"স্পেন জাতীয় ফুটবল দল" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সংশোধন
(Zaheen স্পেন জাতীয় ফুটবল দল পাতাটিকে স্পেনের জাতীয় ফুটবল দল শিরোনামে পুনির্নির্দেশনার মাধ্যমে স্থানান্তর করেছেন: বাংলা ব্যাকরণসম্মত শিরোনামে স্থানান্তর)
(সংশোধন)
{{MedalBottom}}
}}
'''স্পেনস্পেনের জাতীয় ফুটবল দল''' ({{lang-es|Selección de fútbol de España}} ''সেলেক্‌সিওন্‌ দে ফুত্‌বোল্‌ দে এস্‌পাঞা'') হচ্ছে [[ফিফা|আন্তর্জাতিক]] [[অ্যাসোসিয়েশন ফুটবল|ফুটবলে]] [[স্পেন|স্পেনের]] প্রতিনিধি। দলটির নিয়ন্ত্রণ করে [[রয়্যালরাজকীয় স্প্যানিশস্পেনীয় ফুটবল ফেডারেশন]]। স্পেনীয়স্পেনের জাতীয় ফুটবল দলকে সাধারণসাধারণত ''লা ফুরিয়া রোজারোহা'' (La Furia Roja) অর্থাৎ "লাল শিখা" বা কেবল ''লাললা শিখারোহা'' অর্থাৎ "লাল দল" নামে সম্বোধন করা হয়।<ref>http://goal.blogs.nytimes.com/2009/06/24/stopping-the-la-furia-roja-is-no-easy-task/</ref>
 
স্পেন বর্তমানে ইউরোপীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়ন। ২০০৮ সালে [[উয়েফা ইউরোপীয়ান ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ|উয়েফা ইউরোপীয়ানইউরোপীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের]] ফাইনালে [[জার্মানি জাতীয় ফুটবল দল|জার্মানিকে]] পরাজিত করে তারা এই শিরোপা অর্জন করার গৌরব অর্জন করে। ২০১২ সালে ইতালিকে ৪-০ গোলে পরাজিত করে স্পেন একমাত্র দল হিসেবে টানা দুবার ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন হয়। এছাড়া স্পেন ১৯৬৪ সালে ইউরোপীয়ান নেশন্স কাপ জয় করে ও ১৯৮৪ সালে ফাইনাল পর্যন্ত উন্নীত হয়। এখন পর্যন্ত দলটি ১৪ বার [[ফিফা বিশ্বকাপ]] খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত দলটির সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে [[২০১০ ফিফা বিশ্বকাপে|২০১০ সালে]] চ্যাম্পিয়ন হওয়া।
'''স্পেন জাতীয় ফুটবল দল''' ({{lang-es|Selección de fútbol de España}}) হচ্ছে [[ফিফা|আন্তর্জাতিক]] [[অ্যাসোসিয়েশন ফুটবল|ফুটবলে]] [[স্পেন|স্পেনের]] প্রতিনিধি। দলটির নিয়ন্ত্রণ করে [[রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন]]। স্পেনীয় ফুটবল দলকে সাধারণ ''লা ফুরিয়া রোজা'' বা ''লাল শিখা'' নামে সম্বোধন করা হয়।<ref>http://goal.blogs.nytimes.com/2009/06/24/stopping-the-la-furia-roja-is-no-easy-task/</ref>
 
স্পেন বর্তমানে ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়ন। ২০০৮ সালে [[উয়েফা ইউরোপীয়ান ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ|উয়েফা ইউরোপীয়ান ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের]] ফাইনালে [[জার্মানি জাতীয় ফুটবল দল|জার্মানিকে]] পরাজিত করে তারা এই শিরোপা অর্জন করার গৌরব অর্জন করে। ২০১২ সালে ইতালিকে ৪-০ গোলে পরাজিত করে স্পেন একমাত্র দল হিসেবে টানা দুবার ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন হয়। এছাড়া স্পেন ১৯৬৪ সালে ইউরোপীয়ান নেশন্স কাপ জয় করে ও ১৯৮৪ সালে ফাইনাল পর্যন্ত উন্নীত হয়। এখন পর্যন্ত দলটি ১৪ বার [[ফিফা বিশ্বকাপ]] খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত দলটির সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে [[২০১০ ফিফা বিশ্বকাপে|২০১০ সালে]] চ্যাম্পিয়ন হওয়া।
 
২০০৮ সালের জুলাই মাসে স্পেন ফিফা বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে প্রথম বারের মতো শীর্ষে উঠে। ৬ষ্ঠ দল হিসেবে এই স্থানে আসীন হয় তারা। ২০০৬ সালের নভেম্বর থেকে জুন ২০০৯ পর্যন্ত স্পেন টানা ৩৫টি আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ড করে। এই রেকর্ডটি পূর্বে ছিলো একমাত্র [[ব্রাজিল জাতীয় ফুটবল দল|ব্রাজিলের]] দখলে। এই ৩৫টি ম্যাচ অপরাজিত থাকার সময় স্পেন টানা ১৫টি খেলায় জয়লাভ করে, এবং এটিও ছিলো একটি রেকর্ড।
৪১,৬৫১টি

সম্পাদনা

পরিভ্রমণ বাছাইতালিকা