বিনাউটি ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
বিনাউটি
ইউনিয়ন
বিনাউটি ইউনিজয় পরিষদ
নাম: বিনাউটি
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ চট্টগ্রাম বিভাগ
জেলা ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলা
উপজেলা কসবা
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইট http://www.benautyup.brahmanbaria.gov.bd

১৯৪০ সালে বিনাউটি ইউনিয়ন প্রতিষ্টিত হয়। বিনাউটি গ্রামের নামে এই ইউনিয়নের নামকরন করা হয়. রাউৎহাট নামক গ্রামে এক সুন্দর পরিবেশে এই ইউনিয়ন টি অবস্খিত । ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাধীন কসবা উপজেলাস্ত ৫নং বিনাউটি ইউনিয়ন পরিষদটি কুমিললা-সিলেট মহাসড়কের সৈয়দাবাদ বাসষ্টেন্ডেরঅনতিদুরে প্রাচীন কালের ঐতিহ্যবাহী রাউৎহাট বাজারের দক্ষিণ পাশে একটি মনোরম পরিবেশে জনবহুল এলাকায় অবস্থিত। বিনাউটি গ্রামের নামানুসারে এই ইউনিয়নটির নাম বিনাউটি নামকরন করা হয় বলে প্রতিয়মান হয়। শিক্ষা সাহিত্য সংস্কৃতি আর ব্যবসা বানিজ্যে পরিপূর্ন এই ইউনিয়নটি। হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে এক সোহার্ধ পূর্ন মনোভাবের এক মিলন মেলার বহি প্রকাশ। ইউনিয়নটির উত্তরে ধরখার ইউনিয়ন, দক্ষিণে কসবা পৌরনসভা, পশ্চিমে বাদৈর ইউনিয়ন, পূর্বে গোপীনাথপুর ইউনিয়ন। অত্র ইউনিয়নে নৌ ও স্থল পথে যাতায়ত অত্যন্ত সুবিধাজনক।[১]

ধরন[সম্পাদনা]

  • ইউনিয়ন পরিষদ।

প্রতিষ্ঠাকাল[সম্পাদনা]

  • ১৯৪০ সাল।[২]

গ্রামসমূহের তালিকা[সম্পাদনা]

সৈয়দাবাদ, হাজীপুর, মনিচং, চান্দাইসার, রাউৎহাট, খিদিরপুর, আন্দিরপাড়, বিনাউটি, নেমতাবাদ, গাববাড়ী, ধামসার, নোয়াপাড়া(১), ভরাজাঙ্গাল, চন্দ্রপুর, মজলিশপুর, ব্রাহ্মণগ্রাম, অনন্তপুর, আদ্রা, চাপিয়া, টিঘরিয়া, নোয়াপাড়া (২), চকচন্দ্রপুর, দুরুইল।[৩]

ভাষা ও সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

এখানকার ভাষায় আঞ্চলিক শব্দের ব্যবহার লক্ষণীয়। যেমন: আমি ভাত খাইব এর বিপরীতে বলা হয় আমি ভাত খামু,এখন বিপরিতে বলে অক্ষন, গোসল এর বিপরীতে বলে বোর পাড়া, কোনসময় এর বিপরীতে কুমবালা ইত্যাদি।[৪]

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. "এক নজরে বিনাউটি ইউনিয়ন"www.benautyup.brahmanbaria.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৮ 
  2. "বিনাউটি ইউনিয়নের ইতিহাস"www.benautyup.brahmanbaria.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৮ 
  3. "গ্রামসমূহের তালিকা"www.benautyup.brahmanbaria.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৮ 
  4. "ভাষা ও সংস্কৃতি - বিনাউটি ইউনিয়ন-NULL"www.benautyup.brahmanbaria.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৮