"রাইনার মারিয়া রিলকে" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
== সাহিত্যকর্ম ==
রাইনের মারিয়া রিলকে তাঁর 'দুইনো এলিজি'কাব্যের জন্য বিখ্যাত হলেও জার্মান ও ফরাসি ভাষায় তিনি বহু কবিতা ও গদ্য লিখে গেছেন। '''দি বুক অফ আওয়ার্স'''(১৯০৫) হল তিনটি কবিতার সম্পূর্ণ সংকলন। বিশ শতকের গোড়ার দিকে রাশিয়ায় ভ্রমণকালে সেন্ট ফ্রান্সিস ও [[খ্রিস্ট ধর্ম|খ্রিশ্চান]] ধর্মের ঈশ্বরবিশ্বাস নিয়ে কবিতাগুলি লেখা।
'''দি নোটবুক অফ মল্টে লরিডস ব্রিগে'''(১৯১০) জার্মান ভাষায় লেখা রিলকের একমাত্র আত্মজৈবনিক ধাঁচের উপন্যাস। মূল জার্মান রচনাটির নাম ' [[Die Aufzeichnungen des Malte Laurids]]। "যৌবনে লেখা বইগুলিতে রিলকে বারবার নিঃসঙ্গতার প্রসঙ্গে ফিরে আসছেন,'মাল্টে'তে তা গম্ভীর ও ভারি হয়ে ঝুলে আছে বাংলাদেশের শ্রাবণ মাসে মেঘাছন্ন, বৃষ্টিহীন আকাশের মতো। কিন্তু যে-নিঃসঙ্গতাশ মাল্টে ছিলো পীড়িত, রিলকে তাকে ঐশ্বর্যে রূপান্তরিত করেন।"
===দুইনো এলিজি===
১৯১২ সাল থেকে কাউন্টেস মারি ভন থার্ন এর অতিথি হয়ে দুইনো ক্যাসল এ থাকতে শুরু করেন। ১৯১২ থেকে ১৯২২ এই সময়েই তিনি তাঁর বিখ্যাত এলিজিগুলো লেখেন। মাঝে প্রথম বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে অবসাদগ্রস্ত হয়ে কয়েকবছর লেখা বন্ধ রাখেন। এলিজিগুলোর গীতিকাব্যময়তা ও মিস্টিসিজমের পাশাপাশি অস্তিত্ত্বের টানাপোড়েন একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হয়ে উঠেছে।রিলকে ইম্প্রেশনিস্ট কবি,তাই খ্রিশ্চান ধর্ম ও বিশ্বাস নিয়ে প্রতীকী দৃষ্টিভঙ্গি কবিতাগুলোর বিশেষত্ব।
৮২টি

সম্পাদনা

পরিভ্রমণ বাছাইতালিকা