বিটিএস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বিটিএস
‘LG Q7 BTS 에디션’ 예약 판매 시작 (42773472410) (cropped).jpg
বিটিএস ২০১৮ সালে এলজি ইলেকট্রনিক্স-এ বামদিক থেকে: ভি, জে-হোপ, আরএম, জিন, জিমিন, জংকুক, সুগা
প্রাথমিক তথ্য
আরো যে নামে
পরিচিত
  • বাংতান বয়েজ
  • বাংতান সোনিয়োন্দান
  • বিঅন্ড দ্য স্যিন
  • বুলেটপ্রুফ বয় স্কাউটস
উদ্ভবসিওল, দক্ষিণ কোরিয়া
ধরনকে-পপ, হিপ হপ, আরএন্ডবি, ইডিএম
কার্যকাল২০১৩-বর্তমান
ওয়েবসাইটbts.ibighit.com
সদস্যবৃন্দ

লিডার/র‍্যাপার/ডান্সার

ভোকাল/ ভিজ্যুয়াল /ডান্সার

লিড র‍্যাপার/ডান্সার

র‍্যাপার/ডান্সার

মেন ভোকাল/ ডান্সার

ভোকাল/ ভিজ্যুয়াল/ডান্সার

ডান্সার/ লিড ভোকাল

বিটিএস (কোরীয়: 방탄소년단) (যারা বাংতান বয়েজ নামেও পরিচিত,) হলো ৭ সদস্যের দক্ষিণ কোরিয়ান বয় ব্যান্ড। এ ৭ সদস্যের ব্যান্ড বিগহিট মিউজিক এর অধীনে ২০১০ সালে ট্রেনি হিসেবে এবং ২০১৩ সালে ২ কুল ৪ স্কুল অ্যালবাম নিয়ে পুরো বিশ্বের সামনে নিজেদের আত্মপ্রকাশ করে। তারা মূলত হিপ হপ সঙ্গীতের গ্রুপ হলেও তাদের গানগুলোতে বিভিন্ন সঙ্গীতের ধরন প্রকাশ পায়। গানের মাধ্যমে তারা সাহিত্য, মনোস্তাত্বিক বিষয় এবং নিজেকে ভালোবাসার গুরুত্ব  তুলে ধরে।

নিজেদের আত্মপ্রকাশের পর ২০১৪ সালে প্রকাশ করে তাদের প্রথম কোরিয়ান স্টুডিও অ্যালবাম ডার্ক এন্ড ওয়াইল্ড এবং জাপানিজ স্টুডিও অ্যালবাম ওয়েক আপ। তাদের দ্বিতীয় স্টুডিও অ্যালবাম উইংস (২০১৬), ব্যান্ডের প্রথম অ্যালবাম যার ১ মিলিয়ন কপি বিক্রি হয়েছে কোরিয়ায়। ২০১৭ সালে পুরো বিশ্বের সংঙ্গীত জগৎ এ নিজেদের স্থান করে নেয় তারা। লাভ ইয়োরসেল্ফ: হার (২০১৭) আলব্যামটি আলোরণ শুরু করে পুরো বিশ্বে। তারা প্রথম কোরিয়ান গ্রুপ রেকর্ডিং ইন্ডাস্ট্রি এসোসিয়েশন অফ আমেরিকা থেকে সার্টিফিকেট গ্রহণ করে "মাইক ড্রপ" গানটির জন্য এবং লাভ ইয়োরসেল্ফ: টিয়ার (২০১৮) অ্যালবাম 'বিলবোর্ড ২০০ চার্টে' প্রথম হয়।[১][২]

ডিস্কোগ্রাফী[সম্পাদনা]

কোরিয়ান স্টুডিও এ্যালবামসমূহ[সম্পাদনা]

  • ডার্ক অ্যান্ড ওয়াইল্ড (২০১৪)[৩]
  • উইংস (২০১৬)[৪]
  • লাভ ইওরসেল্ফ: টিয়ার (২০১৮)[৫]
  • ম্যাপ অফ দ্য সোল: ৭ (২০২০)[৬]
  • বি (২০২০)[৭]

জাপানি স্টুডিও এ্যালবামসমূহ[সম্পাদনা]

  • ওয়েকাপ (২০১৪)
  • ইউথ (২০১৬)
  • ফ্যাস ইওরসেল্ফ (২০১৮)
  • ম্যাপ অফ দ্য সোল: ৭ – দি জার্নি (২০২০)

সফরসমূহ[সম্পাদনা]

  • দ্য রেড বুলেট ট্যুর (২০১৪–২০১৫)
  • ওয়েকাপ: ওপেন ইওর আয়েস্ জাপান ট্যুর (২০১৫)
  • দ্য মোস্ট বিউটিফুল মোমেন্ট ইন লাইফ অন স্টেজ ট্যুর (২০১৫–২০১৬)
  • দ্য উইংস ট্যুর (২০১৭)
  • লাভ ইওরসেল্ফ ওয়ার্ল্ড ট্যুর (২০১৮–২০১৯)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "BTS"। Big Hit Entertainment। ২০১৯-০৩-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৭-২৩ 
  2. "BTS Debut New Album 'Love Yourself: Tear' At No. 1, Becoming The First K-Pop Act To Do So"Forbes.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৮, ২০১৮ 
  3. "Dark&Wild by BTS on iTunes" (ইংরেজি ভাষায়)। iTunes। 
  4. "방탄소년단, 'WINGS' 트랙리스트...멤버 전원 솔로곡 수록" (কোরীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ মে ১৯, ২০১৮ 
  5. "BTS Announce New Full-Length Album 'Love Yourself: Tear' To Be Released in May" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৭, ২০১৮ 
  6. "BTS Ambitiously Show off Their Pop Mastery On 'Map of the Soul: 7'" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২৪, ২০২০ 
  7. "BTS to Release New Album, 'BE (Deluxe Edition),' in November" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২৪, ২০২০