বাংলাদেশে ই-বাণিজ্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বাংলাদেশের ই-কমার্স বা ই-বাণিজ্য

বলতে বাংলাদেশের ইলেকট্রনিক সিস্টেম (ইন্টারনেট বা অন্য কোন কম্পিউটার নেটওইয়ার্ক) এর মাধ্যমে পণ্য বা সেবা ক্রয়/ বিক্রয় ব্যবস্থা কে বুঝানো হয়।[১][২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০০৯ সালে বাংলাদেশ ব্যাংক অনলাইন পেমেন্ট অনুমোদন করেছিল এবং ২০১৩ সালে ব্যাংক অনলাইন পেমেন্টের জন্য ডেবিট এবং ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার অনুমোদন দিয়েছিল।

ইকমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ বাংলাদেশের ই-কমার্সের ট্রেডিং সংস্থা। [৩] অ্যাসোসিয়েশনের মতে, শুধুমাত্র ফেসবুকেই ৮০০০ ই-কমার্স পৃষ্ঠা রয়েছে। [৪]

২০১৭ সালের একটি প্রতিবেদন অনুসারে বাংলাদেশে ই-কমার্স সাইটের মাধ্যমে দশ বিলিয়ন টাকা মূল্যের লেনদেন হয়। [৫]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bangladesh to see 72pc growth in e-commerce sales"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-১১-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-০৪ 
  2. "Concerns for online purchases"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০১-৩১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-০৪ 
  3. "E-commerce to drive growth in electronic payments"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-১১-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-০৪ 
  4. "Withdraw all taxes on e-commerce: FBCCI"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-০৬-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-০৪ 
  5. "Mobile money customers brace for hurdles"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০১-৩১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-০৪