বিষয়বস্তুতে চলুন

ফৌসিয়া মামপাত্তা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ফৌসিয়া মামপাত্তা
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম ফৌসিয়া মামপাত্তা
জন্ম ১৯৬৮
জন্ম স্থান কোঝিকোড়, কেরালা, ভারত
মৃত্যু ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১(2021-02-25) (বয়স ৫২–৫৩)
মাঠে অবস্থান গোলরক্ষক
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
কেরালা
পরিচালিত দল
২০০৫ - ২০০৬ কেরালা
* কেবল ঘরোয়া লিগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে

ফৌসিয়া মামপাত্তা (১৯৬৮ – ১৯শে ফেব্রুয়ারি ২০২১) ছিলেন একজন ভারতীয় মহিলা ফুটবল খেলোয়াড়, কোচ, ক্রীড়াবিদ এবং ম্যানেজার। তিনি কেরালার প্রথম দিকের মহিলা ফুটবলারদের একজন এবং রাজ্যের প্রথম মহিলা ফুটবল প্রশিক্ষক ছিলেন।[১] তিনি ১৭ বছরেরও বেশি সময় ধরে প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন।[২] কেরালার মহিলাদের মধ্যে ফুটবল সংস্কৃতি প্রচারের জন্য ফৌসিয়াকে একজন বিশেষ মহিলা হিসাবে বিবেচনা করা হয়। তিনি মালাবারে ফুটবলের রাষ্ট্রদূত হিসাবে পরিচিত ছিলেন।[৩] একজন ফুটবলার এবং ভারোত্তোলক ছাড়াও, তিনি কেরালার হকি এবং ভলিবল দলেরও অংশ ছিলেন।[৪]

প্রারম্ভিক জীবন এবং কর্মজীবন

[সম্পাদনা]

প্রথমে তিনি ভারোত্তোলনে অংশগ্রহণ করেছিলেন, এরপর তিনি অন্যান্য খেলার দিকে যান। তিনি দক্ষিণ ভারত চ্যাম্পিয়নশিপে ভারোত্তোলনে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন। ফৌসিয়া জেলা হ্যান্ডবল দল ও ফিল্ড হকি দলেরও সদস্য ছিলেন। তিনি জুডোতেও একজন অংশগ্রহণকারী ছিলেন এবং রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন।[৫]

ফৌসিয়া একজন গোলরক্ষক হিসাবে খেলেছেন এবং জাতীয় গেমস এবং জুনিয়র গার্লস জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে কেরালার প্রতিনিধিত্ব করেছেন।[৬]

প্রশিক্ষক জীবন

[সম্পাদনা]

২০০৩ সালে, তিনি নাদাক্কাভু সরকারি স্কুলে ফিরে আসেন, এবার কেরালা ক্রীড়া পরিষদ কর্তৃক নিযুক্ত একজন ফুটবল প্রশিক্ষক হিসেবে। ২০০৫ সালে, ফৌসিয়া কেরালার সিনিয়র মহিলা দলের কোচ ছিলেন যে দলটি মণিপুরে অনুষ্ঠিত জাতীয় সিনিয়র মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপে তৃতীয় স্থান অর্জন করেছিল। ২০০৬ সালে, কেরালা মহিলা দল তাঁর অধীনে প্রশিক্ষণ নিয়ে উড়িষ্যায় অনুষ্ঠিত সিনিয়র জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে রানার্স আপ হয়।[৭] ২০০৮ সালে, নাদাক্কাভু স্কুলের ছয়জন খেলোয়াড় অনূর্ধ্ব - ১৪ কেরালা দলের অংশ হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে দলের অধিনায়ক নিখিলা পরে জাতীয় দলে নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে, নাদাক্কাভু থেকে রাজ্য দলে নির্বাচিত খেলোয়াড়ের সংখ্যা বেড়ে সাতটিতে পরিণত হয় যার মধ্যে একজনকে পরে জাতীয় দলে নির্বাচিত করা হয়।[৮]

মৃত্যু

[সম্পাদনা]

২০১৬ সালে ফৌসিয়ার ক্যান্সার ধরা পড়ে।[৯] রোগের সাথে লড়াই করার পর, তিনি ২০২১ সালের ১৯শে ফেব্রুয়ারি মারা যান।[১০]

উত্তরাধিকার

[সম্পাদনা]

ফৌসিয়া কেরালার নারী ফুটবলের অন্যতম পথিকৃৎ হিসেবে বিবেচিত হন।[১১] তাঁর মূল লক্ষ্য ছিল শুধু ফুটবল নয়, রাজ্যের মহিলাদের মধ্যে সমস্ত ধরণের খেলার প্রচার করা। তিনি কেরালা রাজ্যের স্কুল খেলাধুলা এবং গেমসে একটি প্রতিযোগিতামূলক ইভেন্ট হিসাবে মেয়েদের ফুটবল অন্তর্ভুক্ত করার ক্ষেত্রে প্রধান ভূমিকা পালন করেছেন বলে জানা যায়। ২০১৩ সালে, তিনি রাজ্যের স্কুল গেমসে মহিলাদের ফুটবল অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা করেছিলেন।[১২]

সম্মান

[সম্পাদনা]

ম্যানেজার

[সম্পাদনা]

কেরালা

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "Kerala's first woman football coach Fousiya passes away"The New Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০২-২৩ 
  2. "Kerala's first female footballer and coach Fousiya passes away | Football News - Times of India"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  3. "ഫുട്ബോൾ പരിശീലക ഫൗസിയ മാമ്പറ്റ നിര്യാതയായി | Kerala | Deshabhimani | Friday 19 Feb 2021"www.deshabhimani.com। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  4. "I am... Fousiya M - Football coach"The Hindu। ২১ মার্চ ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  5. "Former football player and coach Fousiya Mampatta passes away"Mathrubhumi। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  6. Web Desk (১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১)। "ആദ്യകാല വനിതാ ഫുട്ബോൾ താരം ഫൗസിയ മാമ്പറ്റ അന്തരിച്ചു"MediaOne News | Latest Malayalam News from MediaOne Tv (মালায়ালাম ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  7. "ഫുട്‌ബോള്‍ താരവും പരിശീലകയുമായ ഫൗസിയ മാമ്പറ്റ അന്തരിച്ചു"Indian Express Malayalam (মালায়ালাম ভাষায়)। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  8. ലേഖകൻ, മാധ്യമം (১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১)। "കളിയല്ലിത് ജീവിതം..."Madhyamam (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  9. "ഫുട്ബോൾ പരിശീലക ഫൗസിയ മാമ്പറ്റ അന്തരിച്ചു"www.manoramanews.com। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  10. "ഫുട്ബോൾ പരിശീലക ഫൗസിയ മാമ്പറ്റ അന്തരിച്ചു | Football coach and former Kerala player Fousiya Mambatta died"www.asianetnews.com। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  11. "Women's football pioneer Fousiya Mampatta no more"OnManorama। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  12. "Fouzia Mampetta is the address of Kerala Women's Football! There are no untouched areas in sports"malayalam.samayam.com (মালায়ালাম ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১