ফোর্টিনেট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফোর্টিনেট ইঙ্ক
পাবলিক
ব্যবসা হিসেবেন্যাসড্যাকFTNT
S&P 400 Component
শিল্পনেটওয়ার্ক নিরাপত্তা এবং কম্পিউটার নিরাপত্তা
প্রতিষ্ঠাকাল২০০০; ১৯ বছর আগে (2000)
প্রতিষ্ঠাতাপ্রধান কার্যনির্বাহক: কেন সীঈ
মূখ্য প্রযুক্তি কর্মকর্তা: মাইকেল সীঈ
সদরদপ্তরসানিভেল, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
পণ্যসমূহফোর্টিনেট সিকিউরিটি ফেব্রিক ;[১] ফোর্টিগেইট ইউ টি এম, ফায়ারওয়াল, পরবর্তী প্রজন্মের ফায়ারওয়াল, এন্টিভাইরাস, অনধিকার প্রবেশ নিরোধক পদ্ধতি, এন্টি স্পাইওয়্যার, এন্টি স্প্যাম, ভি পি এন, তারবিহীন নিরাপত্তা, এপ্লিকেশান কন্ট্রোল, ওয়েব ফিল্টারিং
আয়১.২৮ বিলিয়ন ইউ এস ডলার (২০১৬)[২]
৪২.৯ মিলিয়ন ইউ এস ডলার (২০১৬)[২]
৩২.২ মিলিয়ন ইউ এস ডলার (২০১৬)[২]
মোট সম্পদ২.১৪ বিলিয়ন ইউ এস ডলার (২০১৬)[২]
মোট ইকুইটি৮৩৭.৬৮ মিলিয়ন ইউ এস ডলার (২০১৬)[২]
কর্মীসংখ্যা
৪,৬৬৫[২]
ওয়েবসাইটwww.fortinet.com

ফোর্টিনেট যুক্তরাষ্ট্রের সানিভেল, ক্যালিফোর্নিয়ায় অবস্থিত একটি মার্কিন বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটি সাইবার নিরাপত্তা সম্পর্কিত সফটওয়্যার, যেমন ফায়ারওয়াল, এন্টি-ভাইরাস ইত্যাদি উৎপাদন করে থাকে। রাজস্বের দিক থেকে এটি চতুর্থতম নেটওয়ার্ক নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান।

কেন এবং মাইকেল সীঈ ভ্রাতৃদ্বয় ২০০০ সালে এই প্রতিষ্ঠানটি স্থাপন করেন। ২০০৪ সালের মধ্যে প্রতিষ্ঠানটি তহবিলের জন্য ৯৩ মিলিয়ন ডলার উত্তোলন করে এবং উন্মোচন করে ১০টি ফোর্টিনেট যন্ত্রপাতির। সেই একই বছর ছিল ফোর্টিনেট এবং ট্রেন্ড মাইক্রো’র মধ্যে পেটেন্ট ঘটিত চলমান বিরোধ। ২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠানটি সর্বসাধারণের জন্য শেয়ার বাজারে প্রবেশ করে এবং আই পি ও’র মাধ্যমে ১৫৬ মিলিয়ন ডলার উত্তোলন করে। ২০০০ সাল জুড়ে কোম্পানিটি এর উৎপন্নজাত দ্রব্যে নানাবিধ পণ্য যোগ করে যেমন বেতার তথ্য আদান-প্রদান (wireless access points), স্যান্ডবক্সিং (sandboxing), বার্তা নিরাপত্তা (messaging security) ইত্যাদি।  

প্রাতিষ্ঠানিক ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক ইতিহাস[সম্পাদনা]

ফোর্টিনেট ২০০০ সালে কেন ও মাইকেল সীঈ ভ্রাতৃদ্বয় দ্বারা ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের সানিভেলে স্থাপিত হয়।[৩] প্রিতিষ্ঠাতাগণ ক্রমান্বয়ে পূর্বে নেটস্ক্রিন (NetScreen) ও সার্ভগেটে (ServGate) নামে দু’টি প্রতিষ্ঠানে কার্যনির্বাহী পদে চাকুরিরত ছিলেন।[৪] প্রাথমিক পর্যায়ে কোম্পানিটির নাম ছিল এপ্লিগেশান ইঙ্ক (Appligation Inc.), তারপর ২০০০ সালের ডিসেম্বরে নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় এপসিকিউর (Appsecure), এবং সর্বশেষ নাম রাখা হয় ফোর্টিনেট। ফোর্টিনেট নামটি রাখা হয় ফোর্টিফাইড নেটওয়ার্ক্স (Fortified Networks) এর উপর ভিত্তি করে। প্রতিষ্ঠানটি পন্য উৎপাদন শুরুর আগে ২ বছর গবেষণা ও উন্নয়ন কাজে[৫] নিয়োজিত ছিল।

ফোর্টিনেট ২০০০ থেকে ২০০৩ সালের মধ্যে ব্যক্তিগত তহবিলের মাধ্যমে ১৩ মিলিয়ন ডলার উত্তোলন করে। পরে ২০০৩ সালে আরো ৩০ মিলিয়ন ডলার ও ২০০৪ সালে ৫০ মিলিয়ন ডলার তহবিলে যুক্ত হলে মোট তহবিলের পরিমাণ দাঁড়ায় ৯৩ মিলিয়ন ডলার।[৬] ফোর্টিনেটের মতে ২০০২ থেকে ২০০৩ সালের মধ্যে তাদের রাজস্ব দশ গুণ বৃদ্ধি পায়।[৭] প্রতিষ্ঠানটির প্রথম অংশীদার কর্মসূচি শুরু হয় ২০০৩ সালে।[৮] ২০০৩ সালে ওয়েস্টকন কানাডা (Westcon Canada) ফোর্টিনেট দ্রব্য কানাডায় বিক্রি শুরু করে, অতঃপর ২০০৪ সালে যুক্তরাজ্যের নরউড এডাম (Norwood Adam) কার্যক্রমে শরিক হয়। এই পুনঃবিক্রয় কর্মসূচিটি ২০০৬ সালে পুনর্গঠিত করা হয় এবং নাম রাখা হয় “সক ইন আ বক্স” (SOC in a BOX)। ২০০৪ সালের মধ্যে এশিয়া, ইউরোপ এবং উত্তর আমেরিকায় ফোর্টিনেটের অফিস স্থাপিত হয়।

২০০৫ সালের অক্টোবরে ওপেননেট খোঁজ পায় যে মিয়ানমার সরকার ইন্টারনেট বিবাচনের জন্য ফোর্টিনেটের যন্ত্রপাতি ব্যবহার করছে। ফোর্টিনেটের মতে এর দ্রব্যাদি একটি তৃতীয় পক্ষ পুনঃবিক্রয় করে এবং প্রিতিষ্ঠানটি মিয়ানমারের উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে সম্মান করে, তথাপি ফোর্টিনেটের এক বিক্রেতাকে মিয়ানমারের প্রধানমন্ত্রীর সাথে ছবিতে দেখা যায়।[৯][১০]

আইনগত বিবাদ[সম্পাদনা]

২০০৫ সালে জার্মানির gpl-violations.org এর এক লিনাক্স প্রোগ্রামার ফোর্টিনেট নিয়ন্ত্রণাধীন একটি যুক্তরাজ্যের প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আদালত থেকে প্রাথমিক হুকুম (preliminary injunction) আদায় করেন। তাঁর অভিযোগ প্রতিষ্ঠানটি এর লিনাক্স কার্নেল (Linux kernels) ব্যবহার গোপন করতে এনক্রিপশন ব্যবহার করছিল। লিনাক্স কার্নেল সর্বসাধারণ লাইসেন্স General Public License (GPL) এর আওতাধীন। লাইসেন্সের শর্তানুযায়ী সোর্স কোড জনসমক্ষে প্রকাশ করতে হবে।[১১][১২] পরের মাসে প্রতিষ্ঠানটি এর লাইসেন্সিং জটিলতা মেটাতে এদের নীতিগত পরিবর্তন আনে।[১৩]

২০০৪ সালের মে মাসে ট্রেন্ড মাইক্রো (Trend Micro) ফোর্টিনেটের বিরুদ্ধে একটি আইনী অভিযোগ আনে যে প্রতিষ্ঠানটির এন্টিভাইরাস প্রযুক্তি ট্রেন্ড মাইক্রো’র ইমেইল পর্যবেক্ষণের (email scan) নিয়ম লঙ্ঘন করে।[১৪] সেই বছরের আগস্টে ইন্টারন্যাশনাল ট্রেইড কমিশন (International Trade Commission) ফোর্টিনেটের বিরুদ্ধে আদেশ জারি ক’রে সংশ্লিষ্ট দ্রব্যাদি বিক্রয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। ফোর্টিনেট আদেশ মান্য করলেও বিবৃতিতে বলে যে ট্রেন্ড মাইক্রোর পেটেন্ট ছিল অধিক বিস্তৃত।[১৫] ফোর্টিনেট ও ট্রেন্ড মাইক্রো ২০০৬ সালের জানুয়ারিতে একটি সমঝোতায় আসে এবং ফোর্টিনেট ট্রেন্ড মাইক্রো’র পেটেন্ট এড়াতে এর এন্টিভাইরাসে পরিবর্তন আনে।[১৬][১৭]

কয়েক বছর পরে, ইন্টারন্যাশনাল ট্রেইড কমিশনের একজন আইনজীবি ফোর্টিনেটের বিরুদ্ধে আরেকটি  মামলা দায়ের করেন। তিনি অভিযোগ করেন যে তাঁর বিশ্বাস ট্রেন্ড মাইক্রো সম্পর্কিত প্যাটেন্টগুলি অকার্যকর। ফোর্টিনেট নতুন ক’রে আদালতে মামলা করে এবং ২০১০ সালে যুক্ত্ররাষ্ট্রের প্যাটেন্ট ও ট্রেডমার্ক অফিস (US Patent and Trademark Office) প্যাটেন্টগুলো অকার্যকর ঘোষণা করে।[১৮]

২০১৩ সালের ডিসেম্বরে ফোর্টিনেট সোফোস (Sophos) এর বিরুদ্ধে এই অভিযোগে মামলা দায়ের করে যে সোফোস ফোর্টিনেটের কর্মচারীদের প্রভাবিত করছে এবং ফোর্টিনেটের প্যাটেন্টের নিয়ম ভঙ্গ করছে।[১৯][২০] মামলাটি দু’বছর পর নিষ্পত্তি করা হয়।[২১]

পরবর্তী পর্যায়[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে ফোর্টিনেটের গবেষকগণ অভিযোগ করেন যে জ্যাঙ্গো’র (Zango) একটি ফেইসবুক উইজেট ৩০ লক্ষেরও বেশী ব্যবহারকারীকে ছল-চাতুরি ক’রে ক্ষতিকর স্পাইওয়ার ডাউনলোড করতে প্ররোচিত করে।[২২] জ্যাঙ্গো অভিযোগ অস্বীকার করে।[২৩]

২০০৮ সালের শেষভাগে ফোর্টিনেট ডাটাবেজ নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান আইপিলক্স (IPLocks) ক্রয় করে এবং এর ২৮ জন কর্মচারীকে কাজ দেয়।[২৪] ২০০৯ সালের আগস্টে ফোর্টিনেট উভেন সিস্টেমস (Woven Systems) নামে একটি ইথারনেট সুইচিং প্রতিষ্ঠান।[২৫] আই ডি সি’র (IDC) মতে সে সময় ফোর্টিনেট ছিল সর্ববৃহৎ হুমকি ব্যবস্থাপনা (threat management) প্রতিষ্ঠান, যার শেয়ারের ভাগ ছিল ১৫.৪%।[২৬] প্রতিষ্ঠানটি দৃঢ়ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং ২০০৪-২০০৭ সালে কিছু আর্থিক ক্ষতির পর এখন মুনাফা অর্জন করছে।[২৭] সি আর এন ম্যাগাজিনের (CRN Magazine) পরিসংখ্যান অনুযায়ী ফোর্টিনেট বিস্তৃত হচ্ছে এবং প্রতিষ্ঠানটি ২০০৯ সালে এক নম্বর স্থানে ছিল।[২৮]

২০০৯ সালের নভেম্বরে ফোর্টিনেট আই পি ও (initial public offering) প্রদান শুরু করে। প্রতিষ্ঠানটির লক্ষ্য ছিল ৫৮ লক্ষ শেয়ার বিক্রয়ের মাধ্যমে ৫২.৪ মিলিয়ন ডলার অর্জন করা। একই সাথে অনেক শেয়ারের মালিক তাদের শেয়ার বিক্রয় করে দেন।[২৯] প্রথম দিনের বেচাকেনার পর ফোর্টিনেট তাদের শেয়ারের মূল্য ৯ ডলার থেকে ১২.৫ ডলারে বর্ধিত করে এবং মার্কেটে তা আরো বৃদ্ধি পেয়ে দিনের শেষে ১৬.৬২ ডলারে স্থির হয়। এতে অর্জিত হয় ১৫৬ মিলিয়ন ডলার।[৩০]

সাম্প্রতিক ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০১০ সালের মধ্যে ফোর্টিনেটের বার্ষিক রাজস্য ছিল ৩২৪ মিলিয়ন (৩২ কোটি ৪০ লক্ষ) ডলার। সে বছর ব্লুমবার্গ সংবাদ সংস্থা খবর প্রচার করে যে আই বি এম কোম্পানিটি ক্রয় করতে ইচ্ছুক,[৩১] কিন্তু ফোর্টিনেট তা অস্বীকার করে।[৩২][৩৩] ২০১২ সালের ডিসেম্বরে ফোর্টিনেট এক্স ডি এন (XDN) নামে একটি কোম্পানী ক্রয় করে যেটি ক্রাউড ডাইরেক্টর (CrowdDirector) নামে এপ হোস্টিং (app-hosting) সেবা দিত।[৩৪] ২০১৩ সালে ফোর্টিনেট অপ্রকাশিত মূল্যে কায়োটি পয়েন্ট (Coyote Point) নামে একটি এপ্লিকেশান বিতরণ কোম্পানি ক্রয় করে।[৩৫][৩৬]

ফোর্টিনেট ক্ষুদ্র নিরাপত্তা সেবা দানকারী কোম্পানিগুলোর সুবিধার্থে তাদের পুনঃবিক্রয় কর্মসূচির সংস্কার করে ২০১৩।[৩৭] সম্প্রতি কিছু পুনঃবিক্রয়কারী সংস্থা অভিযোগ করেছে যে ফোর্টিনেট তাদের নিজস্ব পুনঃবিক্রয়কারীদের সাথে প্রতিযোগিতা করছে, কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি তা অস্বীকার করেছে।[৩৮]

২০১৪ ফোর্টিনেট পালো আল্টো নেটোয়ার্কের (Palo Alto Networks) সাথে যৌথভাবে সাইবার হুমকি জোট (Cyber Threat Alliance) প্রতিষ্ঠা করে। পরে এতে ম্যাকএফি ও সিমেনটেক যোগ দেয়।[৩৯][৪০] ২০১৫ সালের মে মাসে ফোর্টিনেট সিলিকন ভ্যালী ভিত্তিক ওয়াই-ফাই হার্ডওয়ার কোম্পানি মেরু নেটওয়ার্ক্স ক্রয় করে ৪৪ মিলিয়ন ডলারে।[৪১][৪২] ২০১৫ সালের শেষ ভাগে ফোর্টিনেটের নিরাপত্তা গবেষকগণ একটি ফিটবিট হ্যাক প্রদর্শন করেন যা ব্লুটুথের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের যন্ত্রে প্রবেশ করতে পারে।[৪৩][৪৪]

২০১৬ সালের জুন মাসে ফোর্টিনেট ২৮ মিলিয়ন ডলার মূল্যে আই টি নিরাপত্তা, নজরদারি সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠান এক্সেলঅপ্স (AccelOps) ক্রয় করে।[৪৫] ZDNet – এর তথ্য অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটি বিখ্যাত ছিল এর নিরাপত্তা তথ্য ও ঘটনা ব্যবস্থাপনা Security Information and Event Management (SIEM) দ্রব্য উৎপাদনের জন্য।[৪৬]

২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠানটি ফোর্টিনেট ফেডারেল নামে একটি একক নিয়ন্ত্রণাধীন একটি কোম্পানী প্রতিষ্ঠা করে, যেটার মূল উদ্দেশ্য সরকারি সংস্থগুলোর জন্য সাইবার নিরাপত্তা যন্ত্রপাতি উৎপাদন। প্রাক্তন ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সি ডাইরেক্টর মাইক ম্যাককনেল ফোর্টিনেট ফেডারেলের বোর্ডের সদস্য।[৪৭] যুক্তরাষ্ট্রের ১৫টি মন্ত্রিসভার মধ্যে ১২টিই ফোর্টিনেটের দ্রব্য ব্যবহার করে।[৪৮] একই বছর ফোর্টিনেটের গবেষকরা দু’টি স্পাইওয়্যারের সন্ধান পায় – একটি মানুষকে প্রতারণা করে যুক্তরাষ্ট্রের কর সংস্থা আই আর এস (IRS) সেজে,[৪৯] অন্যটি ম্যাক কম্পিউটারগুলোর উপর আঘাত হানে।[৫০][৫১]

ক্রিয়াকলাপসমূহ[সম্পাদনা]

ফোর্টিনেট ফোর্টিগার্ড ল্যাবস নামেও একটি আভ্যন্তরীন নিরাপত্তা গবেষণা দল পরিচালনা করে, যা ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।[৫২] এটার চারটি গবেষণা ও উন্নয়ন কেন্দ্র এশিয়ায় অবস্থিত, এছাড়া আরো কিছু আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ফ্রান্সে।[৫৩] ফোর্টিনেট একটি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করে, যাতে আছে আটটি এন এস ই সার্টিফিকেশন (NSE certification) লেভেল।[৫৪][৫৫] প্রতিষ্ঠানটি  ২০১৬ প্রতিষ্ঠিত হওয়া নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি একাডেমি পরিচালনা করে। একাডেমিটি আই টি নিরাপত্তা ক্লাশ পরিচালনাকারী  বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে তথ্য সম্পদ সরবরাহ করে।[৫৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Greene, Tim (এপ্রিল ২৫, ২০১৬)। "New security fabric to unite Fortinet gear with that of other vendors"Network World। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১০, ২০১৭ 
  2. "Fortinet Inc. Annual Report 10-K (2016)"Fortinet.com। ৯ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৮, ২০১৭ 
  3. Hill, Karen (২০১২)। International Directory of Company Histories:Fortinet। 128: St James Press। পৃষ্ঠা 223–227। 
  4. Tam, Kenneth; Salvador, Martin; McAlpine, Ken; Basile, Rick; Matsugu, Bruce; More, Josh (ডিসেম্বর ৩১, ২০১২)। UTM Security with Fortinet: Mastering FortiOS। Newnes। পৃষ্ঠা 16–17। আইএসবিএন 978-1-59749-977-4 
  5. Beverly, Natividad (মার্চ ২, ২০০৪)। "Real-time firewalls preserve performance"। BusinessWorld 
  6. "Fortinet's Money Machine Rolls On"Network Computing। মার্চ ৩, ২০০৪। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১০, ২০১৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. Meyer, Cheryl (মার্চ ২, ২০০৪)। "Fortinet raises $50M"। The Deal 
  8. Torode, Christina (অক্টোবর ২৪, ২০০৩)। "Fortinet Adds New Partner Program"CRN। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১০, ২০১৫ 
  9. Zeller, Tom (অক্টোবর ১২, ২০০৫)। "Study Says Software Makers Supply Tools to Censor Web"The New York Times। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৫, ২০১৫ 
  10. Inc, IBP (আগস্ট ১, ২০১৩)। Myanmar Internet and E-Commerce Investment and Business Guide - Regulations and Opportunities। Lulu.com। পৃষ্ঠা 57–58। আইএসবিএন 978-1-4387-3445-3 
  11. Galli, Peter (মে ১৪, ২০০৫)। "Fortinet Under Fire for Allegedly Violating GPL Terms"। eWeek। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০১৫ 
  12. Marson, Ingrid (এপ্রিল ১৪, ২০০৫)। "Fortinet accused of GPL violation"ZDNet। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০১৫ 
  13. Marson, Ingrid (এপ্রিল ২৬, ২০০৫)। "Fortinet settles GPL violation suit"CNET। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০১৫ 
  14. Gross, Grant (মে ১৩, ২০০৫)। "Judge rules for Trend Micro in Fortinet patent case"Infoworld। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০১৫ 
  15. Roberts, Paul। "ITC Rules Against Fortinet in Patent Dispute"eWeek। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১০, ২০১৫ 
  16. Hooper, Larry (জানুয়ারি ৩০, ২০০৬)। "Fortinet, Trend Micro Settle Antivirus Patent Dispute"CRN। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১০, ২০১৫ 
  17. Dunn, John (আগস্ট ১১, ২০০৫)। "Fortinet ordered to suspend U.S. sales"Computerworld। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০১৫ 
  18. Shimel, Alan (April 12, 2011))। "The Patent That Refuses To Die"Network World। সংগ্রহের তারিখ March 14, 2015  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  19. Wright, Rob (ডিসেম্বর ২০, ২০১৩)। "Sophos CEO Slams Fortinet In Response To Employee Poaching Lawsuit"CRN। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৬, ২০১৬ 
  20. Williams, Martyn (ডিসেম্বর ১৭, ২০১৩)। "Fortinet sues Sophos over alleged employee poaching"PCWorld। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৬, ২০১৬ 
  21. Kuranda, Sarah (ডিসেম্বর ১০, ২০১৫)। "Sophos And Fortinet End 2-Year Legal Feud Over Patents, Talent, Secrets"CRN। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৬, ২০১৬ 
  22. Messmer, Ellen (জানুয়ারি ৩, ২০০৮)। "Facebook's "Secret Crush" malicious widget tricks users"Network World। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৫, ২০১৬ 
  23. Hines, Matt (জানুয়ারি ৩, ২০০৮)। "Facebook hack fuels Web 2.0 concerns"Infoworld। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১০, ২০১৫ 
  24. McMillan, Robert (জুন ১৭, ২০০৮)। "Fortinet buys assets of security vendor IPLocks"IDG News Service। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৫ 
  25. Kotadia, Munir (আগস্ট ২০, ২০০৯)। "Woven Systems technology lives on with Fortinet"IT News। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  26. "Computer security co. Fortinet plans IPO this week"Seattle Times। নভেম্বর ১৭, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  27. Cowan, Lynn (নভেম্বর ১৯, ২০০৬)। "Security Security: Fortinet IPO Jumps 33%"। পৃষ্ঠা C6 – The Wall Street Journal-এর মাধ্যমে। 
  28. DeMarzo, Robert (সেপ্টেম্বর ২৫, ২০০৯)। "Fortinet IPO: Love Of Services"CNN। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  29. Jackson, Kelly (নভেম্বর ১৮, ২০০৯)। "Product Watch: Fortinet Issues An IPO"Dark Reading। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  30. McMillan, Robert। "Security Vendor Fortinet Sparkles in IPO"IDG News। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  31. Burrows, Peter (নভেম্বর ১, ২০১০)। "Fortinet Said to Be Approached by IBM; Shares Soar"Bloombert। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  32. "Fortinet Says IBM Acquisition Talk Untrue"Reuters। জানুয়ারি ১১, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  33. Prince, Brian (নভেম্বর ১, ২০১০)। "Fortinet Denies IBM Acquisition Rumors"eWeek। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  34. Davis, Jim (ডিসেম্বর ১৭, ২০১২)। "Did Fortinet acquire XDN in a bid to add more cache to its portfolio?"451 Group। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৫ 
  35. Lawson, Stephen (মার্চ ২২, ২০১৩)। "Fortinet to Buy Coyote Point to Merge Security with Application Delivery"IDG News Service। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  36. King, Rachel (মার্চ ২২, ২০১৩)। "Fortinet buying Coyote Point for application delivery model"ZDNet। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  37. Westervelt, Robert (জুলাই ১০, ২০১৩)। "Fortinet Refines MSSP Program For Broader Reach"। CRN। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  38. "We Are A 100 Percent Channel Company"। জুলাই ১৫, ২০১৩ – CRN-এর মাধ্যমে। 
  39. Eddy, Nathan (সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৪)। "McAfee, Symantec Join Cyber Threat Alliance"eWeek। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৫ 
  40. Albanesius, Chloe (ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৫)। "Obama Wants Tech Firms to Alert Feds to Cyber Threats"PC Magazine। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০১৫ 
  41. Owens, Jeremy (মে ২৭, ২০১৫)। "Biz Break: Fortinet steps up security challenge to Cisco with Meru acquisition"The San Jose Mercury News। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৫ 
  42. Kuranda, Sarah (মে ২৭, ২০১৫)। "Fortinet Dives Deep Into Enterprise Secure Wireless Market With Meru Networks Acquisition"CRN। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৫ 
  43. Weise, Elizabeth (অক্টোবর ২২, ২০১৫)। "Fitbit hacked from 10 feet away, security firm says"USA Today। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১০, ২০১৬ 
  44. "Fitbit hack: '10 second' vulnerability makes wearables spew malware (Wired UK)"Wired UK। ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১০, ২০১৬  Authors list-এ |প্রথমাংশ1= এর |শেষাংশ1= নেই (সাহায্য)
  45. Kuranda, Sarah (জুন ৭, ২০১৬)। "Fortinet Dives Into SIEM Market With $28M Acquisition Of AccelOps"CRN। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৬, ২০১৬ 
  46. Gagliordi, Natalie (জুন ৭, ২০১৬)। "Fortinet acquires security analytics firm AccelOps"ZDNet। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৬, ২০১৬ 
  47. Edwards, Jane (মে ১৬, ২০১৭)। "Fortinet Unveils New Federal Subsidiary, Names Board Members"GovCon Wire। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৫, ২০১৭ 
  48. Wilkers, Ross (মে ১৫, ২০১৭)। "Fortinet unveils new federal arm". Washington Technology"। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৫, ২০১৭ 
  49. Barth, Bradley (এপ্রিল ১৩, ২০১৭)। "SC Exclusive: Spyware disguises itself as IRS tax notification"SC Media। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১০, ২০১৭ 
  50. Ward, Mark (জুন ১৩, ২০১৭)। "Apple Mac computers targeted by ransomware and spyware"BBC News। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১০, ২০১৭ 
  51. Dellinger, AJ (জুন ১২, ২০১৭)। "New Ransomware and Malware Attack on Macs, Macos Allows Hackers to Pay to Use"Newsweek। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১০, ২০১৭ 
  52. "Comparing the best NGFWs on the market"SearchSecurity। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৫, ২০১৬ 
  53. Yu, Eileen। "Fortinet establishes R&D lab in Singapore"ZDNet। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৪ 
  54. Solomon, Howard (জুলাই ২৯, ২০১৪)। "New online IT training touted to help meet skills shortage". IT World Canada"IT World Canada। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০১৫ 
  55. Solomon, Howard (জুলাই ২৯, ২০১৪)। "Fortinet creates new Network Security Expert certification"IT World Canada। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৫, ২০১৫ 
  56. "Intel, Fortinet, launch cybersecurity initiatives"। মার্চ ২২, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৪, ২০১৬