বিষয়বস্তুতে চলুন

২০১১ ভারতের জনগণনা: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

{{তথ্যছক আদমশুমারি|country={{IND}}|name=১৫তম ভারতীয় জনগণনা
|country={{IND}}
|name=১৫তম ভারতীয় জনগণনা
|logo_caption=Our Census, Our Future
|date=2010-2011
|population=1,210,193,422
|percent_change={{increase}} 17.70%<ref>{{cite web|url=http://www.censusindia.gov.in/2011census/PCA/A-2_Data_Tables/00%20A%202-India.pdf|title=Decadal Growth :www.censusindia.gov.in}}</ref>|region_type=state|most_populous={{nowrap|[[Uttar Pradesh]] (199,812,341)}}|least_populous={{nowrap|[[Sikkim]] (610,577)}}}}
|region_type=state
|most_populous={{nowrap|[[Uttar Pradesh]] (199,812,341)}}
|least_populous={{nowrap|[[Sikkim]] (610,577)}}}}
 
'''১৫তম ভারতীয় জনগণনা'''  দুই দফায় পরিচালিত হয়, ঘর তালিকাকরণ এবং জনসংখ্যা গণনা । বাড়ির বা ঘর তালিকা করণে কাজ শুরু ১ এপ্রিল ২০১০ তারিখে এবং জড়িত সকল ভবন সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। এছাড়াও প্রথম পর্যায়ে  জাতীয় জনসংখ্যা রেজিস্টারের জন্যওজন্য তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল প্রথম পর্যায়ে যা ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফঅব ইন্ডিয়ারইন্ডিয়া (ইউআইডিএআই) কর্তৃক সকল নিবন্ধিত আবাসনের জন্য ১২ অঙ্কের ইউনিক আইডেনটিফিকেশন নাম্বারে ব্যবহার করা হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে জনসংখ্যা শুমারী ৯ এবং ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১১ এর মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়।  ১৮৭২ থেকে ২০১১ পর্যন্ত ভারতে পরিচালিত  আদমশুমারি মধ্যে এবারই প্রথম বায়োমেট্রিক তথ্য সংগ্রহ করা হয়। ৩১ মার্চ ২০১১ তারিখে প্রকাশিত প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুযায়ী ভারতে  জনসংখ্যা বেড়ে ১২১ কোটি হয়েছে এবং জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ১৭.৬৪% শতাংশ.<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://timesofindia.indiatimes.com/india/Indias-population-1274239769-and-growing/articleshow/48033866.cms|শিরোনাম=India's population — 127,42,39,769 and growing}}</ref> প্রাপ্তবয়স্ক সাক্ষরতার হার হল ৭৪.০৪% এবং বৃদ্ধির হার ৯.২১%। জনগণনা ২০১১ এর নীতিবাক্য ছিল, 'আমাদের জনগণনা, আমাদের ভবিষ্যত'।
 
== নোট ==