ফ্রানয মেহরিং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফ্রানয এর্দমান মেহরিং
FranzMehringigen.jpg
ফ্রানয মেহরিং
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম(১৮৪৬-০২-২৭)২৭ ফেব্রুয়ারি ১৮৪৬
স্লানো, পোমেরানিয়া, পোল্যান্ড
মৃত্যু২৮ জানুয়ারি ১৯১৯(1919-01-28) (বয়স ৭২)
জাতীয়তাপোলিশ
পেশারাজনীতিবিদ, ঐতিহাসিক

ফ্রানয এর্দমান মেহরিং (জার্মান: Franz Erdmann Mehring) (২৭শে ফেব্রুয়ারি, ১৮৪৬ - ২৮শে জানুয়ারি, ১৯১৯) ছিলেন জার্মান শ্রমিক আন্দোলনের কর্মী, জার্মান সমাজ-গণতন্ত্রী দলের বামপন্থি অংশের অন্যতম নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিত্ত্ব, তাত্ত্বিক, প্রচারক, রাজনীতিবিদঐতিহাসিক

জন্ম ও শৈশব[সম্পাদনা]

মেহরিং ১৮৪৬ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি পোল্যান্ডের পোমেরানিয়া অঞ্চরের স্লানোতে এক বুর্জোয়া পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

তিনি কর্মজীবনে নানা দৈনিক ও সাপ্তাহিক পত্রিকায় লেখালেখি করতেন। তিনি সাপ্তাহিক Die Neue Zeit- বা "নবযুগ"-এর অন্যতম সম্পাদক ছিলেন। ১৮৮৪ সালে তিনি বার্লিনের উদার পত্রিকা Volks-Zeitung-এর প্রধান সম্পাদকের দায়িত্ব পান। ১৮৭৮ সালে বিসমার্ক জার্মানিতে সমাজতন্ত্র-বিরোধী জরুরি আইন প্রণয়ন করলে মেহরিং তার বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করেন।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

রোগ ভোগের সময় ১৯১৯ সালের জানুয়ারি মাসে তার দুই সহযোদ্ধা কার্ল লাইবনেখতরোসা লুক্সেমবুর্গের হত্যাকাণ্ডের ফলে গভীর আঘাত পাওয়ায় ঠিক দু'সপ্তাহ পরে ২৮ জানুয়ারি বার্লিনে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

মেহরিংডাম, মেহরিংপ্রাট্জ এবং কামেঞ্জে অবস্থিত এনপিএ-এর বিমান বাহিনীর অফিসার্স একাডেমী তার নামে নামকরণ করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Pierre Broué, The German Revolution, 1917-1923 (1971). John Archer, trans. Chicago: Haymarket Books, 2006; pg. 977.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]