ফোবিয়ানের যাত্রী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফোবিয়ানের যাত্রী
ফোবিয়ানের যাত্রীর প্রচ্ছদ.jpg
ফোবিয়ানের যাত্রী
লেখকমুহাম্মদ জাফর ইকবাল
প্রচ্ছদ শিল্পীধ্রুব এষ
দেশ বাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
ধরনবৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী
প্রকাশিতবইমেলা ২০০১
প্রকাশকসময় প্রকাশন, ৩৮/২ ক বাংলাবাজার, ঢাকা।
প্রকাশনার তারিখ
ফেব্রুয়ারি ২০০১
মিডিয়া ধরণছাপা (হার্ডকভার)
পৃষ্ঠাসংখ্যা৬০
আইএসবিএন984-458-283-0
ওয়েবসাইটসময় প্রকাশনীর ওয়েবসাইট

মুহাম্মদ জাফর ইকবালের একটি বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী হলো ফোবিয়ানের যাত্রী। বইটি প্রথম প্রকাশিত হয় ২০০১ সালের বইমেলায়। বইটির প্রচ্ছদ ও অলংকরন করেছেন ধ্রুব এষ

বইটির প্রকাশকঃ ফরিদ আহমেদ[১]

প্রকাশনা সংস্থাঃ সময় প্রকাশন, ৩৮/২ ক বাংলাবাজার, ঢাকা।[২]

কম্পিউটার কম্পোজঃ ওয়াটার ফ্লাওয়ার, ২৮/এ, কাকরাইল।[৩]

মুদ্রনঃ সালমানী প্রিন্টার্স, মগবাজার, ঢাকা।[৪]

প্রধান চরিত্রসমুহ[সম্পাদনা]

  • ইবান – পঞ্চম মাত্রার মহাকাশ যানের অধিনায়ক
  • ম্যাঙ্গেল ক্লাস – মহাকাশ দস্যু
  • রিতুন ক্লাস – একজন মানুষ যার ২০০ বছর পূর্বে মৃত্যু হয়েছে
  • ফোবিয়ান – পঞ্চম মাত্রার মহাকাশ যান
  • মিত্তিকা  – পঞ্চম মাত্রার মহাকাশ যানের একজন নারী যাত্রী

কাহিনীসংক্ষেপ[সম্পাদনা]

পৃথিবীতে তখন জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যবহার করে সহজেই একজন মানুষকে অতিমানবীও ক্ষমতা দেওয়া যেত তখন ইবানের মা তার ছেলের মাঝে শুধু ভালবাসার গুনটুকু নিশ্চিত করেছিল যার দরুন ইবানকে পদে পদে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। তাই সে তের বছর বয়সে তার গ্রহ ত্যাগ করে। পরবর্তীতে কষ্ট করে হলেও চতুর্থ মাত্রার মহাকাশ যানের অধিনায়ক সে হয়। এসময় তাকে পঞ্চম মাত্রার মহাকাশ যানের অধিনায়ক হওয়ার সুযোগ দেয়া হয়। কিন্তু তার কারগো ছিল মহাকাশ দস্যু ম্যাঙ্গেল ক্লাস। যার কারণে সে দ্বিধাদণ্ডে পড়ে তবুও সে রাজি হয়। ফোবিয়ান নামক পঞ্চম মাত্রার মহাকাশ যানে করে চলার কিছু দিন পর ম্যাঙ্গেল ক্লাস ফোবিয়ানের নেতৃত্ব নিতে চায়। এক সময় সে পঞ্চম মাত্রার মহাকাশ যানের কিছু যাত্রীদের নিজের নিয়ন্ত্রণে আনে। পঞ্চম মাত্রার মহাকাশ যানের একজন নারী যাত্রী মিত্তিকাকে সে নিজের করে পেতে চায়। এক পর্যায়ে ইবানের প্রচেষ্টায় ম্যাঙ্গেল ক্লাসের যান্ত্রিক অংশ ধ্বংস হয়। মিত্তিকা বেঁচে যায়। তবে শেষ পর্যায়ের নাটকীয়তায় সবাই মনে করে ফোবিয়ান ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল কিন্তু ফোবিয়ান অক্ষত ছিল। ছেলের মারা যাওয়ার ভুল খবর শুনে ইবানের মা আত্মহত্যা করে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃ সংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল (ফেব্রুয়ারি ২০০১)। ফোবিয়ানের যাত্রী। সময় প্রকাশন, ৩৮/২ ক বাংলাবাজার, ঢাকা। পৃষ্ঠা ইনার পেজ। আইএসবিএন 984-458-283-0 
  2. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল (ফেব্রুয়ারি ২০০১)। ফোবিয়ানের যাত্রী। সময় প্রকাশন, ৩৮/২ ক বাংলাবাজার, ঢাকা। পৃষ্ঠা ইনার পেজ। আইএসবিএন 984-458-283-0 
  3. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল (ফেব্রুয়ারি ২০০১)। ফোবিয়ানের যাত্রী। সময় প্রকাশন, ৩৮/২ ক বাংলাবাজার, ঢাকা। পৃষ্ঠা ইনার পেজ। আইএসবিএন 984-458-283-0 
  4. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল (ফেব্রুয়ারি ২০০১)। ফোবিয়ানের যাত্রী। সময় প্রকাশন, ৩৮/২ ক বাংলাবাজার, ঢাকা। পৃষ্ঠা ইনার পেজ। আইএসবিএন 984-458-283-0