ফ্রেন্ডস্

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ফ্রেন্ডস্
মূল লোগো
ধরণ ভ্রান্তিবিলাস-কমেডি
নির্মাতা ডেভিড ক্রেন
মার্টা কাফম্যান
অভিনয়ে জেনিফার অ্যানিস্টন
কর্টনি কক্স
লিসা কুড্রো
ম্যাট লেব্লাঙ্ক
ম্যাথু পেরি
ডেভিড শুইমার
কণ্ঠ প্রদানকারী মাইকেল স্ক্ল্ফ
অ্য়ালি উইলিস্
উদ্বোধনী থিম দ্য রিমেম্ব্রান্টস্ -এর
"আই'ল বি দেয়ার ফর ইউ"
প্রস্তুতকারক দেশ  যুক্তরাষ্ট্র
মূল ভাষা ইংরেজী
মৌসুমের সংখ্যা ১০
পর্বের সংখ্যা ২৩৬ (পর্বের সংখ্যা)
নির্মাণ
নির্বাহী প্রযোজক ডেভিড ক্রেন
মার্টা কাফম্যান
কেভিন ব্রাইট (entire run)
মাইকেল বোরকাউ (৪ সীজন)
মাইকেল কারটিস (৫ সীজন)
এডাম চেস (৫-৬ সীজন)
গ্রেক মালিন্স (৫-৭ সীজন)
উইল ক্যালহুন (৭ সীজন)
এসক্ট সিলভ্যরি
শানা গোল্ডবেরগ/মেহান (৮-১০ উভয় সীজনে)
এনড্রু রাইক
টেড কোহেন
(উভয়; মিড সীজন ৮-সীজন ১০)
অবস্থান নিউ ইয়র্ক শহর (setting)
ওয়ারনর ব্রোস. স্টুডিও, বুরব্যাংক, ক্যালিফোর্নিয়া (filming location)
ক্যামেরা সেটআপ ছবি; Multi-camera
দৈর্ঘ্য ২০–২২ মিনিট (প্রতি পর্ব)
প্রোডাকশন কোম্পানি Bright/Kauffman/Crane Productions
Warner Bros. Television
পরিবেশক ওয়ার্নার ব্রাদার্স টেলিভিশন পরিবেশনা
সম্প্রচার
মূল চ্যানেল NBC
ছবির ফরম্যাট 480i (PsF 4:3 SDTV)
1080i (PsF 16:9 HDTV)
মূল প্রদর্শনী ২২শে সেপ্টেম্বর, ১৯৯৪ – ৬ই মে, ২০০৪
ক্রমধারা
উত্তরসূরী জোই
বহিঃসংযোগ
ওয়েবসাইট

ফ্রেন্ডস্ একটি আমেরিকান টেলিভিশন ভ্রান্তিবিলাস, ডেভিড ক্রেন এবং মার্টা কাফম্যান দ্বারা নির্মিত, যা ২২ সেপ্টেম্বর ১৯৯৪ থেকে ৬ মে ২০০৪ পর্যন্ত এনবিসিতে দশ সিজন ধরে সম্প্রচারিত হয়। জেনিফার অ্যানিস্টন, কর্টনি কক্স, লিসা কুড্রো, ম্যাট লেব্লাঙ্ক, ম্যাথু পেরি, ডেভিড শুইমার অভিনীত পাঁচমিশেলি অভিনেতাদের নিয়ে, এটি ম্যানহাটনে বসবাসকারী প্রায় ছয় ২০-৩০ বর্ষী কিছু বন্ধুর ইতিকথা। এই সিরিজটি ওয়ার্নার ব্রাদার্স টেলিভিশনের সহযোগিতায় ব্রাইট/কাফম্যান/ক্রেন প্রোডাক্শন্স দ্বারা প্রযোজিত হয় । মূল কার্যনির্বাহী প্রযোজকরা হলেন কেভিন এস ব্রাইট, মার্টা কাফম্যান এবং ডেভিড ক্রেন

কাফম্যান এবং ক্রেন ইন্সোম্নিয়া ক্যাফে (Insomnia Cafe) শিরোনামে নভেম্বর ও ডিসেম্বর ১৯৯৩-এর মধ্যে ফ্রেন্ডস্-এর কাজ চালু করেন। তারা ব্রাইটের সামনে এই ধারণা উপস্থাপন করেন, এবং তারা একসঙ্গে এনবিসি-এর কাছে সাত পৃষ্ঠার বর্ণনা গল্প উপস্থাপন করেন। বহুবার স্ক্রিপ্ট নতুন করে লেখার পর, শীর্ষক সিক্স অফ্ ওয়ান [১] এবং ফ্রেন্ডস্ লাইক আস্ পরিবর্তনের পর, সবশেষে সিরিজের নাম ফ্রেন্ডস্ [২] নির্ধারিত হয়।

চলচ্চিত্রায়নের কাজ বারবংক, ক্যালিফোর্নিয়ার ওয়ার্নার ব্রাদার্স স্টুডিওস এ হত। ফ্রেন্ডস্-এর দশটি সিজনের সবকটিই চূড়ান্ত টেলিভিশন সিজন রেটিংএ শীর্ষ দশ স্থানের মধ্যে ছিল; পরিণামে তার অষ্টম সিজনেই প্রথম স্থান দখল করে। ৬ মে ২০০৪-এর সিরিজ সমাপ্তি প্রায় ৫২.৫ মিলিয়ন আমেরিকান দর্শক দেখেছেন, ফলে এটা টেলিভিশনের ইতিহাসে পঞ্চম সবচেয়ে বেশি দেখা সিরিজের স্থান নেয়[৩][৪][৫] এবং ২০০০-এর দশকের সবচেয়ে বেশি দেখা টেলিভিশন উপাখ্যান হয়।[৬][৭]

ফ্রেন্ডস্ তার চলাকালীনই প্রশংসা পায়, সর্বকালের সর্বাধিক জনপ্রিয় টেলিভিশন অনুষ্ঠানগুলির মধ্যে অন্যতম হয়ে ওঠে।[৮] এই সিরিজটি ৬২টি প্রাইমটাইম এমি অ্যাওয়ার্ডসের জন্য মনোনীত হয়েছিল, ২০০২ সালে তার অষ্টম সিজনের জন্য আউটস্ট্যান্ডিং কমেডি সিরিজ অ্যাওয়ার্ড জিতেছিল। এটি টিভি গাইড এর সর্বকালের ৫০ সর্বশ্রেষ্ঠ টিভি অনুষ্ঠানে[৯] ২১তম এবং এম্পায়ার পত্রিকার সর্বকালের ৫০ সর্বশ্রেষ্ঠ টিভি অনুষ্ঠানে ৭ম স্থান নিয়েছিল।[১০][১১] ১৯৯৭ সালে, "দ্য ওয়ান উইথ দ্য প্রম ভিডিও" পর্বটি টিভি গাইড এর সর্বকালের ১০০ সর্বশ্রেষ্ঠ টিভি অনুষ্ঠানে ১০০তম স্থান নিয়েছিল।[১২] ২০১৩ সালে, ফ্রেন্ডস্ রাইটারস গিল্ড অফ আমেরিকা-এর ১০১টি সর্বকালের সেরা লিখিত টিভি সিরিজে ২৪তম[১৩] এবং টিভি গাইড এর সর্বকালের ৬০ সর্বশ্রেষ্ঠ টিভি অনুষ্ঠানে ২৮তম স্থান নিয়েছিল।[১৪]

সূচনা[সম্পাদনা]

রেচেল গ্রিন তার বিয়ের দিন পালিয়ে যায় এবং শৈশব বন্ধু নিউ ইয়র্ক সিটি শেফ মনিকা গেলারের খোঁজ করে। তারা রুমমেট হয়ে ওঠে এবং রেচেল মনিকার বিংশবর্ষীয় সামাজিক দলে যোগদান করে: অভিনেতা জোই ট্রিবিয়ানি, ব্যবসায়ী পেশাদার চ্যান্ডেলার বিং, অঙ্গমর্দিকা ও সঙ্গীতশিল্পী ফিবি বুফে এবং সদ্য তালাকপ্রাপ্ত জীবাশ্মবিদ রস্ গেলার, মনিকার বড় ভাই। স্বনির্ভর হওয়ার জন্য, রেচেল সেন্ট্রাল পার্কের, যা একটি ম্যানহাটান কফিহাউস যেখানে এই দলটি প্রায়ই সময় কাটায়, ওয়েট্রেসের চাকরি নেয়; যখন দলটি সেখানে থাকে না, ছয়জন সাধারণত মনিকা এবং রেচেলের নিকটবর্তী ওয়েস্ট ভিলেজের অ্যাপার্টমেন্টে থাকে, অথবা বিপরীতে অবস্থিত জোই এবং চ্যান্ডেলারের অ্যাপার্টমেন্টে।

কাহিনী মূলত এই বন্ধুদের কমেডিক এবং রোমান্টিক অ্যাডভেঞ্চার এবং কর্মজীবনের বিষয়গুলি তুলে ধরে, যেমন জোই-এর অভিনয় করার জন্য অডিশন বা রেচেলের ফ্যাশন শিল্পে চাকরির জন্য। ছয়টি চরিত্রের প্রত্যেকেরই অনেক ডেট এবং গুরুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে, যেমন মনিকার সঙ্গে রিচার্ড বুর্ক এবং রসের সঙ্গে এমিলি ওয়াল্থাম। রস্ এবং রেচেলের বিরতিহীন সম্পর্ক সবচেয়ে প্রায়ই-পুনরাবৃত্তি কাহিনী; শো এর দশ সিজন ধরে তারা বারংবার ডেট এবং ব্রেক-আপ করে, এমনকি যখন রস সংক্ষিপ্তভাবে এমিলিকে বিয়ে করে, তার এবং রেচেলের একটি শিশু হয়, চ্যান্ডেলার এবং মনিকা একে অপরকে ডেট এবং বিয়ে করে, এবং ফিবি মাইক্ হ্যানিগানকে বিয়ে করে। অন্যান্য আবর্তক চরিত্রগুলি হল লং আইল্যান্ডবাসী রস্ এবং মনিকার বাবা-মা, রসের প্রাক্তন স্ত্রী এবং তাদের পুত্র, সেন্ট্রাল পার্কের ব্যারিস্টা গান্থার, চ্যান্ডেলারের প্রাক্তন বান্ধবী জ্যানিস্ এবং ফিবি-এর যমজ বোন আর্সলা

চরিত্রসমূহ[সম্পাদনা]

সিরিজের সম্পূর্ণ রানে ছয়টি মূল চরিত্র বৈশিষ্ট্যযুক্ত:

  • জেনিফার অ্যানিসন অভিনয় করেছেন রেচেল গ্রিন, একটি ফ্যাশন উৎসাহী এবং শৈশবকাল থেকে মনিকা গেলারের সেরা বন্ধু। রেচেল প্রথম সিজনে ব্যারি ফার্বারের সাথে বিয়ে হওয়ার পর তাকে ভালোবাসে না বুঝতে পেরে মনিকার সাথে একসাথে থাকা শুরু করে। রেচেল এবং রস গেলার সিরিজ জুড়ে বারবার ভাঙা-গড়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। রেচেল সিরিজের দরুণ অন্য়ান্য পুরুষদের ডেট করে, যেমন প্রথম সিজনে ইটালীয় প্রতিবেশী পাওলো; চতুর্থ সিজনে ব্লুমিংডেলস্-এর এক ক্লায়েন্ট জোশুয়া বার্গিন; সপ্তম সিজনে তার সহকারী ট্যাগ জোন্স; এবং দশম সিজনে জোই ট্রিবিয়ানি। রেচেলের প্রথম কাজ ছিল কফিহাউস সেন্ট্রাল পার্কের ওয়েট্রেস, কিন্তু পরবর্তীতে তৃতীয় সিজনে ব্লুমিংডেলস্-এর একজন সহকারী ক্রেতা এবং পঞ্চম সিজনে রাল্ফ লরেনের একজন ক্রেতা। রেচেল এবং রসের এমা নামে একটি মেয়ে হয় অষ্টম সিজনের "দ্য ওয়ান হোয়ার রেচেল হ্যাস এ বেবি, পার্ট টু" পর্বের শেষে। সিরিজের চূড়ান্ত পর্বে, রস্ এবং রেচেল অবশেষে উভয়ে তাদের ভালবাসা স্বীকার করেন এবং রেচেল তার প্যারিসের চাকরি ছেড়ে দেয়।
  • কর্টনি কক্স অভিনয় করেছেন মনিকা গেলার, দলের পালক মাতা এবং একজন শেফ[১৫], যে কিনা তার পূর্ণতাবাদিতা, কর্তৃত্বপ্রেম, প্রতিযোগী মনোভাবীতা এবং অতিরিক্ত-বাধ্যতামূলক প্রকৃতির জন্য পরিচিত।[১৬][১৭] মনিকার সঙ্গে প্রায়ই তার ছেলেবেলার মাত্রাতিরিক্ত ওজন নিয়ে ঠাট্টা করা হয়। সিরিজে মনিকাকে বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় শেফ হিসেবে কাজ করতে দেখা যায়। মনিকা এর প্রথম গুরুতর ভালবাসা হয় তার দীর্ঘদিনের পারিবারিক বন্ধু রিচার্ড বার্কের সাথে, যিনি তার থেকে একুশ বছর বড় ছিল। দম্পতিটি কিছু সময়ের জন্য একটি দৃঢ় সম্পর্ক বজায় রাখে, যতক্ষণ না রিচার্ড প্রকাশ করেন যে তিনি সন্তান চান না। এরপর মনিকা এবং চ্যান্ডেলার বিং সিজন চারের শেষ পর্বে লন্ডনে একে অপরের সাথে রাত কাটানোর পর একে অপরকে ভালোবাসতে শুরু করে, যার ফলে সিরিজের শেষে তাদের বিয়ে হয় এবং সিরিজের শেষে যমজ বাচ্চা দত্তক নেয়।
  • লিসা কুড্রো অভিনয় করেছেন ফিবি বুফে, একজন খামখেয়ালী অঙ্গমর্দিকা এবং স্বশিক্ষিত সঙ্গীতজ্ঞ। ছোটবেলায়, ফিবি তার মায়ের সঙ্গে আপটাউন নিউ ইয়র্কে বাস করত, যতক্ষণ না তিনি আত্মহত্যা করেন এবং ফিবি রাস্তায় বাস করতে শুরু করে। ফিবি বিচলিত কিন্তু রাস্তার রাজা। সে নিজের বিচিত্র গান লেখে ও গায়, সঙ্গে থাকে তার গিটার। তার একটি "দুষ্ট" অভিন্ন যমজ বোন রয়েছে আর্সলা নামে, যে ফিবিরই মত বিচিত্র, তবে ফিবির বিপরীতে স্বার্থপর মনোভাবী। ফিবি শিশুসুলভ এবং সরল প্রকৃতির। সে তার অতীতের দুর্ঘটনা যেমন মায়ের আত্মহত্যা প্রভৃতিকে স্বতঃস্ফূর্ত উপহাস করার জন্য ব্যবহার করে। সিরিজে ফিবিকে তিনটি গুরুতর ভালবাসায় যেতে দেখা যায়: ডেভিড, একজন সায়েন্টিস্ট, প্রথম সিজনে, যে একটি গবেষণা অনুদান মিনস্কে যাওয়ার কারণে সম্পর্ক শেষ করে দেয়; গ্যারি, একটি পুলিশ অফিসার যার ব্যাজ সে খুঁজে পায়, পঞ্চম সিজনে; এবং মাইক হ্যানিগানের সঙ্গে বারবার ভাঙা-গড়া সম্পর্ক নবম ও দশম সিজনে। নবম সিজনে ফিবি এবং মাইক বিয়ে করতে না চাওয়ার কারণে সম্পর্ক ভেঙে দেয়। ডেভিড মিনস্ক থেকে ফিরে আসে, ফলে দুজনে একত্রিত হয়, কিন্তু উভয়েই বিয়ের প্রস্তাব রাখলে সে তাকে মাইকের জন্য ছেড়ে দেয়। ফিবি ও মাইক একে অপরকে দশম সিজনে বিয়ে করে।[১৮][১৯]
  • ম্যাট লেব্লাঙ্ক অভিনয় করেছেন জোই ট্রিবিয়ানি, একজন সংগ্রামরত অভিনেতা এবং খাদ্যপ্রেমী, যে ডেজ্ অফ আওয়ার লাইভস্ নামক ধারাবাহিক নাটকে ডাঃ ড্রেক রেমোরায়ের ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য বিখ্যাত হয়েছিল। জোই একজন সিধাসাধা স্বতঃপ্রণোদিত মহিলাবাদী যার অনেক স্বল্পমেয়াদী প্রেমিকা ছিল। তা সত্ত্বেও, জোই সরল, যত্নশীল এবং সুপ্রশিত।[২০] জোই প্রায়ই তার প্রিয় পিক-আপ লাইন "কী চলছে?" ("How you doin'?") ব্যবহার করে অধিকাংশ মহিলাদের মন জিততে। জোই বহু বছর ধরে তার সেরা বন্ধু চ্যান্ডেলারের সাথে বাস করেছে, এবং পরবর্তীতে রেচেলের সাথে। অষ্টম সিজনে সে রেচেলের সঙ্গে প্রেমে পড়ে যায়,[২১] কিন্তু রেচেল তাকে বোঝায় যে সে জোই-এর প্রতি টান অনুভব করে না। দশম সিজনে তারা শেষ পর্যন্ত একে অপরকে ডেট করে, কিন্তু বন্ধুত্বের কারণে এবং রসের সঙ্গে থাকা জটিল সম্পর্ক ভালবাসা কাজ করবে না বুঝতে পারে, শেষে তারা বন্ধুত্বই বজায় রাখে।
  • ম্যাথু পেরি অভিনয় করেছেন চ্যান্ডেলার বিং, একটি বৃহৎ বহুজাতিক কর্পোরেশনের একজন পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ ও তথ্য পুনঃসংস্কার নির্বাহী। চ্যান্ডেলার তার কাজকে ভালবাসে না, যদিও এতে আয় অনেক হয়। প্রথম সিজনে সে চাকরি ছাড়তে চেয়েছিল, কিন্তু নতুন অফিস এবং বেতন বৃদ্ধিতে প্রলুব্ধ হয়ে ফিরে আসে। অবশেষে নবম সিজনে টুলসাতে স্থানান্তরের সময়ে সে চাকরি ছেড়ে দেয়। পরে সে সিজনের পরবর্তী অংশে একটি বিজ্ঞাপন সংস্থার একজন জুনিয়র কপিরাইটারের চাকরি নেয়। চ্যান্ডেলারের একটি অদ্ভুত পারিবারিক ইতিহাস রয়েছে, সে একজন কামদ ঔপন্যাসিক মাতা এবং একজন সমকামী(gay), ক্রস-ড্রেসিং লাস ভেগাস খ্যাত বাবার ছেলে। চ্যান্ডলার তার হাস্যরসাত্মক অনুভূতি এবং ভালবাসায় দুর্ভাগ্য়ের জন্য পরিচিত।[২২] সপ্তম সিজনে চ্যান্ডেলার মনিকাকে বিয়ে করে, এবং সিরিজের শেষে যমজ বাচ্চা দত্তক নেয়। মনিকার সঙ্গে সম্পর্কের আগে, চ্যান্ডেলার প্রথম সিজনে জ্যানিস্ হস্টেনস্টাইনকে ডেট করে এবং তার পরে অনেকবার তার সঙ্গে ব্রেক-আপও হয়। ম্যাথু পেরি তার চরিত্রের সাথে তার নিজের মিলগুলো প্রকাশ করেছেন, যেমন শোটি শুরুর প্রথমদিকে মহিলাদের সঙ্গে কথা বলতে অসুবিধা বা অদ্ভুত নীরবতা ভাঙ্গার জন্য রসিকতার সাহায্য নেওয়া।[২৩]
  • ডেভিড শুইমার অভিনয় করেছেন রস্ গেলার, মনিকার বড় ভাই, প্রাকৃতিক ইতিহাসের জাদুঘরে (Museum of Natural History) কর্মরত একজন জীবাশ্মবিদ, এবং পরবর্তীতে নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবাশ্মবিজ্ঞানের স্নাতকোত্তর অধ্যাপক। রস একটি মিষ্টি প্রকৃতির মানুষ, যদিও সে প্রায়ই বেখাপ্পা এবং সামাজিকভাবে অদ্ভুত আচরণ করে। রস্ সিরিজ জুড়ে রেচেলের সঙ্গে বারবার ভাঙা-গড়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। সিরিজের তার তিনটি ব্যর্থ বিয়ে হয়: ক্যারোল উইলিক, একজন সমকামী যে তার পুত্র বেন-এর মা; এমিলি ওয়ালথাম, যে বিয়ের সময়ে রসের ভুলবশত বিবাহপ্রতিজ্ঞায় রেচেলের নাম বলায় তালাক দিয়ে দেয়; এবং রেচেল, তারা মদ্যপ অবস্থায় লাস ভেগাসে বিয়ে করে। তার ব্যর্থ প্রেম জীবনের সম্ভাব্য কারণ হল তার প্রেমজীবনে ভ্রমবাতুলতা এবং ঈর্ষা, এবং এই কারণে তার তালাকের ঘটনাগুলি সিরিজে প্রায়শ হওয়া ঠাট্টার মধ্যে অন্যতম। অষ্টম সিজনের শেষে একটি ওয়ান নাইট স্ট্যান্ড (one-night stand) -এর ফলে তার এবং রেচেলের একটি মেয়ে হয় এমা নামে। সিরিজ শেষে তারা অবশেষে স্বীকার করে যে তারা একে অপরকে এখনও ভালবাসে।

অভিনয়[সম্পাদনা]

মুখ্য অভিনেতাগণ, "ফ্রেন্ডস্"
২০০৮ সালে জেনিফার অ্যানিস্টন 
১৯৯৫ সালে কর্টনি কক্স 
২০০৯ সালে লিসা কুড্রো 
১৯৯৫ সালে ম্যাট লেব্লাঙ্ক 
২০০৭ সালে ম্যাথু পেরি 
২০০৫ সালে ডেভিড শুইমার 

তাদের প্রথম সিজনের মূল চুক্তিতে, অভিনেতাদেরকে প্রতি পর্বের জন্য ২২,৫০০ মার্কিন ডলার বেতন দেওয়া হয়।[২৪] দ্বিতীয় সিজনে অভিনেতাদের একেকজনকে এক এক রকম বেতন দেওয়া হয়, প্রতি পর্বের জন্য ২০,০০০ থেকে ৪০,০০০ মার্কিন ডলারের মধ্যে।[২৪][২৫] তৃতীয় সিজনে তাদের বেতন বিষয়ে আলোচনার আগে, ওয়ার্নার ব্রাদার্স পৃথকভাবে আলোচনা করতে চাইলেও তারা একত্রিতভাবে আলোচনার সিদ্ধান্ত নেয়।[২৬] ফলে অভিনেতাদের সবাইকে তাদের মধ্যে সর্বনিম্ন বেতনবিশিষ্টের সমান বেতন দেওয়া হয়, ফলে অ্যানিস্টন ও শুইমারের বেতন কমে যায়। তাদের প্রত্যেকে প্রতি পর্বপিছু তৃতীয় সিজনে ৭৫,০০০ মার্কিন ডলার, চতুর্থ সিজনে ৮৫,০০০ মার্কিন ডলার, পঞ্চম সিজনে ১০০,০০০ মার্কিন ডলার, ষষ্ঠ সিজনে ১২৫,০০০ মার্কিন ডলার, সপ্তম ও অষ্ট্ম সিজনে ৭৫০,০০০ মার্কিন ডলার, এবং নবম ও দশম সিজনে ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পায়, ফলে অ্যানিস্টন, কক্স, এবং কুড্রো সর্বকালের সর্বাধিক বেতনপ্রাপক টিভি অভিনেত্রী হয়ে ওঠে।[২৭][২৮][২৯] ২০০০ সালে পুনর্বিবেচনার পর থেকে অভিনেতারা সিন্ডিকেশন রয়্যালটিও পেতে শুরু করে। সেই সময়ে, শো এর লাভজনক ব্যাক এন্ড মুনাফার একটি অংশ যে আর্থিক সুবিধা শুধুমাত্র যেসব অভিনেতাদের মালিকানা আছে তাদের দেওয়া হত, যেমন জেরি সেইনফিল্ড ও বিল কসবি।[৩০]

সিরিজ স্রষ্টা ডেভিড ক্রেন ছয়জন অভিনেতাকে সমানভাবে বিশিষ্ট হতে চেয়েছিলেন,[৩১] এবং এই সিরিজটি "প্রথম সত্যিকারের 'পাঁচমিশেলি' অনুষ্ঠান" হিসাবে প্রশংসিত হয়েছিল।[৩২] সকল অভিনেতাই এই ঐক্যবদ্ধতা বজায় রাখে এবং কাউকেই কর্তৃত্ব করার অনুমতি দেয়নি;[৩২] তারা পুরষ্কারের জন্য একই অভিনেত্র শ্রেণিতে প্রবেশ করে,[৩৩] সম্মিলিতভাবে বেতনের কথাবার্তা করা বেছে নেয়,[৩২] এবং প্রথম সিজনে ম্যাগাজিনের কভার ফটোতে একসঙ্গে উপস্থিত হওয়ার জন্য বলা হয়।[৩৪] অভিনেতারা পর্দার পিছনেও খুব ভালো বন্ধু হয়ে ওঠে, এর ফলে আবর্তক আগন্তুক তারকা টম সেলেক বলেন যে তিনি কখনও কখনও অনুভব করেন যে তিনি বাইরে রয়েছেন।[৩৫]

সিরিজ শেষের পরেও তারা ভাল বন্ধু হয়ে থাকে, বিশেষ করে কক্স ও অ্যানিস্টন, এনিস্টন কক্স ও ডেভিড আর্কুয়েটের কন্যা কোকোর ধর্মমাতা হয়।[৩৬] অনুমোদিত বিদায়স্মারক বই ফ্রেন্ডস টিল দ্য এন্ড (Friends 'Til the End) -এ, প্রত্য়েকা আলাদাভাবে সাক্ষাত্কারে স্বীকৃতি দেয় যে তারা প্রত্যেকেই একে অপরের পরিবার হয়ে গেছে।[৩৭]

মৌসুমের ধারাবাহিকতা[সম্পাদনা]

প্রথম মৌসুমে নাটকটির ছয় চরিত্রঃ রেচেল, মনিকা, ফিবি, জোই, চ্যান্ডলার ও রস্‌- এর সাথে পরিচয় করানো হয়। রেচেল তার হবু বর, ব্যারি কে বিয়ের আসরে রেখেই পালিয়ে আসে সেন্ট্রাল পার্ক ক্যাফে তে এবং মনিকার বাসায়ে ওঠে তার রুমমেট হিসেবে। রস্‌ রেচেলের প্রতি তার ভালবাসা প্রকাশের প্রয়াস চালিয়ে যেতে থাকে, যদিও সে এবং তার সাবেক স্ত্রী ক্যারল তাদের অনাগত সন্তানের অপেক্ষায় আছে। জোই একজন অভিনেতা হওয়ার আপ্রান চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকে। ফিবি একজন অঙ্গসংস্থানকারী, পাশাপাশি সে সেন্ট্রাল পার্ক ক্যাফে তে সঙ্গীত পরিবেশন করে। চ্যান্ডলার জ্যানিস নামে একটি মেয়ের সাথে ভালোবাসার সম্পর্ক ছিন্ন করে কিন্তু মৌসুমের শেষে সে আবার চ্যান্ডলারের জীবনে প্রত্যাবর্তন করে। মৌসুমের শেষ পর্বে চ্যান্ডলার দুর্ঘটনাবশত রেচেলের প্রতি রসের ভালোবাসার কথা ফাঁস করে দেয়। রেচেল তখন বুঝতে পারে যে সে নিজেও রসকে ভালোবাসে।

দ্বিতীয় মৌসুমের শুরুতে রেচেল রস্‌কে আবিষ্কার করে জুলি নামের একটি চীনা-আমেরিকান মেয়ের সাথে। জুলি-রস্‌ একই বিশ্ববিদ্যালয় হতে গ্র্যাজুয়েট। রেচেল রস্‌কে পছন্দ করত এবং একপর্যায় সে রস্‌কে তার মনের কথা জানায়। এরপর তারা ভালোবাসার সম্পর্কে জড়িয়ে পরে। জোই একটি ডেইলি-সোপ অপেরা ডেজ অফ আওয়ার লাইভস্‌ এ ড. ড্রেক রেমোরে চরিত্রে কাজ করার সুযোগ পায়। কিন্তু এই কাজ তার হাতছাড়া হয় যখন সে এক সাক্ষাৎকারে উল্লেখ করে, সে নিজের স্ক্রিপ্ট নিজেই লেখে। মনিকা তার চেয়ে ২১ বছরের বড় রিচার্ড বার্ক নামের এক চোখের ডাক্তারের সাথে সম্পর্কে জড়ায়ে। সে সদ্য তালাকপ্রাপ্ত এবং মনিকা ও রস্‌ এর বাবার বন্ধু। তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয় যখন মনিকা সন্তান চায়, কিন্তু রিচার্ড অনীহা প্রকাশ করে।

তৃতীয় মৌসুমে সিরিজটি নাটকীয় মোড় নেয়। রেচেল ব্লুমিংডেল নামক একটি ফ্যাশন হাউজে তার ক্যারিয়ার শুরু করে ফলে রস্‌কে সে কম সঙ্গ দিতে শুরু করে। কিন্তু রস্‌ যখন এর কারণ হিসেবে রেচেলের সহকর্মী মার্ককে সন্দেহ করে তখন রেচেল সম্পর্ক ছেদ করার সিদ্ধান্ত নেয়। রস্‌ তখন নেশাগ্রস্থ হয় এবং এক মেয়ের বাসায় রাত্রিযাপন করে। রেচেল তা বুঝতে পারে এবং তার সিদ্ধান্তের কথা জানায়। ওদিকে ফিবি তার জন্মদাতা পিতার খোঁজ করতে গিয়ে আবিষ্কার করে তার সৎমা এবং ছোট সৎভাই কে। জোই তার মঞ্চের এক সহ অভিনেত্রীর প্রতি আকৃষ্ট হয়, মনিকা নতুন করে একজন কোটিপতি সফটওয়্যার ডেভেলপারের সাথে সম্পর্কে জড়ায়।

চতুর্থ মৌসুমেও রস্‌-রেচেল এর বিয়োগের ধারাবাহিকতা চলতে থাকে। যদিও তারা কিছুক্ষণের জন্য সমঝতায় পৌছায়ে কিন্তু পরক্ষনেই তা ভেস্তে যায়। জোই নতুন করে প্রেমে পরে ক্যাথি নাম্নী এক মঞ্চ-অভিনেত্রীর। কিন্তু চ্যান্ডলার প্রকারান্তে ক্যাথিকে জোইর কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়। চ্যান্ডলার ক্যাথিকে ত্যাগ করে যখন সে বুঝতে পারে ক্যাথি অন্য এক পুরুষ সহঅভিনেতার জন্য তার সাথে প্রতারণা করছে। ফিবির সৎভাই ফ্র্যাঙ্কের সাথে অ্যালিস নামের চল্লিশোর্ধ এক মহিলার বিয়ে হয়। ফিবি তার ভাইয়ের বিয়ের উপহার কি চায় জানতে চায়। তখন অ্যালিস তার সন্তান ধারণের অক্ষমতার কথা জানায়, এবং ফিবিকে তাদের সন্তানের সরোগেট হওয়ার অনুরধ জানায়। ফিবি এই প্রস্তাবে রাজি হয়। একটি কুইজ প্রতিযোগিতায় জোই-চ্যান্ডলারের বিপরীতে রেচেল-মনিকা হেরে যায়। শর্ত অনুসারে তারা পরস্পর বাসা পরিবর্তন করে। পরবর্তীতে রেচেল ও মনিকা একটি মজাদার চুক্তির মাধ্যমে তাদের ফ্ল্যাট পুনরুদ্ধার করে। রস্‌ আমেরিকায় বেড়াতে আসা এক ব্রিটিশ মেয়ে এমিলি ওয়াল্টহ্যাম-এর প্রেমে পরে এবং তারা বিয়ের সিদ্ধান্তও নেয়। মৌসুমের শেষ পর্বে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানে আকস্মিকভাবে রেচেল উপস্থিত হয়। রস্‌ বিয়ের শপথবাক্য পাঠ করার সময় এমিলির স্থলে রেচেলের নাম উচ্চারন করে উপস্থিত সবাইকে তাক লাগিয়ে দায়। এই মৌসুমে চ্যান্ডলার ও মনিকা সম্পর্কে জড়ায় যা নাটকটিতে নতুন মোড় এনে দেয়।

পঞ্চম মৌসুমে চ্যান্ডলার-মনিকা তাদের সম্পর্ক কে গোপন রাখার জন্য চেষ্টা চালাতে থাকে, কিন্তু তা পরবর্তীতে জনসমক্ষে আসে। ফিবি তার সৎভাই এর একটি ছেলে ও দুটি মেয়ে শিশুর জন্ম দেয়। রস্‌ তার স্ত্রীর সাথে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার যুদ্ধ চালিয়ে যেতে থাকে। কিন্তু এমিলির কঠিন শর্তের জালে সে হার মানতে বাধ্য হয়। ফিবি গ্যারি নামের এক পুলিশ অফিসারের সাথে সম্পর্ক শুরু করে। মনিকা-চ্যান্ডলার লাস-ভেগাস শহরে বেড়াতে গিয়ে সিদ্ধান্ত নেয় যে তারা বিয়ে করবে। কিন্তু তারা গির্জায় গিয়ে দেখে রস্‌ এবং রেচেল মদ্যপ অবস্থায় চ্যাপেল থেকে বের হয়ে আসছে।

ষষ্ঠ মৌসুমে রস্‌-রেচেল বুঝল তারা কি দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে এবং এর থেকে পরিত্রান পেতে তারা শেষমেশ তালাক নিয়ে নেয়। মনিকা-চ্যান্ডলার একসাথে মনিকার বাসায়ে থাকার সিদ্ধান্ত নেয় এবং পাঁচ বছর পর রেচেল মনিকার বাসা ছেড়ে ফিবির বাসায়ে ওঠে। জোই গোয়েন্দা টিভি সিরিজ ম্যাক অ্যান্ড চি.জ. এর নাম ভুমিকায় কাজ করার সুযোগ পায়। রস্‌ নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয় এর ফুল-টাইম লেকচারারের চাকরি পায় এবং এলিজাবেথ নামের এক ছাত্রীর সাথে সম্পর্ক শুরু করে। ফিবি-রেচেলদের বাসায়ে একদিন অগ্নিকান্ড হয়। ফিবি তখন মনিকার বাসায়, রেচেল জোইর বাসায়ে ওঠে। শেষ পর্বে বহু নাটকীয়তার পর মনিকা-চ্যান্ডলারের বাগদান সম্পন্ন হয়।

সপ্তম মৌসুমটির ঘটনা সাজানো হয়েছে মনিকা-চ্যান্ডলারের বিয়ের প্রস্তুতি নিয়ে। জোইর নাটক ম্যাক অ্যান্ড চি.জ. হঠাৎ বন্ধ হয়ে যায়, কিন্তু সে তার পুরনো শো ডেজ অফ আওয়ার লাইভস এ ফিরে আসার ডাক পায়। ফিবির বাসা ঠিক হলে সে রেচেল কে জানায়। কিন্তু রেচেল-জোই ইতোমধ্যে ভাল রুমমেট তাই সে জোইর সাথে থাকার ইচ্ছাপোষণ করে। শেষ পর্বে মনিকা-চ্যান্ডলারের শুভ পরিনয় হয়। সবাই ধারণা করতে থাকে মনিকা গর্ভবতী, কিন্তু শেষপর্যন্ত শুধু দর্শক বুঝতে পারে মনিকা নয় রেচেল গর্ভবতী।

অষ্টম মৌসুমের প্রথম তিনটি পর্বে রেচেলের অনাগত সন্তানের পিতার খোঁজ করা হয়। পরে জানা যায় আর কেউ নয় রস্‌ রেচেলের সন্তানের বাবা। কিন্তু এটা তাদের বন্ধুত্বের সম্পর্ককে বিন্দুমাত্র রোমান্টিক করে না, বরং রস্‌ একপ্রকার দায়িত্ববোধের জালে জড়িয়ে পরে। এদিকে জোই আবার মনেমনে রেচেল কে পছন্দ করতে শুরু করে। মৌসুমের শেষে রেচেল এমা নামের একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। হাসপাতালে রসের মা রেচেল কে বাড়ির বউ করার কথা জানায়। রস্‌ তাতে নির্লিপ্ত থাকে এবং আংটি তার জ্যাকেটের পকেটে রেখে দেয়। পরে জোই জ্যাকেটের পকেট থেকে পরে যাওয়া আংটি হাঁটুতে ভর দিয়ে তুলে রেচেল কে দেখায়। রেচেল ভাবে জোই হয়তো তাকে প্রস্তাব জানাচ্ছে এবং সে হ্যাঁ বলে। কিন্তু ঘটনাটি ভুল বোঝাবুঝি ছাড়া আর কিছুই নয়।

নবম মৌসুমে রস্‌-রেচেল তাদের নবজাতকের জন্য একসাথে থাকা শুরু করে, রুমমেট হিসেবে। মনিকা-চ্যান্ডলার অনেক চেষ্টার পর জানতে পারে তারা সন্তান ধারনে অক্ষম। ফিবির জীবনে আসে মাইক নামের এক ব্যক্তি, জাকে সে প্রেমিক হিসেবে বেছে নেয়। রেচেল রসের সাথে মনমালিন্য করে মেয়ে সহ জোইর বাসায় ফেরে, সঙ্গে ফেরে তাদের মধ্যকার রোমান্টিকটা। মৌসুমের শেষে রস্‌ সবাইকে নিয়ে বার্বাডোসে যায় প্রত্নতত্তের ওপর তার মূলবক্তৃতা শোনানোর জন্য। শেখানে রস্‌ জোইর প্রেমিকা চার্লির সাথে সম্পর্কে জড়ায়। জোই ও রেচেলের সম্পর্ক দেখানো হয় একটি চুম্বনের দৃশ্যের অবতারণার মাধ্যমে।

সব গল্পের সমাপ্তি টানা হয়ে দশম মৌসুমে। চার্লি ও রসের ছাড়াছাড়ি হয়। জোই ও রেচেল, রস্‌ ও এমার খাতিরে তাদের সম্পর্ক কে বন্ধুত্বের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখে। মনিকা ও চ্যান্ডলার এরিকা নামের এক গর্ভবতী মায়ের কাছ থেকে সন্তান দত্তক নিতে চায়। তারা উপশহরে বাসা পরিবর্তন করে যেতে চায়, যাতে তারা তাদের সন্তানকে সুন্দর পরিবেশে বড় করতে পারে। এদিকে রেচেল প্যারিস শহরে নতুন চাকরির আমন্ত্রণ পায় এবং সেখানে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু রস্‌ অনুভব করল সে এতো বছর ধরে রেচেলকেই শুধু ভালোবেসে এসেছে। কাজেই শেষ মুহূর্তে সে এয়ারপোর্টে যায় এবং রেচেলকে না যাওয়ার জন্য অনুরোধ করে। রেচেল প্রথমে না বললেও পরে প্লেন অনুরোধ করে থামিয়ে রসের কাছে ফিরে আসে। মনিকাদের বাসার গোছগাছ হচ্ছে যখন এরিকা হাসপাতালে জোড়া সন্তানের জন্ম দিচ্ছে। পুরো নাটকটি শেষ হয় যখন সবাই একবার করে মনিকার বাসায় চোখ বোলায় এবং কফি হাউজের দিকে এগিয়ে যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "'Friends' Was Originally Called 'Six of One'"। Abcnews.go.com। এপ্রিল ৫, ২০১২। সংগৃহীত আগস্ট ৩, ২০১৬ 
  2. Matt Lauer (মে ৫, ২০০৪)। "'Friends' Creators Share Show's Beginnings"। NBSnews.com। সংগৃহীত মে ৫, ২০০৪ 
  3. Zach Seemayer (মার্চ ৩১, ২০১৪)। "The 10 Most-Watched TV Series Finales Ever!"। সংগৃহীত মে ২৩, ২০১৫ 
  4. Stacy Conradt (ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৫)। "The 10 Most-Watched Series Finales Ever"। সংগৃহীত মে ২৪, ২০১৫ 
  5. Natalie Kalin (এপ্রিল ২৯, ২০১৫)। "Top 10 Most Watched TV Finales Ever"। HuffingtonPost.com। সংগৃহীত মে ২৪, ২০১৫ 
  6. "'Friends' Finale Is Decade's Most-Watched TV Show"Chicago Tribune। ডিসেম্বর ৪, ২০০৯। সংগৃহীত আগস্ট ১৮, ২০১০ 
  7. "The Most Watched TV Episode of the Decade Was...The Series Finale of 'Friends'"Daily News। New York। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২২, ২০০৯ 
  8. "The 100 Best Tv Shows Of All-Time"Time। সেপ্টেম্বর ৬, ২০০৭। 
  9. "TV Guide Names Top 50 Shows"CBS News। এপ্রিল ২৬, ২০০২। 
  10. "Empire Magazine's 50 Greatest TV Shows of All Time list"। Listal.com। ডিসেম্বর ২৩, ২০০৮। সংগৃহীত এপ্রিল ২, ২০১১ 
  11. "The 50 Greatest TV Shows of All Time"। empireonline.com। ডিসেম্বর ২৩, ২০০৮। সংগৃহীত এপ্রিল ২, ২০১১ 
  12. "Special Collector's Issue: 100 Greatest Episodes of All Time"। TV Guide (June 28 – July 4)। ১৯৯৭। 
  13. "101 Best Written TV Series List" 
  14. Fretts, Bruce; Roush, Matt। "The Greatest Shows on Earth"। TV Guide Magazine 61 (3194-3195): 16–19। 
  15. Lomartire, Paul (সেপ্টেম্বর ৪, ১৯৯৪)। "Fall TV '94"The Palm Beach Post। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০০৯(সদস্যতা প্রয়োজনীয় (help)) 
  16. Bianco, Robert (মার্চ ৩, ২০০৪)। "Friends played great game of poker"USA Today। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ২০, ২০০৯ 
  17. Booth, Jenny (মে ২১, ২০০৬)। "Sarey Carey: Does pride in housework make me bad as well as mad?"The Sunday Times (London)। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ২০, ২০০৯ 
  18. Jicha, Tom (মে ২, ২০০৪)। "They leave as they began: With a buzz"The Baltimore Sun। পৃ: ১। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২৩, ২০০৮ 
  19. Andreeva, Nellie (সেপ্টেম্বর ২০, ২০০৪)। "Kudrow has Comeback; Cox, HBO talk"The Hollywood Reporter। AllBusiness.com। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ২০, ২০০৯ [অকার্যকর সংযোগ]
  20. "Matt LeBlanc – Friends Interview"। NBC। 
  21. McLellan, Dennis (ফেব্রুয়ারি ১২, ২০০৮)। "Married .. With Children Co-Creator Dies"The Baltimore Sun। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২৩, ২০০৮ 
  22. "Friends Star Finally has Chance to Enjoy Success"Los Angeles Times। মার্চ ২৬, ১৯৯৫। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ২০, ২০০৯ 
  23. "Matthew Perry – Friends Interview"। NBC। সংগৃহীত মার্চ ২৯, ২০১২ 
  24. Lowry, Brian (আগস্ট ১২, ১৯৯৬)। "Friends cast returning amid contract dispute"Los Angeles Times। সংগৃহীত মার্চ ৮, ২০০৯ 
  25. Carter, Bill (জুলাই ১৬, ১৯৯৬)। "Friends Cast Bands Together To Demand a Salary Increase"The New York Times। সংগৃহীত মার্চ ৮, ২০০৯ 
  26. Rice, Lynette (এপ্রিল ২১, ২০০০)। "Friendly Fire"Entertainment Weekly। পৃ: ১। সংগৃহীত মার্চ ৮, ২০০৯ 
  27. Guinness World Records 2005: Special 50th Anniversary Edition। Guinness। পৃ: ২৮৮। আইএসবিএন 1-892051-22-2 
  28. Saah, Nadia (জানুয়ারি ২১, ২০০৪)। "Friends til the end"USA Today। সংগৃহীত ডিসেম্বর ১৯, ২০০৮ 
  29. Rice, Lynette (এপ্রিল ২১, ২০০০)। "Friendly Fire"Entertainment Weekly। পৃ: ২। সংগৃহীত মার্চ ৮, ২০০৯ 
  30. Carter, Bill (ফেব্রুয়ারি ১২, ২০০২)। "'Friends' Deal Will Pay Each Of Its 6 Stars $22 Million"New York Times। সংগৃহীত মার্চ ২৮, ২০১২ 
  31. Jicha, Tom (মে ২, ২০০৪)। "They leave as they began: With a buzz"The Baltimore Sun। পৃ: ২। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২৩, ২০০৮ 
  32. McCarroll, Christina (মে ৬, ২০০৪)। "A family sitcom for Gen X - Friends cast a new TV mold"The Christian Science Monitor। সংগৃহীত ডিসেম্বর ১৯, ২০০৮ 
  33. Bianco, Robert (জানুয়ারি ১, ২০০৫)। "The Emmy Awards: Robert Bianco"USA Today। সংগৃহীত ডিসেম্বর ১৯, ২০০৮ 
  34. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; filmhours নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  35. Power, Ed (মে ৬, ২০০৪)। "Why we will miss our absent Friends"Irish Independent। সংগৃহীত ডিসেম্বর ১৯, ২০০৮ 
  36. "People: DeGeneres tries to calm the howling pack"The Denver Post। অক্টোবর ১৮, ২০০৭। সংগৃহীত ডিসেম্বর ১৯, ২০০৮ 
  37. Wild, David (২০০৪)। Friends 'Til the End: The Official Celebration of All Ten YearsTime Warnerআইএসবিএন 1-932273-19-0 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]