বিষয়বস্তুতে চলুন

বানৌজা সালাম: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

 
জাহাজটি ৪০০০ অশ্ব শক্তির তিনটি ডিজেল ইঞ্জিন দ্বারা চালিত। সালাম সর্বোচ্চ গতি ৩৫ নট (ঘন্টায় ৬৫ কিলোমিটার বা ৪০ মাইল)। এর রেঞ্জ ৩০ নট (ঘন্টায় ৫৭ কিলোমিটার বা ৩৫ মাইল) এর ৮০০ ন্যাটিক্যাল মাইল (১৫০০ কিলোমিটার, ৯২০ মাইল)।
 
জাহাজটি যুদ্ধ সরঞ্জাম হিসেবে একটি ৪০ মিমি এএ বন্দুক এবং দুটি ৩০ মিমি এএ বন্দুক বহন করে। এছাড়া এটি সমুদ্রপৃষ্ঠ অনুসন্ধানের জন্য এক ধরণের ৩৫২ স্কয়ার টাই রাডার দিয়ে সজ্জিত।
 
১৯৮৮ সালের ১০ নভেম্বর বানৌজা দুর্নিবার হিসেবে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে কমিশন লাভ করে। ১৯৯১ সালের ঘূর্ণিঝড়ে জাহাজটি অকেজো হয়ে কর্ণফুলী নদীতে ডুবে যায়। পরবর্তীতে এটিকে সংস্কার করে গানবোটে পরিবর্তন করা হয় এবং ২০০২ সালে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে বানৌজা সালাম নামে কমিশন লাভ করে।