বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন
সরকারি
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৫২
সদরদপ্তরপল্টন ঢাকা, বাংলাদেশ
বাণিজ্য অঞ্চল
বাংলাদেশ ও বিদেশ
প্রধান ব্যক্তি
ড. মোঃ সেলিম উদ্দিন (চেয়ারম্যান)
দেবাশীষ চক্রবর্ত্তী (ব্যবস্থাপনা পরিচালক)
পণ্যসমূহগৃহায়ন ঋণ
ওয়েবসাইট[১]

বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন (সংক্ষেপেঃ বিএইচবিএফসি) বাংলাদেশের একটি রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বিশেষায়িত আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান। এটি দেশের গৃহায়ন সমস্যার সমাধানে জনসাধারনকে গৃহ নির্মান তথা সামগ্রিক গৃহায়ন ব্যবস্থার উন্নয়নে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করে থাকে। দেশের গৃহায়ন সমস্যার সমাধানের উদ্দেশ্যে ১৯৫২ সালে হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠিত হয়।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন ১৯৫২ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশের গৃহনির্মাণ ও গৃহায়ন ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করে আসছিল। বাংলাদেশে স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭৩ সালে জারীকৃত রাষ্ট্রপতির ৭নং আদেশ বলে বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন (বিইচবিএফসি) পুনর্গঠিত হয়।

উদ্দেশ্য[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের প্রকট গৃহায়ন সমস্যার সমাধান তথা সামগ্রিক গৃহায়ন ব্যবস্থার উন্নয়নই বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশনর মূল উদ্দেশ্য। দীর্ঘ কয়েক যুগ  দেশের গৃহায়ন খাতে অর্থ সংস্থানের ক্ষেত্রে বিএইচবিএফসি একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ করে আসছে। যদিও কয়েকটি বাণিজ্যিক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এ খাতে ঋণ প্রদান করে থাকে, তবুও গৃহায়ন খাতে ঋণ প্রদানে মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্তদের জন্য বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন অন্যতম প্রধান উৎস।

মালিকানা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন শতভাগ সরকারী মালিকানাধীন একটি বিশেষায়িত আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং এর পরিশোধিত মূলধনের সবটাই বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক পরিশোধিত । এর অনুমোদিত মূলধনের পরিমান ১১০ কোটি টাকা এবং পরিশোধিত মূলধনের পরিমান ১১০ কোটি টাকা। এছাড়াও, এটি ডিবেঞ্চার বিক্রি, সরকারী ঋণ ও আমানত গ্রহণের মাধ্যমে তহবিলের সংস্থান করে থাকে।

কার্যালয়সমূহ[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশনের সদর দফতর ঢাকার পুরানা পল্টনে অবস্থিত। এর মোট ১০ টি জোনাল অফিস রয়েছে যার ২ টি ঢাকায় এবং চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, বরিশাল, সিলেট, ময়মনসিংহ, রংপুর ও ফরিদপুর শহরে ১ টি করে। এছাড়া, জোনাল অফিসসমূহের আওতাধীন সারাদেশে ১৪টি রিজিওনাল ও ৬০টি শাখা অফিস রয়েছে।

ব্যবস্থাপনা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন পরিচালনার জন্য রয়েছে একটি ৬(ছয়) সদস্যের পরিচালনা পর্ষদ যার একজন চেয়ারম্যান থাকবে যিনি সরকার কর্তৃক মনোনীত হবেন।সরকারী নির্দেশনার আলোকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় নীতিমালা প্রণয়ন পরিচালনা পর্ষদের উপর ন্যস্ত। এছাড়া কর্পোরেশন সার্বিক ব্যবস্থাপনার জন্য প্রধান দায়িত্ব থাকে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের হাতে কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে সকল কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এছাড়াও, ০১(এক)জন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ০৬(ছয়)জন মহাব্যবস্থাপক ব্যবস্থাপনা পরিচালক-কে সহায়তা করেন।

ঋণ ও আর্থিক সেবা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন দেশের গৃহায়ন সমস্যার সমাধান তথা সামগ্রিক গৃহায়ন ব্যবস্থার উন্নয়নের উদ্দেশ্যে জনসাধারনকে গৃহ নির্মান তথা সামগ্রিক গৃহায়ন ব্যবস্থার উন্নয়নে নিন্মক্ত ঋণ ও আর্থিক সহযোগিতাসমূহ দিয়ে থাকেঃ

  • নগরবন্ধু (বাড়ি নির্মাণ ঋণ)
  • পল্লিমা (পল্লী আবাসন ঋণ)
  • প্রবাসবন্ধু (প্রবাসী আবাসন ঋণ)
  • আবাসন উন্নয়ন ঋণ
  • আবাসন মেরামত ঋণ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন"http://www.bhbfc.gov.bd/ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ মে ২০১৯  |ওয়েবসাইট= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]