বিষয়বস্তুতে চলুন

বালাকোট যুদ্ধ: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

টেমপ্লেটে সংশোধন
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা
(টেমপ্লেটে সংশোধন)
[[চিত্র:Balakot, Mansehra District, Pakistan (2).JPG|right|thumb|300px|সাতবানে ঝর্ণার উপর বালাকোট যুদ্ধের মূল কেন্দ্র।]]
 
১৭৫৭ সালে পলাশী যুদ্ধের মাধ্যমে ইংরেজ বণিকরা এ অঞ্চলে আনুষ্ঠানিকভাবে বৃটিশ রাজদণ্ডের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে এবং স্থানীয় অধিবাসীদের উপর এক জোরজবরদস্তি মূলক আধিপত্যবাদী শাসন কায়েম করে। একদিকে এই রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট, অন্যদিকে স্বয়ং মুসলিম সমাজের ইসলামী জীবনাচরণে দীর্ঘকাল যাবৎ বিপুল অনৈসলামিক আক্বীদা-বিশ্বাসের শক্ত অবস্থান স্বাভাবিকভাবেই এ অঞ্চলে এক সর্বব্যাপী সংস্কারমূলক বিপ্লবের ক্ষেত্র প্রস্তুত করে রেখেছিল। সেই অনাগত বিপ্লবের হাতছানিই যেন ঊনবিংশ শতাব্দীর ঊষালগ্নে সাইয়েদ আহমাদ শহীদের ‘তরীকায়ে মুহাম্মাদিয়া’ আন্দোলনের হাত ধরে উপমহাদেশের শিরক-বিদ‘আতী জঞ্জালের অন্ধকার গহ্বরে তাওহীদী নবপ্রভাতের সূচনা ঘটায়। এই আন্দোলনেরই একটি গুরুত্বপূর্ণ পর্বে ঘটে যায় '''বালাকোট যুদ্ধ''' । ১৮৩১ সালের ৬ মে সংঘটিত ঐতিহাসিক এই বালাকোট যুদ্ধ একদিকে যেমন ছিল এই সংস্কারবাদী আন্দোলনের জন্য চরম বিপর্যয়ের, অপরদিকে বিদেশী বেনিয়াদের হাত থেকে স্বাধীনতা লাভের জন্য উপমহাদেশের বুকে পরিচালিত সর্বপ্রথম সুসংঘবদ্ধ রণডঙ্কা।<ref name="ref2">{{citeবই bookউদ্ধৃতি | url=http://www.icsbook.info/1987/shibir | title=চেতনার বালাকোট | author=শেখ জেবুল আমীন দুলাল | location=ঢাকা}}</ref><ref name="ref1">{{cite journal | url=https://archive.is/cOyoK | title=বালাকোটের বিপর্যয় ও কারণ | author=ড. মুহাম্মাদ সিদ্দিক | journal=[[দৈনিক নয়া দিগন্ত]] | year=2014}}</ref>
 
== বালাকোট পরিচিতি ==
 
== তথ্যসূত্র ==
{{সূত্র তালিকা}}
{{reflist}}
 
== বহিঃসংযোগ ==
৩,৮৭,৬২০টি

সম্পাদনা