বিষয়বস্তুতে চলুন

বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন
গঠিত১৭ ডিসেম্বর ২০১২
সদরদপ্তর৩৭/৩/এ, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা, বাংলাদেশ
যে অঞ্চলে কাজ করে
সমগ্র বাংলাদেশ
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা
চেয়ারপার্সন
প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী
ওয়েবসাইটবাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন

বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন প্রতিযোগিতা উৎসাহ দেওয়ার জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত একটি বাংলাদেশ সরকার বিচারিক সংস্থা।[১][২]

কমিশনের দায়িত্ব, ক্ষমতা ও কার্যাবলি

[সম্পাদনা]

কমিশনের দায়িত্ব, ক্ষমতা এবং কার্যাদি নিম্নরূপ, যথা:  :

(ক) বাজারে প্রতিযোগিতার উপর বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে এমন চর্চা বাদ দেওয়া, প্রতিযোগিতা প্রচার ও বজায় রাখা এবং বাণিজ্যের স্বাধীনতা নিশ্চিতকরণ;

(খ) কোন অভিযোগ পাওয়ার পরে বা তার নিজস্ব উদ্যোগে তদন্ত করা। সমস্ত প্রতিযোগিতা বিরোধী চুক্তি, প্রভাবশালী অবস্থান এবং উদ্যোগের অনুশীলন;

(গ) এই আইনের অধীনে বর্ণিত অন্যান্য অপরাধের তদন্ত ও তদনুসারে মামলা দায়ের ও পরিচালনা ;

(ঘ) প্রতিযোগিতা সম্পর্কিত বিধি, নীতি, বিজ্ঞপ্তির নির্দেশাবলী বা প্রশাসনিক দিকনির্দেশনা এবং পরামর্শ প্রদান এবং সরকারকে এগুলোর বাস্তবায়নে সহায়তা করা;

(ঙ) প্রতিযোগিতামূলক কার্যক্রমের প্রচারের জন্য যথাযথ মানদণ্ড স্থাপন এবং প্রতিযোগিতা সম্পর্কিত বিষয়গুলির প্রশিক্ষণ প্রদান;

(চ) প্রচার, প্রকাশনা এবং অন্য যে কোনও উপায়ে প্রতিযোগিতা সম্পর্কিত বিষয়ে জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় পরিকল্পনা গ্রহণ;

(ছ) প্রতিযোগিতা বিরোধী চুক্তি ও কার্যক্রম সম্পর্কে গবেষণা, সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, কর্মশালা এবং অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে জনসচেতনতা বৃদ্ধি এবং এ জাতীয় গবেষণার ফলাফল প্রকাশ ও প্রচার ও কার্যকর করার জন্য সরকারকে সুপারিশ প্রদান;

(জ) প্রতিযোগিতা সম্পর্কিত যে কোনও বিষয় বাস্তবায়ন, অনুসরণ বা বিবেচনা করা;

(ঝ) ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এবং বাস্তবায়নের জন্য অন্য কোনও আইনের অধীনে গৃহীত পদক্ষেপগুলি পর্যালোচনা করা;

(ঞ) এই ধারার অধীনে দায়িত্ব পালনের জন্য বা এর কার্য সম্পাদনের দক্ষ সম্পাদনের জন্য, সরকারের পূর্বানুমোদনক্রমে কোনও বিদেশী সংস্থার সাথে কোনও চুক্তি বা সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর ও সম্পাদন;

(ট) এই আইনের উদ্দেশ্য পূরণকল্পে ফি, চার্জ বা অন্য কোনও ব্যয় নির্ধারণ;

ইতিহাস

[সম্পাদনা]

দেশের ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রেক্ষাপটে ব্যবসা-বাণিজ্যে সুস্থ প্রতিযোগিতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার ২০১২ সালে প্রতিযোগিতা আইন প্রণয়ন এবং ২০১৬ সালে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন গঠন করে। বাজারে ষড়যন্ত্রমূলক যোগসাজশ,মনোপলি ও ওলিগোপলি অবস্থা, জোটবদ্ধতা অথবা কর্তৃত্বময় অবস্থানের অপব্যবহার সংক্রান্ত প্রতিযোগিতা বিরোধী কর্মকান্ড প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূলের লক্ষ্যে কমিশন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।কমিশন একটি বিচারিক ক্ষমতাসম্পন্ন সংবিধিবদ্ধ সংস্থা।

উল্লেখ্য, স্বাধীনতাপূর্ব সময়ে “Monopolies and Restrictive Trade Practices (Control and Prevention) Ordinance,1970 (Ord. V of 1970)” প্রণয়ন করা হয়। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর এ অধ্যাদেশটি বলবৎ থাকলেও প্রায়োগিক ক্ষেত্রে তেমন কোনো দৃশ্যমান কার্যক্রম গৃহীত হয়নি। ফলশ্রুতিতে বাজারে ষড়যন্ত্রমূলক যোগসাজশ, জোটবদ্ধতা অথবা কর্তৃত্বময় অবস্থানের অপব্যবহারসহ প্রতিযোগিতা বিরোধী অন্যান্য কর্মকান্ড বিস্তার লাভ করতে থাকে। এ সকল সমস্যা নিরসনে সরকার বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশে প্রতিযোগিতা আইন প্রণয়নের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনায় আনে। পাশাপাশি দেশে সিভিল সোসাইটি ও ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিযোগিতা আইন প্রণয়নের দাবি উত্থাপিত হয়।

এ পটভূমিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বিগত ২১ জুন ২০১২ তারিখে প্রতিযোগিতা আইন, ২০১২(২০১২ সালের ২৩ নং আইন) প্রণয়ন করে। আইনটি ১৭ জুন, ২০১২ তারিখে মহান জাতীয় সংসদে পাশ হয়। প্রতিযোগিতা আইন, ২০১২ প্রণয়নের প্রেক্ষিতে উক্ত আইনের ৪৬ ধারা মোতাবেক “Monopolies and Restrictive Trade Practices (Control and Prevention) Ordinance,1970 (Ord. V of 1970)” রহিত করা হয়। উল্লেখ্য, পৃথিবীর ১৪০টিরও বেশী দেশে প্রতিযোগিতা আইন কার্যকর রয়েছে। দেশে বিনিয়োগ এবং দেশজ উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ত্বরান্বিত করা সহ প্রতিযোগিতামূলক বাজার সৃষ্টির ক্ষেত্রে এ আইন একটি মাইলফলক।

চেয়ারপার্সন

[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপার্সন হিসেবে দায়িত্ব পালনকারীগণের নাম

  1. জনাব ইকবাল খান চৌধুরী (২০১৬ – ২০১৯)
  2. জনাব মফিজুল ইসলাম (২০১৯ – ২০২২)
  3. জনাব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী (নভেম্বর ২০২২ - বর্তমান)

আরও দেখুন

[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "Competition Commission: The task ahead"The Financial Express (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ আগস্ট ২০২০ 
  2. "Make Competition Commission active to keep market stable:..."unb.com.bd (English ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ আগস্ট ২০২০