"ফাস্ট বোলিং" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সম্পাদনা সারাংশ নেই
এছাড়াও [[জেফ থমসন]] , [[ব্রেট লি]] এবং [[শন টেইট]] ১০০ মাইলে বল করার গৌরব অর্জন করেন |
 
অধিকাংশ [[আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের সদস্যদের তালিকা|ক্রিকেট খেলুড়ে দেশে]] ফাস্ট বোলারকে দলীয় বোলিং আক্রমণের প্রধান মাপকাঠি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তারা ধীরগতির বোলার বা [[স্পিনার|স্পিনারদেরকে]] সহায়তা করে থাকেন। স্পিনারদেরকে সহকারী বোলারের মানদণ্ডে তুলে ধরা হয়। [[ভারতীয় উপমহাদেশ|ভারতীয় উপমহাদেশে]] [[বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল|বাংলাদেশ]], [[ভারত জাতীয় ক্রিকেট দল|ভারত]], [[পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল|পাকিস্তান]] এবং [[শ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দল|শ্রীলঙ্কা দলে]] বর্তমানে ফাস্ট বোলারের সংখ্যা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফাস্ট বোলাররা বলকে নমনীয় করে স্পিনারদের ব্যবহারের উপযোগী করে তুলছেন। এ দেশগুলোর পীচগুলো স্পিনারদের উপযোগী করে তৈরী করা হয় যা ফাস্ট বোলারদের চেয়ে অধিক কার্যকরী। কিন্তু আন্তর্জাতিক পর্যায়ে স্পিনারদের অবিশ্বাস্য কীর্তিগাঁথাগুলো এ ধারণাকে ম্লান করে দিয়েছে। [[মুত্তিয়া মুরালিধরন]], [[শেন ওয়ার্ন]], [[শহীদ আফ্রিদি]], [[অনিল কুম্বলে]], [[সাঈদ আজমল]] [[সনাথ জয়াসুরিয়া]], [[সাকলাইন মুশতাক]], [[ড্যানিয়েল ভেট্টোরি]], [[হরভজন সিং]], [[সাকিব আল হাসান]],[[মোহাম্মদ রফিক]] প্রমূখ স্পিনারদের সফল পদচারণা এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ।
 
== শ্রেণীবিভাগ ==
বেনামী ব্যবহারকারী

পরিভ্রমণ বাছাইতালিকা