বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন- বিপিসি (Bangladesh Petroleum Corporation-BPC) হচ্ছে বাংলাদেশের সরকারি মালিকানাধীন একটি রাষ্ট্রয়ত্ব প্রতিষ্ঠান। এটি অপরিশোধিত এবং পরিশোধিত জ্বালানি তেল ও লুব্রিকেন্ট আমদানি, অপরিশোধিত জ্বালানি তেল পরিশোধন এবং জ্বালানি তেল লুব্রিকেন্ট ও অন্যান্য পেট্রোলিয়াম জাতীয় পণ্য বিতরণ ও বিপণনের জন্য ১৯৭৬ সালে রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ (নং-৮৮, ১৩/ ১১/১৯৭৬) বলে প্রতিষ্ঠিত হয়।[১] বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম অ্যাক্ট (আইন) ১৯৭৪ অনুযায়ী দেশে পেট্রোলিয়াম জাতীয় পদার্থ উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ, পরিশোধন এবং বিপণনের ক্ষমতা কেবলমাত্র সরকারের ওপর ন্যস্ত।[২]

দায়িত্ব[সম্পাদনা]

  • অপরিশোধিত পেট্রোলিয়াম এবং অন্যান্য পেট্রোলিয়াম জাতীয় পদার্থ সংগ্রহ ও আমদানি
  • অপরিশোধিত পেট্রোলিয়াম প্রক্রিয়াকরণ এবং বিভিন্ন মানের পেট্রোলিয়াম পণ্য উৎপাদন
  • পেট্রোলিয়াম রিফাইনারি ও সংশ্লিষ্ট সুযোগ-সুবিধাসমূহ প্রতিষ্ঠা করা
  • বেইসস্টক (basestock) ও প্রয়োজনীয় অ্যাডিটিভসমূহ (aditives) উৎপাদন এবং লুব্রিকেন্টসহ অন্যান্য রাসায়নিক দ্রব্য আমদানি করা
  • ব্লেন্ডিং-এর মাধ্যমে লুব্রিকেন্ট তেল উৎপাদন
  • ব্যবহূত লুব্রিকেন্টসমূহ পুনঃ ব্যবহার উপযোগী করার ব্যবস্থা
  • রিফাইনারির অবশিষ্টসমূহ প্রক্রিয়াজাতকরণের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ ও অবকাঠামো প্রতিষ্ঠা
  • পেট্রোলিয়াম জাতীয় পণ্য মজুতের জন্য পরিকল্পনা প্রণয়ন ও তার বাস্তবায়ন
  • আন্তঃমহাদেশীয় তেলবাহী জাহাজ (অয়েল ট্যাংকার) সংগ্রহ ও নির্মাণ
  • পেট্রোলিয়াম জাতীয় পণ্য বিপণনের জন্য প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টি ও তার সম্প্রসারণ
  • দেশে পেট্রোলিয়াম আমদানি, মজুত, বিতরণ এবং বিপণনের জন্য কোন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর বা কোন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা প্রতিনিধি হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করা
  • বিপিসির অধীনস্থ প্রতিষ্ঠানসমূহের কর্মকান্ড সমন্বয় ও পরিবীক্ষণ করা সহ সরকার নির্দেশিত অন্য যে কোন দায়িত্ব পালন করা।

সংস্থা[সম্পাদনা]

বিপিসির অধীনে আটটি কোম্পানি পরিচালিত হচ্ছে: দেশের একমাত্র তেল শোধনাগার ইষ্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড (ইআরএল); তিনটি তেল বিতরণ ও বিপণন কোম্পানি যথা- পদ্মা অয়েল কোম্পানি লিমিটেড, যমুনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেড এবং মেঘনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেড; দুটি লুব্রিকেন্ট ব্লেন্ডিং প্লান্ট- ইষ্টার্ন লুব্রিকেন্ট ব্লেন্ডার্স লিমিটেড ও স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানি লিমিটেড; একটি এলপিজি বোতলজাতকরণ ও বিতরণ প্লান্ট- এলপি গ্যাস লিমিটেড এবং একটি বিটুমিন উৎপাদন কোম্পানি- অ্যাসফল্টিক বিটুমিন প্লান্ট।

বিবিধ[সম্পাদনা]

স্থানীয় বাজারের জন্য জ্বালানি তেল আমদানি, পরিশোধন এবং বিতরণের দায়িত্ব ছাড়াও বিপিসি নিকট অতীতে জ্বালানি তেলের মান উন্নয়নে উদ্যোগ নিয়েছে। ১৯৯৯ সালের জুলাই থেকে বিপিসি সীসামুক্ত পেট্রোল তেল এবং সামান্য পরিমাণ সালফার সমৃদ্ধ ডিজেল তেল দেশের বাজারে বিপণনের জন্য আমদানির উদ্যোগ নিয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Rahman, Mushfiqur (২০১২)। "Bangladesh Petroleum Corporation"Islam, Sirajul; Jamal, Ahmed A.। Banglapedia: National Encyclopedia of Bangladesh (Second সংস্করণ)। Asiatic Society of Bangladesh 
  2. "Bangladesh to lay submarine pipeline for unloading oil"Reuters। ১৬ অক্টোবর ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ অক্টোবর ২০০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]