বার্থোলিনের সিস্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বার্থোলিনের সিস্ট
অন্যান্য নামবার্থোলিনাইটিস, বার্থোলিনের নালীর সিস্ট, বার্থোলিনের ফোড়া
Barthonlincyst2011.png
ডানদিকের বার্থোলিনের সিস্ট
বিশেষায়িত ক্ষেত্রস্ত্রীরোগবিদ্যা
উপসর্গযোনির একদিক ফুলে যাওয়া, ব্যাথা[১]
জটিলতাফোড়া[২]
সূত্রপাতশিশু ধারণক্ষম বয়স[২]
কারণসমূহসাধারণত অজানা[১]
রোগনির্ণয়লক্ষণ এবং পরীক্ষার উপর ভিত্তি করে[১]
একই উপসর্গের ভিন্ন রোগসেবাসিয়াস সিস্ট, হার্নিয়া, হাইড্রাডেনটাইটিস সাপারেটিভা, ফলিকিউলাইটিস, ভালভার ক্যান্সার[৩][৪]
চিকিৎসাএকটি ওয়ার্ড ক্যাথিটার লাগানো, কর্তন এবং নিষ্কাশন, মার্সুপিয়ালাইজেশন, সিটজ বাথস[১][৩]
ব্যাপকতার হার২% মহিলা[২]

ল্যাবিয়া র মধ্যে অবস্থিত বার্থোলিনের গ্রন্থি বন্ধ হয়ে গেলে বার্থোলিনস সিস্ট দেখা যায়।[১] কয়েকটি উপসর্গে কিছু ছোট সিস্ট তৈরী হতে পারে.[১] যোনির একপাশে ফুলে গিয়ে বড় সিস্টগুলি তৈরী হতে পারে, এবং চলাফেরা ও সহবাসে ব্যথা হয়।[১] যদি সিস্ট সংক্রামিত হয় তাহলে ফোড়া জন্মায়।[২] এইগুলি বিশেষ করে লাল এবং খুব বেদনাদায়ক হয়।[২]

কারণ সাধারণত অজানা।[১] ফোড়া হয়েছে, অর্থাৎ একটি ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ ঘটেছে, কিন্তু এটি সাধারণত যৌনবাহিত রোগ (এসটিআই) নয়।[৫] কদাচিৎ গনোরিয়া হয়ে থাকতে পারে।[১][৪] সাধারণত লক্ষণ এবং পরীক্ষার উপর ভিত্তি করে রোগনির্ণয় করা হয়।[১] যাদের ৪০ এর ওপর বয়স, তাদের জন্য টিস্যু বায়োপ্সি সুপারিশ করা হয় ক্যান্সার এর সন্দেহ বাতিল করার জন্য।[১][৩] কোন উপসর্গ না থাকলে, সাধারণত কোন চিকিৎসার প্রয়োজন হয়না।[১][২] উপসর্গ যাদের আছে, তাদের জন্য নিষ্কাশন নির্দিষ্ট করা হয়।[২] প্রচলিত পদ্ধতি হল চার সপ্তাহের জন্য ওয়ার্ড ক্যাথিটার সন্নিবিষ্ট করা, কারণ সাধারণ কর্তন এবং নিষ্কাশন এর পর এটি বারবার ঘটা খুব সাধারণ।[২][৩] মারসুপিয়ালাইজেশন নামক একটি অস্ত্রোপচার পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়, অথবা যদি সমস্যা থেকে যায়, পুরো গ্রন্থিটি অপসারণ করা যেতে পারে।[২] ক্যান্সার নেই নিশ্চিত করার জন্য ৪০ বছরের চেয়ে বেশি বয়সীদের জন্য কখনও কখনও অপসারণ সুপারিশ করা হয়।[২] সাধারণত অ্যান্টিবায়োটিক এর প্রয়োজন পড়েনা।[২]

দুই শতাংশ মহিলা তাঁদের জীবনের কোনও না কোনও সময়ে বার্থোলিনের সিস্টে আক্রান্ত হন।[২] মহিলাদের শিশুধারণক্ষম বয়সে এটি বেশি দেখা যায়।[২] এই রোগের নামকরণ করা হয়েছে ক্যাস্পার বার্থোলিন এর নামে, যিনি ১৬৭৭ সালে গ্রন্থগুলি সঠিকভাবে বর্ণনা করেছিলেন।[৬] ১৯৬৭ সালে বুফোর্ড ওয়ার্ড এই রোগের অন্তর্নিহিত প্রক্রিয়া নির্ধারণ করেছিলেন।[৬][৭]

লক্ষণ ও উপসর্গ[সম্পাদনা]

অধিকাংশ বার্থোলিনের সিস্টে কোন উপসর্গ থাকেনা, যদিও কয়েকটি ক্ষেত্রে হাঁটা, বসা,[২] বা যৌন মিলনের (ডিসপেরুনিয়া) সময় ব্যথা হতে পারে।[৮] এগুলি সাধারণত ১ থেকে ৪ সেমির মধ্যে হয়, এবং লেবিয়া মাইনরার মধ্যম অংশে অবস্থিত হয়। অধিকাংশ বার্থোলিনের সিস্টে শুধুমাত্র বাম দিক অথবা ডানদিকে হয় (একতরফা)। ছোট সিস্ট থেকে সাধারণত ব্যথা হয় না, তবে খুব বড় সিস্ট বিশেষ ব্যথা সৃষ্টি করতে পারে।

প্যাথোফিজিওলজি[সম্পাদনা]

বার্থোলিনের গ্রন্থিকে যে নল পরিস্রুত করে সেটি যখন বন্ধ হয়ে যায় তখন গ্রন্থিতে সিস্ট তৈরী হয়।[৮] কোন সংক্রমণ অথবা মিউকাস প্লাগ থেকে এই বাধা তৈরী হতে পারে।[৮] বার্থোলিনের গ্রন্থি থেকে ক্ষরণ জমে যায় এবং সিস্ট তৈরী করে।[২]

রোগ নির্ণয়[সম্পাদনা]

একইরকম অন্য অবস্থাগুলি হল হাইড্রেডেনোমা প্যাপিলিফেরাম, লাইপোমা সমূহ, এপিডারময়েড সিস্ট এবং স্কিনের নলে সিস্ট সমূহ ইত্যাদি।[২] ক্যান্সার নেই নিশ্চিত করার জন্য ৪০ বছরের চেয়ে বেশি বয়সীদের জন্য কখনও কখনও বায়োপ্সি করার সুপারিশ করা হয়।[২]

চিকিৎসা[সম্পাদনা]

বার্থোলিনের সিস্টে কোন উপসর্গ না থাকলে চিকিৎসা করার দরকার পড়েনা। ছোট, উপসর্গহীন সিস্টগুলিতে কোন পরিবর্তন হচ্ছে কিনা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে লক্ষ্য রাখা যেতে পারে। যে ক্ষেত্রে হস্তক্ষেপ প্রয়োজন, একটি ক্যাথিটার বসিয়ে সিস্টের নিষ্কাশন করা হতে পারে, অথবা অস্ত্রোপচার করে সিস্টটি খুলে একটি স্থায়ী থলি তৈরি করা যেতে পারে (মারসুপিয়ালাইজেশন)। যেকোন পদ্ধতি ব্যবহার হোকনা কেন, ফোলা ও অস্বস্তি কমাতে এবং একটি অবাধ নিষ্কাশন-নালীর চেহারা দিতে, হস্তক্ষেপ করে সফলতার মাত্রা ৮৫%। [৯]

ক্যাথিটারাইজেশন একটি সরল পদ্ধতি, যেটি একটি অফিস সেটিং এও করা যেতে পারে। শেষপ্রান্তে বেলুন সহ একটি ছোট টিউব (ওয়ার্ড ক্যাথিটার বলা হয়) সিস্টের মধ্যে ঢোকানো হয়।[২] এরপর ঠিক জায়গায় রাখার জন্য বেলুনটি ফোলান হয়। ক্যাথিটারটি ওই জায়গায় ২ থেকে ৪ সপ্তাহ থাকে, তরল নিষ্কাশিত করে এবং গ্রন্থির স্বাভাবিক নিকাশি মুখ তৈরী করে, তারপরে ক্যাথিটারটি সরিয়ে দেওয়া হয়। ক্যাথিটারটি সাধারণত স্বাভাবিক কার্যকলাপে বাধা হয়ে দাঁড়ায় না, কিন্তু ক্যাথিটার জায়গায় থাকার সময় যৌন সম্পর্ক বন্ধ রাখা হয়।

মারসুপিয়ালাইজেশন এমন একটি পদ্ধতি যেখানে সিস্টগুলি স্থায়ীভাবে খোলা হতে পারে,[১০] এবং নিষ্কাশন পথ খোলা রাখার জন্য সেলাই করে গ্রন্থির একটি মুখ তৈরী করা হয়।

যদি সিস্টটি সংক্রামিত থাকে, এটি খুলে দেওয়া হয় এবং ৩ থেকে ৪ দিন পর নিজেই নিরাময় হতে শুরু করে। চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ছাড়া ব্যথার ঔষধ যেমন আইবুপ্রোফেন থেকে ব্যথা মুক্তি হয়, এবং সিটজ বাথ করলে আরাম মিলতে পারে। গরম সেঁক দিলে নিরাময় তাড়াতাড়ি হয়। বার্থোলিনের গ্রন্থিতে ফোড়া বারবার ফিরে এলে, অস্ত্রোপচার করে গ্রন্থি এবং নল সরানো যেতে পারে।

পূর্বাভাস[সম্পাদনা]

যদিও বার্থোলিনের সিস্ট বেশ বেদনাদায়ক হয়, কিন্তু তারা বিপদজনক নয়। নতুন সিস্ট গঠন হওয়া থেকে একেবারে প্রতিরোধ করা যাবে না, কিন্তু অস্ত্রোপচার বা লেসার করে সিস্ট অপসারণ করলে একই জায়গায় একটি নতুন সিস্ট গঠন হবে সেই সম্ভাবনা কম থাকে। যাদের একবার সিস্ট হয়েছে, তাদের আবার হবার সম্ভাবনা যাদের হয়নি তাদের থেকে বেশি। সিস্টগুলি প্রতি কয়েক বছরে বা প্রায়শই ফিরে আসে। যে মহিলাদের মারসুপিয়ালাইজেশন হয়েছে তাঁদের ক্ষেত্রে পুনরাবৃত্তি ধীর হতে পারে, কিন্তু একেবারে বন্ধ হয়না।

রোগের প্রকোপ[সম্পাদনা]

দুই শতাংশ মহিলা তাঁদের জীবনের কোনও না কোনও সময়ে বার্থোলিনের গ্রন্থির সিস্টে আক্রান্ত হন।[২] এগুলি হয় ০.৫৫ প্রতি ১০০০ ব্যক্তি-বছর হারে এবং ৩৫-৫০ বছর বয়সী মহিলাদের মধ্যে ১.২১ প্রতি ১০০০ ব্যক্তি-বছর হারে।[১১] বার্থোলিন নালীর সিস্ট হবার ঘটনা রজোনিবৃত্তি পর্যন্ত বয়সের সঙ্গে বাড়ে, এবং তারপর কমে যায়।[১১] সাদা এবং কালো মহিলাদের থেকে হিস্পানিক মহিলারা বেশি আক্রান্ত হতে পারেন এই রোগে। [২] বার্থোলিনের গ্রন্থির সিস্ট হবার ঝুঁকি সন্তানের জন্ম সংখ্যার সঙ্গে বেড়ে যায়।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bartholin Gland Cysts"Merck Manuals Professional Edition। সংগ্রহের তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. Omole, Folashade; Simmons, Barbara J.; Hacker Yolanda (২০০৩)। "Management of Bartholin's duct cyst and gland abscess"American Family Physician68 (1): 135–40। PMID 12887119 
  3. Lee, MY; Dalpiaz, A; Schwamb, R; Miao, Y; Waltzer, W; Khan, A (মে ২০১৫)। "Clinical Pathology of Bartholin's Glands: A Review of the Literature."Current Urology8 (1): 22–5। doi:10.1159/000365683PMID 26195958পিএমসি 4483306অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  4. Ferri, Fred (২০১৭)। Ferri's clinical advisor 2018 : 5 books in 1। Elsevier Canada। পৃষ্ঠা 175। আইএসবিএন 978-0323280495 
  5. Marx, John A. Marx (২০১৪)। "Skin and Soft Tissue Infections"। Rosen's emergency medicine : concepts and clinical practice (8th সংস্করণ)। Philadelphia, PA: Elsevier/Saunders। পৃষ্ঠা Chapter 137। আইএসবিএন 1455706051 
  6. Knaus, John V.; Isaacs, John H. (২০১২)। Office Gynecology: Advanced Management Concepts (ইংরেজি ভাষায়)। Springer Science & Business Media। পৃষ্ঠা 266। আইএসবিএন 9781461243403 
  7. Williams Gynecology (2 সংস্করণ)। McGraw Hill Professional। ২০১২। পৃষ্ঠা 1063। আইএসবিএন 9780071804653 
  8. Eilber, Karyn Schlunt; Raz, Shlomo (সেপ্টেম্বর ২০০৩)। "Benign Cystic Lesions of the Vagina: A Literature Review"। The Journal of Urology170 (3): 717–722। doi:10.1097/01.ju.0000062543.99821.a2PMID 12913681 
  9. Bartholin's cyst from BestPractice, BMJ Publishing Group. Last updated: Apr 26, 2013
  10. Haider Z, Condous G, Kirk E, Mukri F, Bourne T (এপ্রিল ২০০৭)। "The simple outpatient management of Bartholin's abscess using the Word catheter: a preliminary study"। Aust N Z J Obstet Gynaecol47 (2): 137–140। doi:10.1111/j.1479-828X.2007.00700.xPMID 17355304 
  11. Yuk, Jin-Sung; Kim, Yong-Jin; Hur, Jun-Young; Shin, Jung-Ho (২০১৩)। "Incidence of Bartholin duct cysts and abscesses in the Republic of Korea"। International Journal of Gynecology & Obstetrics122 (1): 62–4। doi:10.1016/j.ijgo.2013.02.014PMID 23618035 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]