বানৌজা খালিদ বিন ওয়ালিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jiaxing1.jpg
চীনা নৌবাহিনীর একটি টাইপ ০৫৩এইচ৩ ফ্রিগেট
শ্রেণি'র সারাংশ
নাম: বানৌজা খালিদ বিন ওয়ালিদ
ব্যবহারকারী:  বাংলাদেশ নৌবাহিনী
পূর্বসূরী: টাইপ ০৫৩এইচ২জি
উত্তরসূরী অনুযায়ী: টাইপ ০৫৪
উপশ্রেণী: জুলফিকার শ্রেণির ফ্রিগেট
পরিকল্পিত: ১০
সাধারণ বৈশিষ্ট্য
প্রকার: ফ্রিগেট
ওজন:
  • ২২৫০ টন আদর্শ
  • ২৩৯৩ টন সর্বোচ্চ লোড
দৈর্ঘ্য: ১১২ মি (৩৬৭ ফু ৫ ইঞ্চি)
প্রস্থ: ১২.৪ মি (৪০ ফু ৮ ইঞ্চি)
গভীরতা: ৪.৩ মি (১৪ ফু ১ ইঞ্চি)
প্রচালনশক্তি:
  • কম্বাইন্ড ডিজেল অ্যান্ড ডিজেল, ২ শ্যাফট
  • ২ x ১৮ই৩৯০ভিএ ডিজেল, ২৩,৬০০ অশ্বশক্তি (১৭,৬০০ কিওয়াট)
  • ২ x এমটিইউ ডিজেল, ৮,৭১৫ অশ্বশক্তি (৬,৪৯৯ কিওয়াট)
গতিবেগ: ২৮ নট (৫২ কিমি/ঘ; ৩২ মা/ঘ)[১]
সীমা: ৫,০০০ নটিক্যাল মাইল (৯,৩০০ কিমি; ৫,৮০০ মা), ১৫ থেকে ১৬ নট (২৮ থেকে ৩০ কিমি/ঘ) গতিতে
লোকবল: ১৬৮ (৩০ অফিসার)
সেন্সর এবং
কার্যপদ্ধতি:
  • টাইপ ৩৬০ (এসআর৬০) সমূদ্রপৃষ্ঠ অনুসন্ধান রাডার, ই/এফ ব্যান্ড
  • টাইপ ৫১৭এইচ-১ (নাইফ রেস্ট) দ্বিমাত্রিক দূরপাল্লার আকাশ অনুসন্ধান রাডার, এ ব্যান্ড
  • টাইপ ৩৪৫ (এমআর ৩৫) এফএম-৯০ আকাশ প্রতিরক্ষা ক্ষেপনাস্ত্র ও ১০০ মিমি কামান নিয়ন্ত্রণ রাডার, জে ব্যান্ড
  • টাইপ ৩৫২ (স্কয়ার টাই) সমুদ্রপৃষ্ঠ অনুসন্ধান এবং জাহাজবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ন্ত্রণ রাডার, আই-ব্যান্ড
  • ২ × টাইপ ৩৪৭জি/ইএফআর-১ (রাইস ল্যাম্প) দ্বৈত ৩৭ মিমি বিমান-বিধ্বংসী কামান নিয়ন্ত্রণ রাডার, আই-ব্যান্ড
  • ২ × রাকাল আরএম-১২৯০ নৌচালনা রাডার, আই-ব্যান্ড
যান্ত্রিক যুদ্ধাস্ত্র
ও ফাঁদ:
  • ডাটা লিংকঃ এইচ এন-৯০০
  • যোগাযোগ: এসএনটিআই-২৪০ ( স্যাটকম)
  • কম্ব্যাট ডাটা সিস্টেমঃ জেডকেজে-৩সি
  • আরডাব্লিউডি-৮ (জুগ পেয়ার) ইন্টারসেপ্ট
  • টাইপ ৯৮১-৩ ইডাব্লিউ জ্যামার
  • এসআর-২১০ রাডার ওয়ার্নিং রিসিভার
  • টাইপ ৬৫১এ আইএফএফ
রণসজ্জা:
  • ২ × ৪ সি-৮০২এ জাহাজবিধ্বংসী ক্ষেপনাস্ত্র
  • ১ × ৮ এফএম-৯০ আকাশ প্রতিরক্ষা ক্ষেপনাস্ত্র
  • ১ × পিজে ৩৩এ দ্বৈত ১০০ মিমি কামান
  • ৪ × টাইপ ৭৬ দ্বৈত ৩৭ মিমি বিমান-বিধ্বংসী কামান
  • ২ × ৬-টিউব টাইপ ৩২০০ ডুবোজাহাজ-বিধ্বংসী রকেট লঞ্চার
  • ২ × ডেপথ চার্জ র‍্যাকস
  • ২ × টাইপ ৯৪৬/পিজে-৪৬ ১৫ ব্যারেল ডিকয় রকেট লঞ্চার
বিমান বহন: হারবিন জেড-৯সি
বিমানচালানর সুবিধাসমূহ: হ্যাঙ্গার

বানৌজা খালিদ বিন ওয়ালিদ হলো বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে যুক্ত হতে যাওয়া একটি টাইপ ০৫৩এইচ৩ ফ্রিগেট[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

জাহাজটি পুটিয়ান নামে চীনের নৌবাহিনীতে যুক্ত ছিল। প্রথম কমিশন করা হয় ডিসেম্বর ১৯৯৯ সালে। এইসময় জাহাজটির পেটেন্ট নাম্বার ছিল ৫২৩। পরবর্তীতে এটি বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কাছে বিক্রি করা হয় বানৌজা খালিদ বিন ওয়ালিদ নামে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর পেটেন্ট নাম্বার ফ-২০।[২]

নামকরণ[সম্পাদনা]

যুদ্ধজাহাজটির নামকরণ করা হয়েছে মুসলিম সেনাপতি খালিদ বিন ওয়ালিদ এর নামানুসারে। উল্লেখ একই নামটি বাংলাদেশ নৌবাহিনীর বর্তমান পতাকাবাহী জাহাজ বানৌজা বঙ্গবন্ধুর ছিল।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. [১]
  2. "Janes | Latest defence and security news"Janes.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]