ববিতা শিবদাসানি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ববিতা কাপুর
ববিতা শিবদাসানি.jpg
জন্ম (1948-04-20) ২০ এপ্রিল ১৯৪৮ (বয়স ৭১)
জাতিসত্তাসিন্ধি
পেশাঅভিনেত্রী
দাম্পত্য সঙ্গীরণধীর কাপুর (বি. ১৯৭১)
সন্তানকারিশমা, কারিনা
পিতা-মাতাহরি শিবদাসানী
আত্মীয়শিবাদাসানী পরিবার (জন্মসূত্রে)
কাপুর পরিবার (বৈবাহিকসূত্রে)

ববিতা শিবদাসানী (হিন্দি: बबीता; জন্ম: ২০ এপ্রিল, ১৯৪৮) বোম্বেতে জন্মগ্রহণকারী বলিউডের সাবেক অভিনেত্রী।[১][২][৩] ১৯৬৬ থেকে ১৯৭৩ মেয়াদকালে হিন্দি চলচ্চিত্র অঙ্গনে সরব ছিলেন ববিতা। ১৯টি চলচ্চিত্রে নায়িকার ভূমিকায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ভবিষ্যতের স্বামী রণধীর কাপুরের সাথে কাল আজ অউর কাল চলচ্চিত্রে নায়িকার ভূমিকায় অবতীর্ণ হন তিনি। ভবিষ্যতের কাকা শ্বশুর শশী কাপুরের সাথে ১৯৬৮ সালে হাসিনা মান জায়েগী, জীতেন্দ্রের সাথে ফর্জ ও বিশ্বজিতের সাথে কিসমতের ন্যায় ব্যবসায়িক সফল চলচ্চিত্রগুলোয় সফল পদচারণা করেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

২০০১ সালে দুই মেয়ে কারিশমা (পাশে) এবং কারিনার সঙ্গে

পাকিস্তান থেকে অভিবাসিত হিন্দু সিন্ধি পরিবারের সন্তান প্রথিতযশা অভিনেতা হরি শিবদাসানী ও ব্রিটিশ খ্রিস্টান মাতার কন্যা তিনি।[৪] তাঁর কাকাতো বোন হচ্ছেন সাধনা শিবদাসানী[৫]

ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিতা তিনি। ৬ নভেম্বর, ১৯৭১ তারিখে রণধীর কাপুরের সাথে পরিণয়সূত্রে আবদ্ধ হন। কারিশমাকারিনা কাপুর - কন্যাদ্বয়ও অভিনয়কর্মে জড়িত।[৬][৭][৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Babita". iloveindia.com.
  2. Bollywood Film Actress Babita Photo Gallery and Biography. cine-talkies.com
  3. "Babita Horoscope by Date of Birth | Horoscope of Babita Bollywood, Actor". astrosage.com.
  4. "Saif to join girlfriend Kareena and her family for midnight mass"। Mid-Day। ২৩ ডিসেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৫ 
  5. http://timesofindia.indiatimes.com/entertainment/hindi/bollywood/news/I-dont-acknowledge-Babita-Sadhana/articleshow/26720515.cms
  6. Meena Iyer (২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১০)। "Kareena: Yes, I eat! – Times Of India"। Articles.timesofindia.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১২ 
  7. "Kareena, Saif at St Andrew's Church in Mumbai – Times Of India"। Articles.timesofindia.indiatimes.com। ২৬ ডিসেম্বর ২০১১। 
  8. "Kareena, family and friends go to midnight mass at St Andrews"। Mid-day.com। ২৬ ডিসেম্বর ২০০৮। 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]