বাংলাদেশ–পাকিস্তান সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Bangladesh-Pakistan সম্পর্ক
মানচিত্র Pakistan এবং Bangladesh অবস্থান নির্দেশ করছে

পাকিস্তান

বাংলাদেশ
National emblem of Bangladesh.svg
 এই নিবন্ধটি বাংলাদেশের রাজনীতি ও সরকার
ধারাবাহিকের অংশ
State emblem of Pakistan.svg
 এই নিবন্ধটি পাকিস্তান রাজনীতি ও সরকার
ধারাবাহিকের অংশ
সংবিধান

বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান দুটি দক্ষিণ এশিয় দেশ।[১][২] দেশ বিভাগের পর থেকে প্রায় ২৪ বছর দেশ দুটি মিলিত অবস্থায় ছিল। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে পূর্ব পাকিস্তান পৃথক হয়ে ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র বাংলাদেশ গঠন করে। ১৯৭৪ সালে মুসলিম বিশ্বের ক্রমাগত চাপের মুখে পাকিস্তান (সাবেক পশ্চিম পাকিস্তান) বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়।[৩]

বাংলাদেশ ১৯৭১ সালে সংঘটিত গনহত্যা স্বীকার এবং মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ক্ষমা প্রার্থনার জন্য পাকিস্তানকে ক্রমাগত আহবান করতে থাকে।[৪][৫] ২০১৩ সালে একজন শীর্ষস্থানীয় জামায়াত নেতার ফাঁসি কার্যকর হলে পাকিস্তান ক্ষুদ্ধ হয় এবং দুই দেশের সম্পর্কের অবনতি ঘটে।[৬] ২০১৫ সালে জামায়াত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশ নামক একটি সন্ত্রাসী সংগঠনকে আর্থিক সহায়তা প্রদানের অভিযোগে[৭] পাকিস্তান হাইকমিশনের ভিসা কর্মকর্তা মাযহার খান[৮] এবং সহকারী সচিব ফারিনা আরশাদকে[৯] বহিষ্কার করা হয়। ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে ইসলামাবাদ সেখানে অবস্থিত হাইকমিশন থেকে জ্যেষ্ঠ কূটনীতিক মৌসুমী রহমানকে ফিরিয়ে নিয়ে ঢাকাকে ৭২ ঘন্টার সময় বেধে দেয়। সে সময় ইসলামাবাদের কূটনৈতিক সূত্রগুলো থেকে সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয় যে, মৌসুমী রহমান 'পাকিস্তানে রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডে' জড়িত ছিলেন এবং সংশ্লিষ্ট নিরাপত্তা সংস্থাগুলো তাকে নজরদারিতে রেখেছে। [১০]

বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান উভয়েই সার্কের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য, এছাড়াও দেশ দুটি উন্নয়নশীল ৮টি দেশ, ওআইসি এবং কমনওয়েলথ অব নেশনসের সদস্য। উভয় দেশকেই পরবর্তী একাদশ উদীয়মান অর্থনীতির দেশ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ইসলামাবাদে বাংলাদেশের একটি হাইকমিশন রয়েছে, অপরদিকে ঢাকায় পাকিস্তানের একটি হাইকমিশন রয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা[সম্পাদনা]

১৯৭৪-২০১২ঃ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা এবং ক্রমবিকাশ[সম্পাদনা]

1974-2012 পর্যন্ত আমাদের দুই দেশের সম্পর্ক ভালোই ছিল।

২০১৩ঃ যুদ্ধঅপরাধ ট্রাইবুনাল[সম্পাদনা]

বিহারী শরণার্থী ইস্যু[সম্পাদনা]

প্রতিরক্ষা সহযোগিতা[সম্পাদনা]

বাণিজ্য[সম্পাদনা]

২০১৫ঃ কূটনৈতিক সম্পর্কের অবনতি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Geography and Map of Bangladesh"About.com Geography 
  2. "Political Map of India, Sri Lanka, Nepal, Bhutan, Bangladesh"Atlapedia Online 
  3. Ali, Syed Muazzem (২০০৬)। "Bangladesh and the OIC"Bangladesh & The World। The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৭-০৯ 
  4. Anam, Tahmima (২৭ ডিসেম্বর ২০১৩)। "Pakistan's State of Denial"The New York Times (Editorial)। 
  5. "Bangladesh fumes as Pakistan denies genocide, war crimes in 1971"Hindustan Times। ১৭ ডিসেম্বর ২০১৫। 
  6. Chowdhury, Syed Tashfin (২২ ডিসেম্বর ২০১৩)। "Pakistan-Bangladesh relationship strained"Al Jazeera। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৭-২৯ 
  7. "'Terror financing': Pak diplomat withdrawn from Bangladesh"The Daily Star। ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫। 
  8. Khan, Mohammad Jamil (১২ আগস্ট ২০১৫)। "Bangladesh a transit hub for fake rupee smuggling"Dhaka Tribune 
  9. Panda, Ankit (২৪ ডিসেম্বর ২০১৫)। "Pakistani Diplomat With Terror Links Recalled from Bangladesh"The Diplomat 
  10. "Pakistan expels senior Bangladesh diplomat as 'spy' row escalates"Dawn। ৬ জানুয়ারি ২০১৬।