বার্নার্ড জুলিয়েন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বার্নার্ড জুলিয়েন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামবার্নার্ড ডেনিস জুলিয়েন
জন্ম (1950-03-13) ১৩ মার্চ ১৯৫০ (বয়স ৬৯)
কারেনেজ, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো লেফট-আর্ম
বামহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১৪৮)
২৬ জুলাই ১৯৭৩ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট১৮ মার্চ ১৯৭৭ বনাম পাকিস্তান
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ )
৫ সেপ্টেম্বর ১৯৭৩ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ ওডিআই১৬ মার্চ ১৯৭৭ বনাম পাকিস্তান
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৬৮–১৯৮২ত্রিনিদাদ ও টোবাগো
১৯৭০–১৯৭৭কেন্ট
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ২৪ ১২ ১৯৫ ১১৫
রানের সংখ্যা ৮৬৬ ৮৬ ৫,৭৯০ ১,৪৫০
ব্যাটিং গড় ৩০.৯২ ১৪.৩৩ ২৪.৫৩ ১৮.৩৫
১০০/৫০ ২/৩ ০/০ ৩/২৭ ১/৩
সর্বোচ্চ রান ১২১ ২৬* ১২৭ ১০৪
বল করেছে ৪,৫৪২ ৭৭৮ ২৯,০২৫ ৫,৪৫০
উইকেট ৫০ ১৮ ৪৮৩ ১৫৩
বোলিং গড় ৩৭.৩৬ ২৫.৭২ ২৮.৭১ ২১.৯৭
ইনিংসে ৫ উইকেট ১৫
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৫/৫৭ ৪/২০ ৯/৯৭ ৫/২১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৪/– ৪/– ১২৬/– ২৮/–
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ৪ জানুয়ারি ২০১৮

বার্নার্ড ডেনিস জুলিয়েন (ইংরেজি: Bernard Julien; জন্ম: ১৩ মার্চ, ১৯৫০) ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর কারেনেজ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর প্রতিনিধিত্ব করেছেন। এছাড়াও, কেন্টের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি স্লো লেফট-আর্ম কিংবা বামহাতে ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিং করতেন বার্নার্ড জুলিয়েন

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২৬ জুলাই, ১৯৭৩ তারিখে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে বার্নার্ড জুলিয়েনের। লর্ডসে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মনোরম সেঞ্চুরি করতে পেরেছিলেন তিনি। এর অল্প কিছুদিন পর ৫ সেপ্টেম্বর তারিখে একই দলের বিপক্ষে ওডিআই অভিষেক ঘটে তাঁর। ১৯৭৫ সালে অনুষ্ঠিত ক্রিকেট বিশ্বকাপের উদ্বোধনী আসরে খেলার সুযোগ হয় তাঁর।[১] ঐ প্রতিযোগিতায় ক্লাইভ লয়েডের নেতৃত্বাধীন ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল শিরোপা লাভ করে। ১৯৭৬ সাল শেষে বিশ্বের ১নং ওডিআই খেলোয়াড়ের মর্যাদা লাভ করেন বার্নার্ড জুলিয়েন।

বিতর্ক[সম্পাদনা]

১৯৭৭ সালে ক্যারি প্যাকারের ব্যবস্থাপনায় বিশ্ব সিরিজ ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন। ১৯৮২-৮৩ ও ১৯৮৩-৮৪ মৌসুমে তৎকালীন বিশ্ব ক্রিকেট অঙ্গনে নিষিদ্ধ ঘোষিত দক্ষিণ আফ্রিকায় সফরের ফলে বার্নার্ড জুলিয়েনের খেলোয়াড়ী জীবনের সমাপ্তি ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


আরও দেখুন[সম্পাদনা]