"বারাসত" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সম্পাদনা সারাংশ নেই
(বট কসমেটিক পরিবর্তন করছে; কোনো সমস্যা?)
== সড়কপথ ==
 
বারাসাত পেট্রাপোল (বাঙ্গলাদেশ সীমান্ত) থেকে ৫৭ কি মি দুরে অবস্থিত । বারাসাত শহর দিয়ে দুটি জাতীয় সড়ক এর মিলনস্থানে। যার মধ্যে একটি হল যশোহর রোড় ( জাতীয় সড়ক নং-৩৫)। এই রাস্তা দমদম থেকে যশোহর পর্যন্ত যায় এবং ভারত বাঙ্লাদেশ বানিজ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর একটি হল কৃষ্ণনগর রোড় (জাতীয় সড়ক নং-৩৪)। এই সড়ক কলকাতা ও উত্তরবঙ্গের মধ্যে যোগাযোগ রখ্যা করে। এছাড়া টাকি রোড় (বেড়াচাঁপা, বসিরহাট, হাসনাবাদ হয়ে টাকি যায়) ও ব্যারাকপুর রোড়(সুভাষনগর,নীলগঞ্জ বাজার দিয়ে ব্যারাকপুর যায়) বারাসত এর সাথে যোগাযোগ রক্ষাকারী দুটি মূল রাস্তা।
বারাসাত থেকে পেট্রাপোল হল ৫৭ কি মি । বারাসাত শহর দিয়ে দুটি রাস্তা যায় একটি হল যশোহর রোড় ( উল্টডাঙা থেকে পেট্রাপোল ভায়া-বনগাঁ)। আর একটি হল জাতীয় সড়ক নং-৩৮ (কৃষ্ণনগর রোড়) উত্তরবঙেগ যায়। টাকি রোড় ভায়া- বেড়াচাঁপা হয়ে বসিরহাট, হাসনাবাদ এবং টাকি যায়। ব্যারাকপুর রোড় সুভাষনগর,নীলগঞ্জ বাজার দিয়ে ব্যারাকপুর যায়। তিতুমীর বাস টারমিনাল বা চাপাঁডালী বাস টারমিনাল হল এখানকার এক মাত্র বাস টারমিনাল। এখান থেকে দমদম,কেষ্টপুর,বাবুঘাট,সল্টলেক,কৃষ্ণনগর,হাবড়া,ব্যারাকপুর নৈহাটি,অশোকনগর ইত্যাদি জায়গায় যায়। তা ছাড়া বালুরঘাট,জঙ্গীপুর,শিলিগুড়ি তে বাস যায়। এখান থেকে ঢাকা (বাংলাদেশ) এবং থিম্পু (ভুটান) তেও বাস যায়।
তিতুমীর বাস টারমিনাল বা চাপাঁডালী বাস টারমিনাল হল এখানকার এক মাত্র বাস টারমিনাল। এখান থেকে দুটি অার্ন্তজাতিক ঢাকা (বাংলাদেশ) এবং থিম্পু (ভুটান) তেও বাস যায়। তা ছাড়া বালুরঘাট,জঙ্গীপুর,শিলিগুড়ি তে বাস যায়। এখান থেকে দমদম, উল্টোডাঙ্গা, কেষ্টপুর, বাবুঘাট, সল্টলেক, কৃষ্ণনগর, হাবড়া, ব্যারাকপুর, নৈহাটি, অশোকনগর, বনগাঁ ইত্যাদি জায়গায় যায়।
 
== রেলপথ ==
এই শহরে একটিতিনটি স্টেশন-বারাসাত জংশন।জংশন, হৃদয়পুর (বনগাঁ লাইন), কাজীপারা (হাসনাবাদ লাইন)। এই স্টেশন টিগুলি পুর্ব রেলওয়ে শিয়ালদহ মন্ডলে অন্তর্ভূক্ত। এখান থেকে শিয়ালদাহ স্টেশন ২৯ কি মি।
বারাসাত জংশন থেকে একটি লাইন যায় বনগাঁ জংশন-এ। আর একটি লাইন হাসনাবাদ যায় বসিরহাট,টাকি রোড় দিয়ে।হয়ে।
 
== বায়ূপথ ==
২৬টি

সম্পাদনা

পরিভ্রমণ বাছাইতালিকা