বিষয়বস্তুতে চলুন

"ব্যবহারকারী:Sammay Sarkar/খসড়া/২" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

 
== স্থায়িত্ব দ্বীপ ==
{{Main|স্থায়িত্ব দ্বীপ}}
{{Main|Island of stability}}
স্থায়িত্ব উপত্যকার বাইরে স্থায়িত্ব স্বীপ নামে এলাকার উপস্থিতির পূর্বাভাস রয়েছে, যেখানে বিশেষ কিছু প্রোটন ও নিউট্রন সংখ্যা সম্পন্ন ভারী আইসোটোপ স্থায়িত্ব প্রদর্শন করতে পারে, এমনকি অতি তেজষ্ক্রিয় [[ইউরেনিয়াম]]ের চেয়েও ভারী নিউক্লিয়াসও।
The island of stability is a region outside the valley of stability where it is predicted that a set of heavy [[isotopes]] with near [[Magic number (physics)|magic numbers]] of protons and neutrons will locally reverse the trend of decreasing stability in [[transuranium element|elements heavier than uranium]].
The hypothesis for the island of stability is based upon the [[nuclear shell model]], which implies that the [[atomic nucleus]] is built up in "shells" in a manner similar to the structure of the much larger electron shells in atoms. In both cases, shells are just groups of quantum [[energy level]]s that are relatively close to each other. Energy levels from quantum states in two different shells will be separated by a relatively large energy gap. So when the number of [[neutron]]s and [[proton]]s completely fills the [[energy level]]s of a given shell in the nucleus, the [[binding energy]] per nucleon will reach a local maximum and thus that particular configuration will have a longer lifetime than nearby isotopes that do not possess filled shells.<ref>{{cite web| title = Shell Model of Nucleus | work = HyperPhysics | publisher = Department of Physics and Astronomy, Georgia State University | url = http://hyperphysics.phy-astr.gsu.edu/hbase/nuclear/shell.html | accessdate = 22 January 2007 }}</ref>
 
স্থায়িত্ব দ্বীপ তত্ত্বের ভিত্তি হচ্ছে [[নিউক্লীয় শেল কাঠামো]], যা বর্ণনা করে যে পরমাণুর নিউক্লিয়াস কিছু "শেল" দ্বারা তৈরি, অনেকটা পরমাণুর ইলেক্ট্রন শেলের মতই। উভয় ক্ষেত্রেই শেল হচ্ছে প্রকৃত পক্ষে ক্রমান্বয়ে সজ্জিত কোয়ান্টাম [[শক্তিস্তর]]। দুটি শেলে কোয়ান্টাম অবস্থায় শক্তি স্তরদ্বয় একটি তুলনামূলক প্রশস্ত শক্তি খাদ দ্বারা বিচ্ছিন্ন থাকে। তাই যখন নিউট্রন ও প্রোটনের সংখ্যা একটি শেলের শক্তিস্তর সম্পূর্ণভাবে পূরণ করে ফেলে, তখন ওই নিউক্লিয়াসের বন্ধন শক্তি একটি স্থানীয় তীব্রতা লাভ করে, এবং নিউক্লিয়াসের এই দশাটি পূর্ণ শেলবিহীন অন্যান্য নিউক্লিয়াসের চেয়ে অধিক স্থায়িত্ব অর্জন করে।<ref>{{cite web| title = Shell Model of Nucleus | work = HyperPhysics | publisher = Department of Physics and Astronomy, Georgia State University | url = http://hyperphysics.phy-astr.gsu.edu/hbase/nuclear/shell.html | accessdate = 22 January 2007 }}</ref>
A filled shell would have "[[Magic number (physics)|magic numbers]]" of neutrons and protons. One possible magic number of neutrons for spherical nuclei is 184, and some possible matching proton numbers are 114, 120 and 126. These configurations imply that the most stable spherical isotopes would be [[flerovium]]-298, [[unbinilium]]-304 and [[unbihexium]]-310. Of particular note is <sup>298</sup>Fl, which would be "[[Double magic|doubly magic]]" (both its [[proton number]] of 114 and [[neutron number]] of 184 are thought to be magic). This doubly magic configuration is the most likely to have a very long half-life. The next lighter doubly magic spherical nucleus is [[lead]]-208, the heaviest known stable nucleus and most stable heavy metal.
 
একটি পূ্র্ণ শেলে নিউট্রন ও প্রোটন "[[ম্যাজিক সংখ্যা (পদার্থবিদ্যা)|ম্যাজিক সংখ্যা]]" বা বিশেষ সংখ্যায় উপস্থিত থাকে। গোলাকার নিউক্লিয়াসের জন্য একটি সম্ভাব্য নিউট্রন ম্যাজিক সংখ্যা হচ্ছে ১৮৪, এবং এর সাপেক্ষে স্থায়ী প্রোটন ম্যাজিক সংখ্যা ১১৪, ১২০, এবং ১২৬। এই বিন্যাস থেকে প্রতীয়মান হয় যে এধরণের অধিকাংশ স্থায়ী আইসোটোপ হতে পারে [[ফ্লেরোভিয়াম]]-২৯৮, [[উনবাইনিলিয়াম]]-৩০৪ এবং [[উনবাইহেক্সিয়াম]]-৩১০। এর মধ্যে <sup>298</sup>Fl লক্ষণীয়, যা [[দ্বি-ম্যাজিক সংখ্যা]] ধারী, অর্থাৎ এর প্রোটন সংখ্যা, ১১৪, এবং নিউট্রন সংখ্যা, ১৮৫, দুটিই ম্যাজিক সংখ্যা হিসেবে গণিত। এই আইসোটোপের অর্ধায়ু খুবই দীর্ঘ হবে বলে অনুমান করা হয়। পরবর্তী লঘুতর গোলাকার দ্বি-ম্যাজিক নিউক্লিয়াস হচ্ছে Pb-২০৮, যা জানামতে সবচে ভারী স্থিতিশীল নিউক্লিয়াস এবং সবচে স্থিতিশীল [[ভারী ধাতু]]।
 
== আলোচনা ==
৯৩৬টি

সম্পাদনা