বিল প্লেল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বিল প্লেল
বিল প্লেল.png
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামউইলিয়াম রজার প্লেল
জন্ম(১৯৩৮-১২-০১)১ ডিসেম্বর ১৯৩৮
পালমারস্টোন নর্থ, মানাওয়াতু, নিউজিল্যান্ড
মৃত্যু৪ মার্চ ২০১৯(2019-03-04) (বয়স ৮০)
কফস হারবার, নিউ সাউথ ওয়েলস, অস্ট্রেলিয়া[১]
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
সম্পর্কসিরিল ক্রফোর্ড (কাকা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৮৩)
৫ জুন ১৯৫৮ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট১৫ মার্চ ১৯৬৩ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৮৫
রানের সংখ্যা ১৫১ ২৮৮৮
ব্যাটিং গড় ১০.০৬ ২১.৮৭
১০০/৫০ ০/১ ৪/৯
সর্বোচ্চ রান ৬৫ ১২২
বল করেছে - ১১৮
উইকেট -
বোলিং গড় - ৯৪.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং - ১/১১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৪/- ৮১/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১১ এপ্রিল ২০১৯

উইলিয়াম রজার প্লেল (ইংরেজি: Bill Playle; জন্ম: ১ ডিসেম্বর, ১৯৩৮ - মৃত্যু: ৪ মার্চ, ২০১৯) মানাওয়াতুর পালমারস্টোন নর্থ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা নিউজিল্যান্ডীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫৮ থেকে ১৯৬৩ সময়কালে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছিলেন।[১] ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর নিউজিল্যান্ডীয় ক্রিকেটে অকল্যান্ড এবং অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন বিল প্লেল

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

বিল প্লেন ধ্রুপদী ঘরানার ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিতি পেয়েছিলেন। খেলোয়াড়ী জীবনের শুরুতে অকল্যাণ্ডের পক্ষে খেললেও পরবর্তীতে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলেন। ১৯৫৬-৫৭ মৌসুমে ১৮ বছর বয়সে অকল্যান্ডের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটেছিল বিল প্লেলের। দুই মৌসুমে ১৩ খেলায় অংশ নিয়ে তিনি মাত্র ৩৫৫ রান করতে পেরেছিলেন।[২]

১৯৬১-৬২ মৌসুমে ৭২.৮৫ গড়ে ৫১০ রান তুলে শীর্ষস্থানীয় রান সংগ্রাহকে পরিণত হয়েছিলেন তিনি।[৩] তন্মধ্যে, ওতাগোর বিপক্ষে অপরাজিত ১১৬ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে আটটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ লাভ করেছিলেন বিল প্লেলে। মূলতঃ ব্যাটিংয়ের দিকেই দৃষ্টি নিবদ্ধ রাখতেন। ৮টি টেস্ট থেকে ১৫১ রান করতে পেরেছিলেন তিনি।

১৯৫৮ সালে বিস্ময়করভাবে নিউজিল্যান্ড দলের সদস্যরূপে অন্তর্ভূক্ত হন। ১৯৫৮ সালে নিউজিল্যান্ড দলের সাথে ইংল্যান্ড গমন করেন। এ দলটি সর্বকালের দূর্বলতম দলের স্বীকৃতি পেয়েছিল। ১৯ বছর বয়সে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। তবে পাঁচ টেস্টে অংশ নিয়ে মাঝারিসারিতে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ৫৬ রান তুলতে পেরেছিলেন বিল প্লেল। লিডসের হেডিংলি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের তৃতীয় টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে দলের পরাজয় এড়ানোর লক্ষ্যে দূর্দান্ত প্রচেষ্টা চালান ও ধৈর্য্যের চরম পরিচয় দিয়েছিলেন। বাঁধার প্রাচীর গড়ে তুলেছিলেন তিনি। ১৯৪ মিনিট ক্রিজে অবস্থান করে মাত্র ১৮ রান সংগ্রহ করেছিলেন তিনি। এ সময়ে তিনি মাত্র সাতবার স্ট্রোক মেরেছিলেন।[৪] অস্বাভাবিক গ্রীষ্মের ভেজা আবহাওয়ায় বেশ প্রতিকূলতার মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। ২৩ খেলায় মাত্র ৪১৪ রান তুলতে পেরেছিলেন।

১৯৬২-৬৩ মৌসুমে একই দলের বিপক্ষে আরও একটি সিরিজের তিন টেস্টে অংশ নিয়েছিলেন। এ পর্যায়ে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করেছিলেন তিনি। তবে, সিরিজে একবারই কেবলমাত্র ২৫ ঊর্ধ্ব রান সংগ্রহ করতে সক্ষমতা দেখিয়েছিলেন। সফরকারী ইংরেজ দলের বিপক্ষে ওয়েলিংটনে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টেস্টে ৬৫ রান করেছিলেন। অংশগ্রহণকৃত আট টেস্টের মধ্যে এটিই একমাত্র অর্ধ-শতরানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি ও এটিই তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ টেস্ট রান ছিল।

অস্ট্রেলিয়া গমন[সম্পাদনা]

১৯৬৩-৬৪ মৌসুমের পর অস্ট্রেলিয়ার দিকে পাড়ি জমান বিল প্লেল। ১৯৬৫-৬৬ মৌসুম থেকে ১৯৬৭-৬৮ মৌসুমে পর্যন্ত ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার সদস্যরূপে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেন। তন্মধ্যে, ১৯৬৫-৬৬ মৌসুমে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার সদস্যরূপে কুইন্সল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ১২২ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।[৫] একই মৌসুমে ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ১১৬ রান তুলেন। ঐ মৌসুমের শেফিল্ড শিল্ডে ৪১.৬৪ গড়ে ৫৮৩ রান সংগ্রহ করেন।[৬]

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ তারিখে ৮০ বছর বয়সে নিউ সাউথ ওয়েলসের সটেল এলাকায় বিল প্লেলের দেহাবসান ঘটে। তার কাকা সিজি ক্রফোর্ড ও ভাইপো ডিজে প্লেল প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bill Playle, former New Zealand batsman, passes away"। International Cricket Council। ৪ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৯ 
  2. Bill Playle, batting by season
  3. Batting averages 1961–62
  4. Wisden 1959, p. 252.
  5. Western Australia v Queensland 1965–66
  6. Sheffield Shield batting averages 1965–66

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]