বিষয়বস্তুতে ঝাঁপ দিন

"বরিশাল সিটি কর্পোরেশন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

Bot: Parsoid bug phab:T107675
(Bot: Parsoid bug phab:T107675)
ব্রিটিশ সরকার নাগরিক সেবা প্রদানের লক্ষ্যে বরিশাল শহরে ১৮৬৯ সালে ‘বরিশাল টাউন কমিটি’ নামে প্রথম মিউনিসিপ্যালিটি গঠন করে। যা টাউন কমিটি অ্যাক্ট VI, ১৮৬৮ দ্বারা বাস্তবায়িত হয় ও পদাধিকার বলে তৎকালীন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বা পরবর্তীকালের ডেপুটি কমিশনারগণ তার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করতেন। <ref name="disgadget3">{{বই উদ্ধৃতি|last1=জ্যাক|first1=জে, সি,|title=বাকেরগঞ্জ জেলা গ্যাজেটিয়ার Chapter 3|publisher=কলকাতাঃ বেঙ্গল সচিবালয় পুস্তক বিভাগ|page=১২৯|pages=১২২ - ১৬৮|edition=১৯২৮|url=http://dspace.wbpublibnet.gov.in:8080/jspui/bitstream/10689/10520/5/Chapter%203_122%20%e2%80%93%20168p.pdf|accessdate=১৫ এপ্রিল ২০১৫}}</ref> সে অনুযায়ী তৎকালীন জেলা প্রশাসক জে.সি. প্রাইজ টাউন কমিটির প্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। <ref name="banglapedia">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|title=বরিশাল সিটি করপোরেশন|url=http://bn.banglapedia.org/index.php?title=%E0%A6%AC%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%B6%E0%A6%BE%E0%A6%B2_%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A6%BF_%E0%A6%95%E0%A6%B0%E0%A6%AA%E0%A7%8B%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%B6%E0%A6%A8|publisher=বাংলাপিডিয়া|accessdate=১৫ এপ্রিল ২০১৫}}</ref>
 
<nowiki> </nowiki>১৮৭৬ সালে মিউনিসিপ্যালিটি অ্যাক্ট দ্বারা বরিশাল শহরকে মিউনিসিপ্যালিটি হিসাবে ঘোষণা করা হয়। <ref name="disgadget" /> স্থানীয় বুদ্ধিজীবীদের মধ্য থেকে ১ জন চেয়ারম্যান, ১ জন ভাইস চেয়ারম্যান ও ১৫ জন কমিশনার দ্বারা মিউনিসিপ্যালিটি গঠন করা হয়। চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান, কমিশনারদের মধ্যে ১০ জন নির্বাচিত, ৪ জন মনোনীত ও ১ জন প্রাক্তন কর্মকর্তা। জনসাধারণের মধ্যে থেকে প্যারীলাল রায় ছিলেন বরিশাল মিউনিসিপ্যালিটির প্রথম চেয়ারম্যান। সেসময় বরিশাল মিউনিসিপ্যালিটির আয়তন ছিল ৭ বর্গমাইল (১৮.১৩ বর্গ কিলোমিটার। <ref name="disgadget">{{বই উদ্ধৃতি|last1=জ্যাক|first1=জে, সি,|title=বাকেরগঞ্জ জেলা গ্যাজেটিয়ার - স্থানীয় ও স্বায়ত্তশাসিত সরকার|publisher=কলকাতাঃ বেঙ্গল সচিবালয় পুস্তক বিভাগ|page=১১১|edition=১৯২৮|url=http://dspace.wbpublibnet.gov.in:8080/jspui/bitstream/10689/10520/4/Chapter%202_72%20%e2%80%93%20121p.pdf|accessdate=১৫ এপ্রিল ২০১৫}}</ref> ও জনসংখ্যা ছিল ১২,৫০১ জন। <ref name="dhakatribune">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|title=Barisal citizens want real development, not mere promises|url=http://www.dhakatribune.com/politics/2013/jun/02/barisal-citizens-want-real-development-not-mere-promises|accessdate=১৫ এপ্রিল ২০১৫|publisher=ঢাকা ট্রিবিউন|date=২ জুন ২০১৩}}</ref> প্রতিষ্ঠাকালে বরিশাল মিউনিসিপ্যালিটির ওয়ার্ড ছিল ২টি, পাকিস্তান আমলে, বাড়িয়ে ১০ ওয়ার্ড করা হয় ও শহরের আয়তন হয় ২০ বর্গকিলোমিটার ও জনসংখ্যা প্রায় ১ লাখ। <ref name="dhakatribune" /> বাংলাদেশ স্বাধীনের পূর্ব পর্যন্ত এ মিউনিসিপ্যালিটির ১০টি ইউনিয়নের নির্বাচিত মেম্বারদের ভোটে একজন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতেন। স্বাধীনতা পরবর্তীকালে পৌরসভার আয়তন বাড়িয়ে ২৫ বর্গকিলোমিটার করা হয়। <ref name="dhakatribune" /> ১৯৮৫ সালে বরিশাল পৌরসভাকে প্রথম শ্রেনীর পৌরসভা হিসেবে ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে সিটি কর্পোরেশন স্থাপনকল্পে "বরিশাল সিটি কর্পোরেশন আইন, ২০০১" প্রণীত হয় ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ৫৯ অনুচ্ছেদের উদ্দেশ্য পূরণকল্পে একটি স্থানীয় প্রশাসনিক ইউনিট হিসেবে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এলাকা প্রতিষ্ঠিত হয়৷ এই আইন ২০০২ সালে সংশোধিত হয়ে "বরিশাল সিটি কর্পোরেশন (সংশোধন) আইন ২০০২" প্রণীত হয় ও ২৫ জুলাই ২০০২ আনুষ্ঠানিক ভাবে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত হয় <ref name=":0">{{Cite web|title = বরিশাল সিটি কর্পোরেশন আইন, ২০০১ - (২০০১ সনের ১১ নং আইন|url = http://bdlaws.minlaw.gov.bd/bangla_sections_detail.php?id=853&sections_id=33205|date = ৯ এপ্রিল ২০০১|accessdate = ১২ এপ্রিল ২০১৫|publisher = গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার - লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ}}</ref> ২৫ বর্গকিলোমিটার থেকে বর্ধিত এর আয়তন দাঁড়ায় ৫৮ বর্গকিলোমিটারে।
 
==প্রশাসনিক অবকাঠামো==
৪,৮৫৪টি

সম্পাদনা