটা হয়ে আছে। ১৯৪৭ সালের ২৬ অক্টোবর মহারাজা হরি সিং ‘ Instrument of Accession’ এ স্বাক্ষর করে যা পরের দিন ভারতের সাধারণ রাজ্যপ্রশাসক কর্তৃক গৃহীত হয়েছিল। এই স্বাক্ষরের পরই হামলাকারীদের উচ্ছেদ করার জন্য ভারতীয় সৈন্যরা কাশ্মীরে প্রবেশ করে। কিন্তু তীব্র শীত থাকায় তারা সবাইকে বিতাড়িত করতে পারে নি। এমতাবস্থায়, ভারত বিষয়টিকে জাতিসংঘের নিকট উপস্থাপন করে। জাতিসংঘ তখন পাকিস্তান ও ভারত উভয়কেই তাদের দখলকৃত ভূমি খালি করে দিয়ে গণভোটের আয়োজন করতে বলে। কিন্তু ১৯৫২ সালে ভারত এ গণভোটকে নাকচ করে দেয়, কারণ তারা জানত যে গণভোটে জনগণের রায় ভারতের বিপক্ষেই যেত। ১৯৪৭ সালের সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাস নাগাদ জম্মুতে যে গণহত্যা সংঘটিত হয়েছিল, সে সব নিয়ে জানতে গেলে এবং নিহত মুসলমানদের পরিসংখ্যান জানতে হলে তৎকালীন ব্রিটিশ সাংবাদিক, ব্রিটিশ পত্রিকাগুলির দ্বারস্থ হতে হয়।
 
• ১৯৪৭ সালের ১৬ই জানুয়ারি হোরাস আলেক্সান্ডার ব্রিটিশ পত্রিকা 'The Spectator'-এ উল্লেখ করেন, ১৯৪৭ সালের সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে জম্মুতে নিহত মুসলিমের সংখ্যা ২ লক্ষেরও বেশি।
 
• ১৯৪৮ সালের ১০ই আগস্ট বৃটিশ দৈনিক পত্রিকা 'The London Times'-এ প্রকাশিত একটি রিপোর্টে বলা হয়, ১৯৪৭ সালের সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে জম্মুতে কমপক্ষে ২ লক্ষ ৩৭ হাজার মুসলিমকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়।
 
• ‘The Statesman’ পত্রিকার তৎকালীন সম্পাদক ইয়ান স্টেফেনস তাঁর 'Horned Moon' বইতেও জম্মুতে ২লক্ষের বেশি মুসলিম নিধনের পরিসংখ্যান উল্লেখ করেছেন।
 
১৯২৫ সালে [[হরি সিং]] কাশ্মীরের রাজা হন। <ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Sharma|প্রথমাংশ=Vivek|শিরোনাম=Kashmir Ki Kahani|ইউআরএল=http://www.aajkiawaaz.com/editorial/941-story-of-kashmir.html|কর্ম=Aajkiawaaz|প্রকাশক=Arpana Singh Parashar|সংগ্রহের-তারিখ=12 August 2013}}</ref> ১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতা লাভ পর্যন্ত তিনিই ছিলেন কাশ্মীরের শাসক। ১৯৪৭ সালে ভারত-বিভাজনের অন্যতম শর্ত ছিল, ভারতের দেশীয় রাজ্যের রাজারা ভারত বা পাকিস্তানে যোগ দিতে পারবেন, অথবা তারা স্বাধীনতা বজায় রেখে শাসনকাজ চালাতে পারবেন। ১৯৪৭ সালের ২২ অক্টোবর পাকিস্তান-সমর্থিত পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলার বিদ্রোহী নাগরিক এবং পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশের পশতুন উপজাতিরা কাশ্মীর রাজ্য আক্রমণ করে।<ref name="news.bbc.co.uk">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://news.bbc.co.uk/1/hi/world/south_asia/5030514.stm|শিরোনাম=Quick guide: Kashmir dispute|প্রকাশক=BBC News|তারিখ=29 June 2006|সংগ্রহের-তারিখ=14 June 2009}}</ref><ref name="news.bbc.co.uk" /><ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://timesofindia.indiatimes.com/india/Who-changed-the-face-of-47-war/articleshow/1200682.cms|শিরোনাম=Who changed the face of '47 war?|প্রকাশক=Times of India|তারিখ=14 August 2005|সংগ্রহের-তারিখ=14 August 2005}}</ref>
 
কাশ্মীরের রাজা তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করলেও [[ভারতের গভর্নর-জেনারেল|গভর্নর-জেনারেল]] [[লর্ড মাউন্টব্যাটেন|লর্ড মাউন্টব্যাটেনের]] কাছে সহায়তা চাইলেন। কাশ্মীরের রাজা ভারতভুক্তির পক্ষে স্বাক্ষর করবেন, এই শর্তে মাউন্টব্যাটেন কাশ্মীরকে সাহায্য করতে রাজি হন।<ref name="stein">Stein, Burton. 1998. ''A History of India''. Oxford University Press. 432 pages. {{আইএসবিএন|0-19-565446-3}}. Page 368.</ref> ১৯৪৭ সালের ২৬ অক্টোবর হরি সিং কাশ্মীরের ভারতভুক্তির চুক্তিতে সই করেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.rediff.com/freedom/0710jha2.htm |শিরোনাম=Rediff on the NeT: An interview with Field Marshal Sam Manekshaw |প্রকাশক=Rediff.com |তারিখ= |সংগ্রহের-তারিখ=16 April 2013}}</ref> ২৭ অক্টোবর তা ভারতের গভর্নর-জেনারেল কর্তৃক অনুমোদিত হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.rediff.com/news/1999/jun/01jk.htm |শিরোনাম=Rediff on the NeT Special: The Real Kashmir Story |প্রকাশক=Rediff.com |তারিখ= |সংগ্রহের-তারিখ=16 April 2013}}</ref> চুক্তি সই হওয়ার পর, ভারতীয় সেনা কাশ্মীরে প্রবেশ করে অনুপ্রবেশকারীদের সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত হয়। ভারত বিষয়টি রাষ্ট্রসংঘে উত্থাপন করে। রাষ্ট্রসংঘ ভারত ও পাকিস্তানকে তাদের অধিকৃত এলাকা খালি করে দিয়ে রাষ্ট্রসংঘের তত্ত্বাবধানে গণভোটের প্রস্তাব দেয়। ভারত প্রথমে এই প্রস্তাবে সম্মত হয়েছিল। কিন্তু ১৯৫২ সালে জম্মু ও কাশ্মীরের নির্বাচিত গণপরিষদ ভারতভুক্তির পক্ষে ভোট দিলে ভারত গণভোটের বিপক্ষে মত দেয়।<ref name="UNHCR">{{বই উদ্ধৃতি|ইউআরএল = http://www.unhcr.org/refworld/country,,HRW,COUNTRYREP,PAK,,4517b1a14,0.html|শিরোনাম= "With Friends Like These...": Human Rights Violations in Azad Kashmir|উক্তি=In January 194,|প্রকাশক=[[United Nations High Commissioner for Refugees]]|সংগ্রহের-তারিখ =31 December 2007}}</ref> ভারত ও পাকিস্তানে রাষ্ট্রসংঘের সামরিক পর্যবেক্ষক গোষ্ঠী উভয় রাষ্ট্রের মধ্যে যুদ্ধবিরতি তত্ত্বাবধানে আসে। এই গোষ্ঠীর কাজ ছিল, যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখা ও তদন্তের রিপোর্ট প্রত্যেক পক্ষ ও রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিবের কাছে জমা দেওয়া। যুদ্ধবিরতির শর্ত হিসেবে কাশ্মীর থেকে উভয় পক্ষের সেনা প্রত্যাহার ও গণভোটের প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু ভারত গণভোটে অসম্মত হয় এবং এজন্য পাকিস্তান সেনা প্রত্যাহারে অসম্মত হয়। ভারত গণভোট আয়োজনে অসম্মত হয় এজন্য যে, এটা নিশ্চিত ছিল যে গণভোটে মুসলিম অধ্যুষিত কাশ্মীরের বেশিরভাগ ভোটারই পাকিস্তানের পক্ষে ভোটদান করবেন ও এতে কাশ্মীরে ভারত ত্যাগের আন্দোলন আরো বেশি জোড়ালো হবে।
 
মুসলিম প্রধান কাশ্মীর ও অন্যান্য কারণকে কেন্দ্র করে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক খারাপ হয়। এরপর [[১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ]] ও [[কার্গিল যুদ্ধ|১৯৯৯ সালের কার্গিল]] যুদ্ধ হয়।
 
 
(<nowiki>https://islamibarta.com/article/muslim-world/594/%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B6%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A7%80%E0%A6%B0%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A7%81%E0%A6%B8%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A6%AE-%E0%A6%97%E0%A6%A3%E0%A6%B9%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE-%E0%A6%93-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A6%AE-%E0%A6%87%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%B8</nowiki>)  
 
 
(<nowiki>http://chintaa.com/index.php/chinta/showAerticle/472/%E0%A6%9C%E0%A6%BF%E0%A6%AE-%E0%A6%A8%E0%A6%93%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%9C/%E0%A6%9C%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A7%81-%E0%A6%97%E0%A6%A3%E0%A6%B9%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE:-%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A7%83%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%B0-%E0%A6%86%E0%A7%9C%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%9A%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%93%E0%A7%9F%E0%A6%BE-%E0%A6%87%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%B8/bangla</nowiki>)
 
==প্রশাসন ==