বল (ক্রীড়া)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বল একটি গোলাকার বস্তু (সাধারণত গোলাকার তবে কখনও কখনও ডিম্বাকৃতি হতে পারে)। [১] কোনও বলের খেলায় বলকে আঘাত করে, লাথি মেরে বা ছুঁড়ে মারার সাথে সাথে বলের অবস্থা বুঝে খেলাটি অনুসৃত হয়। কতকগুলি সরলতর ক্রিয়াকলাপ সম্পন্ন করার জন্য বলের ব্যবহার হতে পারে যেমন ধরা বা জাগলিং করা। কঠিন-আবৃত উপকরণ (হার্ড-উইয়ারিং মেটিরিয়াল) থেকে তৈরি বল ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যবহার্য্যে খুব কম ঘর্ষণ পেতে ব্যবহৃত হয় যা বল বেয়ারিং নামে পরিচিত। বারুদ সম্বৃদ্ধ অস্ত্র পাথর এবং ধাতব বলকে প্রক্ষেপক হিসাবে ব্যবহার করে।

যদিও বর্তমানে রবার থেকে অনেক ধরনের বল তৈরি করা হয় কিন্তু কলম্বাসের (আমেরিকায়) যাত্রার আগে আমেরিকার বাইরে এটি অজানা ছিল। স্পেনীয়রা প্রথম ইউরোপীয় যাঁরা সেখানে বাউন্সিং রবারের বল দেখতে পেলেন (যদিও সেগুলি স্ফীত নয় - নিরেট ছিল) যা মেসোঅ্যামেরিকান বলখেলায় সর্বাধিক উল্লেখযোগ্যভাবে ব্যবহৃত হত। কলম্বাসের আগে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলে বিভিন্ন খেলাধুলায় ব্যবহৃত বলগুলি অন্যান্য উপকরণ যেমন পশুর ব্লাডার বা চামড়া জাতীয় উপাদান দিয়ে তৈরি করা হত।

যেহেতু বলগুলি মানুষের কাছে একটি অতি পরিচিত গোলাকার বস্তু তাই "বল" শব্দটি দিয়ে গোলাকার বা নিকট-গোলাকার বস্তুকে বোঝাতে বা বর্ণনা করতে ব্যবহার করা হতে পারে।

"বল" রূপকভাবে কখনও কখনও গোলাকার বা উপগোলক জাতীয় কিছুকে বোঝাতে ব্যবহার করা হয়। যেমন আর্মাডিলো এবং মনুষ্যদেহ একটি বলের মতো গুটিয়ে যায়, আমরা আমাদের মুষ্টি দিয়ে বলের মতো করি।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রাশিয়ান চামড়ার বল (রুশ: мячи), ১২-১৩শ শতাব্দী।

কোনও বলকে খেলার বৈশিষ্ট্য অনুসারে খুব প্রথম থেকেই হতে হবে গঠনগতভাবে কায়িক ধকল-সহায়ক গুণের অধিকারী। কোনও ঘূর্ণায়মান বস্তু কেবল মানব শিশু-কেই নয়, বিড়ালছানা এবং কুকুরছানার কাছেও সমান আবেদনময় হয়। একটি বলের সাথে সম্পর্কিত খেলার কিছু নমুনা মিশরীয় স্মৃতিস্তম্ভগুলির চিত্রতে পাওয়া যায় এবং বর্তমানের কিছু আদিম আদিবাসী উপজাতির মধ্যেও এমন খেলার চল রয়েছে দেখা যায়। হোমার এ রয়েছে নওসিকা তাঁর পরিচারিকাদের সাথে যখন বল খেলছিলেন অডিসিউস তাঁকে প্রথম ফ্যাসিয়ার মাটিতে দেখেছিলেন (ওড. ভিআই. ১০০)। এবং হালিওস এবং লাওডামাস আলসিনোয়াস এর আগে এবং অডিসিউসের সাথে বল খেলার মাধ্যমে নাচের সাথে অভিনয় করেছিলেন (ওড. ভিআইআইআই. ৩৭০)। সর্বাধিক প্রাচীন বলের সন্ধান পাওয়া গেছে ইউরেশিয়ার কারাশহর, চীন দেশে এবং সেগুলি ৩,০০০ বছরের পুরানো। এগুলি চুলে পূর্ণ চামড়া দিয়ে তৈরি হয়েছিল। [২]

প্রাচীন গ্রীস[সম্পাদনা]

প্রাচীন গ্রিসে বল (σφαῖραι) সহ খেলাগুলি শরীরকে কোমল রাখার এবং আকর্ষণীয় করে তোলার উপায় হিসাবে আরও কঠোর অনুশীলন-সাপেক্ষ অ্যাথলেটিকের সহায়ক হিসাবে বিবেচনা করা হত। তবে সাধারণত এগুলিকে বাচ্চা ছেলে-মেয়েদের দেওয়া হত। বল খেলার নিয়ম-কানুন তখন যদি কিছু থেকে থাকে তো তার সামান্য কিছু চিহ্ন খুঁজে পাওয়া যায়। গ্রীক ভাষায় বিভিন্ন রূপের খেলার নাম আমরা পাই যেমন ἀπόρραξις (অ্যাপোরাক্সিস) যার অর্থ কেবল খোলা হাতে মাটিতে বল রাখা, οὐρανία (ওউরানিয়া) হ'ল বাতাসে প্রক্ষিপ্ত বলকে দুই বা ততোধিক খেলোয়াড় কর্তৃক হাতে ধরা; φαινίνδα (ফাইনিন্দা) মনে হয় দু'জন বা তার বেশি জনের বল ধরার খেলা যেখানে কৃত্রিম আক্রমণ দ্বারা দক্ষতার পরীক্ষা করতে ব্যবহৃত হত। পোলক্স (আই. এক্স ১০৪) এপিসকাইরস (ἐπίσκυρος) নামে একটি খেলার কথা উল্লেখ করেছেন যাকে প্রায় ফুটবলের উৎস হিসাবে দেখানো হয়। মনে হয় এটি দুই পক্ষ দলে লাইনে সাজিয়ে খেলা হত এবং "গোল" কোনও রূপ কতটা ছিল তা নিশ্চিত বলা যায় না। [৩] (তখন) পুরোপুরি গোলাকার কোনও বল তৈরি করা অসম্ভব ছিল;[৪] বাচ্চারা সাধারণত শূকরের ব্লাডারকে স্ফীত করে আগুনের ছাইয়ে গরম করে তাদের গোলাকার করে তুলত। [৪] অবশ্য প্লেটো (খ্রিস্টপূর্ব ৪২০ খ্রিস্টপূর্ব - ৩৪০ বি.সি.) বর্ণনা করেছেন "বল বারো টুকরোর চামড়ায় আচ্ছাদিত হয়"।[৫]

প্রাচীন রোমান[সম্পাদনা]

রোমানদের মধ্যে বলের খেলা স্নানের সংযোজন হিসাবে দেখা হত এবং তা স্নার্থীদের বয়স এবং স্বাস্থ্য অনুসারে হত। তার জন্য বাথ-এ (থার্ম) সাধারণত স্নানের জন্য একটি জায়গা (স্ফেরিসটারিয়াম) নির্দিষ্ট থাকত। মনে হয় তিন ধরনের বা আকারের বল ছিল। পাইলা বা ছোট বল ধরার খেলায় ব্যবহৃত হত, প্যাগানিকা পালকযুক্ত তুলনায় ভারী বল এবং ফোলিস যা চামড়ার তৈরি বাতাসে ভরাট বল এবং এইটি তিন ধরনের বলের মধ্যে ছিল বৃহত্তম। এতে খেলোয়াড় থেকে খেলোয়াড় পর্যন্ত বলকে আঘাত করা হত। খেলোয়াড়রা বাহুতে এক ধরনের আবরণ গন্টলেট পরতেন। ট্রাইগন নামে পরিচিত একটি খেলা ছিল যাতে তিন জন খেলোয়াড় ত্রিভুজ আকারে দাঁড়িয়ে হার্পস্টাম নামে পরিচিত ফোলিস দিয়ে খেলতেন। মনে হয় বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের মধ্যে বল "কাড়াকাড়ি" করে এই খেলা অনুষ্ঠিত হত। এই খেলাগুলি রোমানদের মাধ্যমে আমারা জানতে পারলেও নামগুলি ছিল গ্রীক। [৩]

আধুনিক বল খেলা[সম্পাদনা]

এক বা একাধিক বল দ্বারা খেলা বিভিন্ন আধুনিক খেলায় বিধি অনুসারে তাদের বিভিন্ন নামে যেমন পোলো, ক্রিকেট, ফুটবল হিসাবে ডাকা হয়। [৩]

গোলাকার বল[সম্পাদনা]

প্রসারিত উপগোলাকার বল[সম্পাদনা]

বেশ কিছু খেলায় একটি প্রসারিত উপগোলাকার আকারের বল ব্যবহৃত হয়:

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Code of Federal Regulations: 1985-1999"। U.S. General Services Administration, National Archives and Records Service, Office of the Federal Register। ৫ নভেম্বর ১৯৯৯। ৭ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৭ – Google Books-এর মাধ্যমে। 
  2. Gershon, Livia (অক্টোবর ২১, ২০২০)। "These Hair-Filled Leather Pouches Are the Oldest Balls Found in Eurasia"www.smithsonianmag.comSmithsonian Insitute। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২, ২০২০ 
  3.  চিসাম, হিউ, সম্পাদক (১৯১১)। "Ball"। ব্রিটিশ বিশ্বকোষ (১১তম সংস্করণ)। কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি প্রেস। [[বিষয়শ্রেণী:উইকিসংকলনের তথ্যসূত্রসহ ১৯১১ সালের এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা থেকে উইকিপিডিয়া নিবন্ধসমূহে একটি উদ্ধৃতি একত্রিত করা হয়েছে]]
  4. Garland, Robert (২০০৮)। Ancient Greece: Everyday Life in the Birthplace of Western Civilization। New York City, New York: Sterling। পৃষ্ঠা 96। আইএসবিএন 978-1-4549-0908-8 
  5. Plato (১৯০৯)। "Phædo (Dialogues of Plato)"। Charles W. Eliot। The Apology, Phædo and Crito of Plato – The Golden Sayings of Epictetus – The Meditations of Marcus Aurelius। The Harvard Classics। 2। Benjamin Jowett কর্তৃক অনূদিত (1st সংস্করণ)। New York: P. F. Collier and Son। পৃষ্ঠা 107। সংগ্রহের তারিখ মে ১৬, ২০২০ 

বহঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  • উইকিঅভিধানে বল-এর আভিধানিক সংজ্ঞা পড়ুন