ফ্রেড ফ্রির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফ্রেড ফ্রির
Fred Freer 1948 card.jpg
আনুমানিক ১৯৪৮ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ফ্রেড ফ্রির
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামফ্রেডরিক আলফ্রেড উইলিয়াম ফ্রির
জন্ম৪ ডিসেম্বর, ১৯১৫
নর্থ কার্লটন, ভিক্টোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু২ নভেম্বর, ১৯৯৮
মেলবোর্ন, ভিক্টোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ১৭৩)
১৩ ডিসেম্বর ১৯৪৬ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৪০
রানের সংখ্যা ২৮ ১২৮৪
ব্যাটিং গড় ৩২.১০
১০০/৫০ ০/০ ৩/৫
সর্বোচ্চ রান ২৮* ১৩২
বল করেছে ১৬০ ৭৫২৭
উইকেট ১০৪
বোলিং গড় ২৪.৬৬ ২৭.৭৫
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ২/৪৯ ৭/২৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/০ ২৫/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৫ জুলাই ২০১৯

ফ্রেডরিক আলফ্রেড উইলিয়াম ফ্রির (ইংরেজি: Fred Freer; জন্ম: ৪ ডিসেম্বর, ১৯১৫ - মৃত্যু: ২ নভেম্বর, ১৯৯৮) ভিক্টোরিয়ার নর্থ কার্লটন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৪৬ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে ভিক্টোরিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলতেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিংয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন ফ্রেড ফ্রির

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৪৫-৪৬ মৌসুম থেকে ১৯৪৯-৫০ মৌসুম পর্যন্ত ফ্রেড ফ্রিরের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। কিথ মিলারের চেয়েও অধিক নিখুঁতভাবে বোলিং করতে পারতেন। ভিক্টোরিয়ার পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নিতেন। এ দলে খেলাকালীন ১৯৪৬-৪৭ মৌসুমের অ্যাশেজ সিরিজে খেলার সুযোগ লাভ করেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন। ১৩ ডিসেম্বর, ১৯৪৬ তারিখে সিডনিতে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল।

১৯৪৬-৪৭ মৌসুমে ইংরেজ দল অস্ট্রেলিয়া গমনে আসে। দ্বিতীয় টেস্টের প্রাক্কালে শীর্ষস্থানীয় অস্ট্রেলীয় বোলার রে লিন্ডওয়াল জলবসন্ত রোগে আক্রান্ত হলে সিডনি টেস্টে অংশ নেন তিনি। প্রথমে ইনিংসে সিরিল ওয়াশব্রুককে এক রানে আউট করেন। দ্বিতীয় ইনিংসে প্রথমে বলেই লেন হাটনকে বিদেয় করার জোরালো আবেদন আম্পায়ার কর্তৃক প্রত্যাখ্যাত হয়। এরপর ডেনিস কম্পটনকে ৫৪ রানে ডন ব্র্যাডম্যানের কটে ও জ্যাক ইকিনকে ১৭ রানে বোল্ড আউট করেন। খেলায় তিনি ১/২৫ ও ২/৪৯ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান। অস্ট্রেলিয়ার জয়ের জন্যে রানের প্রয়োজন পড়লে দ্রুত সাড়া দেন। খেলায় প্রথমবারের মতো ব্যাটিংয়ে নামেন। তিনটি চার ও একটি ছক্কার সাহায্যে অপরাজিত ২৮ রান তুলেন। খেলায় তার দল ইনিংস ও ৩৩ রানে জয় পেয়ে পাঁচ টেস্টে গড়া সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায়। পরবর্তীতে রে লিন্ডওয়াল সুস্থ দেহে পরের টেস্টে খেলতে নামেন ও ফ্রেড ফ্রিরকে দলের বাইরে চলে আসতে হয়। এরপর আর তাকে অস্ট্রেলিয়া দলের পক্ষে খেলতে দেখা যায়নি।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ক্রিকেটের পাশাপাশি অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবলে দক্ষ ছিলেন তিনি। ভিক্টোরিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনে ইয়ারাভিলের পক্ষে খেলতেন।[২] ২ নভেম্বর, ১৯৯৮ তারিখে ৮২ বছর বয়সে ভিক্টোরিয়ার মেলবোর্ন এলাকায় ফ্রেড ফ্রিরের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Australia – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৯ 
  2. Atkinson, G. (1982) Everything you ever wanted to know about Australian rules football but couldn't be bothered asking, The Five Mile Press: Melbourne. আইএসবিএন ০ ৮৬৭৮৮ ০০৯ ০. p. 184.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]