বাসুকীনাথ রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন
ভারতীয় রেল স্টেশন
Basukinath railway station entrance.jpg
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানবাসুকিনাথ, দুমকা জেলা, ঝাড়খণ্ড ৮১৪১১৮
 ভারত
স্থানাঙ্ক২৪°২৩′০৩″ উত্তর ৮৭°০৪′০৫″ পূর্ব / ২৪.৩৮৪৩° উত্তর ৮৭.০৬৮১° পূর্ব / 24.3843; 87.0681
উচ্চতা২০৭ মিটার (৬৭৯ ফু)
মালিকানাধীনভারতীয় রেল
পরিচালিতপূর্ব রেল
লাইনজাসিডিহ-দুমকা-রামপুরহাট রেলপথ
প্ল্যাটফর্ম
রেলপথ
সংযোগসমূহদেওঘর, দুমকা
নির্মাণ
গঠনের ধরনমানক
পার্কিংCar parking আছে
অন্য তথ্য
অবস্থাসক্রিয়
স্টেশন কোডBSKH
অঞ্চল পূর্ব রেল
বিভাগ আসানসোল রেলওয়ে বিভাগ
ইতিহাস
চালু২০১১
বৈদ্যুতীকরণনা
অবস্থান
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন ঝাড়খণ্ড-এ অবস্থিত
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন
ঝাড়খণ্ডের মানচিত্র #ভারতের মানচিত্র
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন ভারত-এ অবস্থিত
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন
বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন
ঝাড়খণ্ডের মানচিত্র #ভারতের মানচিত্র

বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন (স্টেশন কোড BSKH) ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের দুমকা জেলার বাসুকিনাথ শহরে জাসিডিহ-রামপুরহাট সেকশনে অবস্থিত। এটি ভারতীয় রেলওয়ের পূর্ব রেলওয়ে জোনের আসানসোল বিভাগে অবস্থিত। এটির গড় উচ্চতা ২০৭ মিটার (৬৭৯ ফু) ।

ঝাড়খণ্ডের সাঁথাল পরগনা বিভাগের দেওঘর জেলার জাসিডিহ জংশন থেকে পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার রামপুরহাট পর্যন্ত একক ব্রডগেজ রেলপথ। দুমকা যাওয়ার এই রেলপথটি সাঁওতাল পরগনা বিভাগের জন্য একটি সুবিধাজনক স্থান।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বাসুকিনাথ রেলওয়ে স্টেশন চালু হয় ২০১১ সালে। ৭২ কিমি (৪৫ মা) জাসিডিহ থেকে দুমকা পর্যন্ত অংশটি ১২ জুলাই ২০১১ সালে চালু হয়।[১] এই রেললাইনটি ১৯৯৭-৯৮ রেলওয়ে বাজেটে অনুমোদিত হয় কিন্তু ২০০২ সালের পর জমি অধিগ্রহণের কাজ শুরু হয় এবং ২০০৭ সালের পর বড় নির্মাণ শুরু হয়। দুমকা এবং রাঁচির মধ্যে প্রথম আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১২-এ বাসুকিনাথে থামে। এটি বৃহস্পতিবার এবং রবিবার ছাড়া সপ্তাহে পাঁচ দিন চলে।

বর্তমান প্রকল্প[সম্পাদনা]

বাসুকিনাথ এবং চিত্রার মধ্যে চলমান নতুন রেলপথ তৈরির সমীক্ষা ভারতীয় রেলওয়ে দ্বারা নেওয়া হয়েছে।

ট্রেন[সম্পাদনা]

বাসুকিনাথে জাসিডিহ জংশন এবং দুমকার মধ্যে তিনটি যাত্রীবাহী ট্রেন চলে। দুমকা এবং রাঁচির মধ্যে একটি আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেনও প্রতিদিন বাসুকিনাথে থামে।

সু্যোগ - সুবিধা[সম্পাদনা]

বাসুকিনাথ স্টেশনে পাওয়া প্রধান সুবিধাগুলি হল ওয়েটিং রুম, কম্পিউটারাইজড রিজার্ভেশন সুবিধা, রিজার্ভেশন কাউন্টার এবং গাড়ি পার্কিং। স্টেশনটিতে টয়লেট, রিফ্রেশমেন্ট রুম, একটি চায়ের স্টল এবং একটি বইয়ের স্টল রয়েছে।

প্ল্যাটফর্ম[সম্পাদনা]

মোট ২টি প্ল্যাটফর্ম এবং ৩টি ট্র্যাক রয়েছে৷ প্ল্যাটফর্মগুলো ফুট ওভারব্রিজের মাধ্যমে সংযুক্ত। এই প্ল্যাটফর্মগুলি ২৪টি কোচ সমৃদ্ধ এক্সপ্রেস ট্রেন ধারণ করতে পারে।

স্টেশন বিন্যাস[সম্পাদনা]

জি রাস্তায় স্তর প্রস্থান/প্রবেশ এবং টিকিট কাউন্টার
পৃ 1 FOB, সাইড প্ল্যাটফর্ম, নং-1 দরজা বাম/ডানে খুলবে
ট্র্যাক 1
ট্র্যাক 2
ট্র্যাক 3
FOB, আইল্যান্ড প্ল্যাটফর্ম, নং- 2 দরজা বাম/ডানে খুলবে

ট্র্যাক বিন্যাস[সম্পাদনা]

Basukinath track layout
1
2
Station with three tracks and two side platforms

নিকটবর্তী বিমানবন্দর[সম্পাদনা]

স্টেশনের নিকটতম বিমানবন্দরগুলি হচ্ছে রাঁচির বিরসা মুন্ডা বিমানবন্দর, গয়া বিমানবন্দর, পাটনার লোক নায়ক জয়প্রকাশ বিমানবন্দর এবং কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dumka–Jasidih trains"The Telegraph। Kolkata। ১২ জুন ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১২